ঘরে বসেই আজ মুড়ি খাচ্ছেন শ্রীলংকান দর্শকরা

Please log in or register to like posts.
News

ফাঁকা প্রেমাদাসা, চারিদিকে যেন নিস্তব্দতা। টুর্নামেন্টের শুরু হতেই প্রায় সবখানেই ছিল উৎসবের আমেজ। তবে শেষতক উদযাপনের শেষদিনে শ্রীলঙ্কা কেবল দর্শক হয়েই রইল। এদিকে দর্শক বনতেও যেন তাদের ঘোর আপত্তি, স্টেডিয়ামে বাইরে টিকেট কাউন্টারে নেই দর্শকদের উপচে পড়া ভিড়। অবশ্য থাকার কথাও না, এমন উৎসবে নিজেদের মাঠে অন্যের নাচ দেখতে কারই বা ভাল লাগবে? তাও সেটা যদি ভয়ংকর নাগিন নৃত্য হয় তবেতো সহ্য হওয়ার কথাই না। তার চেয়ে ভাল বাড়ীতে বসে মুড়ি খাওয়া।

স্বাধীনতার ৭০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ত্রি-জাতীয় নিদাহাস ট্রফি টুর্নামেন্ট এর আয়োজন করে শ্রীলংকা। সিংহলি শব্দ ‘নিদাহাস’ এর অর্থই হচ্ছে স্বাধীনতা। নিজেদের এমনই এক উৎসবে আজ তারা নিরব দর্শক। একটু পর  ফাইনালে স্বাধীনতা উৎসবের সেই ট্রফির জন্য লড়বে বাংলাদেশ ও ভারত।

এদিকে চাপ মুক্ত হয়ে খেলবে বাংলাদেশ এমনটাই প্রেস ব্রিফ করেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক, তবে সত্যি সত্যি যে টাইগারদের সমীহ করছেন তা ভারতীয় অধিনায়কের সুরেই ফুটে উঠেছে।

দুর্দান্ত এক জয়ের পর উৎসবটা কেমন হতে পারে, তা তো ম্যাচ শেষে টাইগারদের ঐ ‘নাগিন’ নাচ দেখলেই অনুমান করা যায়। দলের অতি ভদ্র সুবোধ হিসেবে পরিচিত খেলোয়াড়টিও এসে যোগ দিয়েছিলেন ওই উচ্ছ্বাসে বাদ জাননি টিম ম্যানেজারও। এমন জয়ের পর একটু নেচেগেয়ে উল্লাস না করলে বোধয় জয়ের আনন্দটা পরিপূর্ণতা পেতনা।

নিজেকে সামলে রাখাই অসাধ্য হয়ে উঠেছে, কিন্তু প্রকাশ্যে উদ্‌যাপনটা খুব সামান্যই ছিল। বাকিটা ড্রেসিংরুমের জন্য জিইয়ে রেখেছিলেন টাইগাররা । এই ড্রেসিং রুমেই কিন্তু বহিঃপ্রকাশ ঘটে খেলোয়াড়দের মাঠের বাইরের অপ্রকাশিত সব প্রতিভা। আর সেখানেই হয়তো জীবনের সেরা আনন্দটা গতকাল উদযাপন করেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। সেই আনন্দে ভাগ বসাতে যখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান যান তখন অনেকেই ভরকে গিয়েছিল। তিনি তাদের বলেছেন- এই থামবা না, আমি দেখব না চলে যাচ্ছি, তোমরা নাচো! তবে এটা ভিডিও করে আমাকে পাঠাবে।

শ্রীলংকার বিপক্ষে জয়টা এত সহজে আসেনি। শেষের ওভারে তো ম্যাচ বয়কট করার মতো ঘটনার সুত্রপাত হতে যাচ্ছিল। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে খারাপ সম্পর্ক হতে পারে অনেকের ধারণা হলেও বিসিবি সভাপতি সেই শঙ্কা দূর করে দিয়ে জানিয়েছেন যে, খেলা শেষে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ টিমকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কটা যে ঠুনকো নয় তা জোড় দিয়েই বলেছেন মি. পাপন।

 

Reactions

1
1
1
1
0
1
Already reacted for this post.

Reactions

1
1
1
1
1

Nobody liked ?

Leave a Reply