Now Reading
আজ আমার বিয়ে – শেষ পর্ব



আজ আমার বিয়ে – শেষ পর্ব

আমি খুব বেশি চিন্তিত । বিয়ে করলাম বেশি দিন হলো না এর মধ্যে কি সব ঝামেলায় যে পড়লাম । সেদিন রুপা আমার সাথে আর কোনো কথা বলেনি । পরের দিন অফিসে বসে ভাবছি কে এই জান্নাত , হুট করে ফেসবুকের টোন কানে আসলে মানে কেউ একজন ম্যাসেজ দিয়েছে । কম্পিউটারের দিকে চোখ যেতে দেখি আবার সেই জান্নাত ।

কেমন আছেন চাঁদ – ওই পাশ থেকে বলছে
কে আপনার চাঁদ , আর আপনি কে , কেন আমাকে বিরক্ত করছেন । আপনার জন্য আজ আমার সংসারে অশান্তি । বিয়ে করে দুই দিন ও যেতে পারলো না কি শুরু করে দিয়েছেন । আপনাকে আমি কত বার বলেছে আমি বিবাহিত । আমি এক নিঃশ্বাসে সব লিখে গেলাম ।
কিছুক্ষণ পর উত্তর আসলো আপনি জানি আপনি বিবাহিত , আপনার বউ থেকে আমি অনেক সুন্দর । আমার মতো মেয়ে আপনি কোথাও পাবেন না ।
আমি আপনার মতো মেয়ে চাইও না । আমার বউ আমার কাছে দুনিয়ার সবচেয়ে সুন্দর । এই কথা লিখতে লিখতেই দেখি আমার নাম্বারে কল । তাকিয়ে দেখি রুপা কল দিয়েছে ।
কি করো – কল ধরার সাথে সাথেই রুপার প্রশ্ন
কিছু না বসে আছি ।
বসে বসে কি জান্নাতের কথা ভাব । কি ব্যাপার ফেসবুকের ম্যাসেজের শব্দ শুনতে পেলাম । ও বুঝেছি জান্নাতের সাথে চ্যাট করছও বুঝি । ভালো ভালো করো ।
এই কথা বলে ,লাইন কেটে দিলো ।
মেজাজ তখন চরম খারাপ , জান্নাতকে ম্যাসেজে খুব কড়া কথা বলে কম্পিউটার বন্ধ করে রেখে দিলাম ।
সন্ধ্যার সময় বাসায় ফেরার পথে রুপার জন্য আইস ক্রিম কিনে নিয়ে আসলাম ।ভাবলাম রাগ বুঝি কমে গিয়েছে ।
কিন্তু না বাসায় এসে দেখি এক পাশে বসে আছে । আমাকে জামা কাপড় এগিয়ে দিচ্ছে কিন্তু কথা বলছে না । আমি তাকে কত ভাবে যে বোঝানোর চেষ্টা করলাম আমি জান্নাত নামের কাউকে চিনি না , সে বিশ্বাস করলো না । যাই হোক গোসল করে খেতে যাবো , দেখি টেবিল আমার সব প্রিয় খাবার । আমি অবাক হয়ে বললাম এই গুলো কি আপনি রান্না করেছেন
না জান্নাত রান্না করেছে ।
এই কথা শুনে আর দ্বিতীয় প্রশ্ন করার সাহস পায়নি । খাওয়া শেষে চুপ চাপ উঠে চলে গেলাম বেলকনিতে । একটু পরে দেখলাম রুপাও এসে বসেছে কিন্তু কোনো কথা বলছে না ।
আমি তার হাত ধরে বললাম রুপা আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি । বিশ্বাস করো আমি জান্নাত নামের কোনো মেয়ে কে চিনি না । আমার কোনো বন্ধু হয়তো মেয়ের আইডি খুলে ফাজলামো করছে । আমার জীবনে তুমি প্রথম কোনো মেয়ে যার হাত আমি ধরেছি । আমি আল্লাহকে ভয় পাই , তাই নিজেকে গচ্ছিত রেখেছি তোমার জন্য ।
এই কথা গুলো বলে আমি চুপ করে বসে আছি । কিছুক্ষণ পর দেখলাম আমার উনি মানে আমার রুপা আমার কাঁধে মাথা রেখে বলে
আমি তোমাকে অনেক বিশ্বাস করি । আমি জানি তুমি এমন কিছুই করনি । আর ওই জান্নাত আইডিটাও আমার । বাসায় তেমন কোনো কাজ নেই । কিছু দিন আগে আইডিটা খুলে তোমার সাথে চ্যাট করে সময় পার করতাম । আমি তোমাকে বাজিয়ে দেখলাম যে তুমি কেমন বাজো ।
তুমি খুব ভালো একজন মানুষ । তুমি জানো আমাদের সমাজে কিছু মানুষ পুরুষ থাকে , যারা শুধুই পুরুষ । তারা পুরুষ থেকে মানুষ হতে পারে না । ঘরে বউ আছে কিন্তু বাহিরে পরকীয়া করে বেড়াচ্ছে । বউয়ের গায়ে বিনা কারণে হাত তুলছে । তারা আসলে পুরুষ কিন্তু মানুষ না । আমি জানি না তুমি সেই গণ্ডি থেকে বের হতে পেরেছো কিনা । কিন্তু আমার কাছে তুমি একজন পুরুষের পাশাপাশি একজন মানুষ । আমি নিজেকে অনেক সৌভাগ্যবান মনে করছি তোমার মতো জীবন সঙ্গী পেয়ে । আমি যেমন চেয়েছিলাম ঠিক তেমন আমার মনের মানুষ পেয়েছি । আজ আমার আর কিছুই চাওয়ার নেই ।

দেখো রুপা একজন বিবাহিত মানুষের জীবনে টাকা পয়সা , গাড়ি বাড়ি এই সব কিছু করার আগে নিজের মধ্যে বিশ্বাস নামক বস্তুটা জন্ম দিতে হবে । তা না হলে সেই সম্পর্ক দিনে দিনে বিষের মতো হয়ে উঠবে । আমি যতই টাকা পয়সা ইনকাম করনি না কেন , যদি একে অপরের প্রতি বিশ্বাস না রাখি তাহলে সুখ নামের পাখিটা কখনো ধরা দিবে না । আমি তোমাকে অনেক বিশ্বাস করি , কারণ আমি তোমার মধ্যে দেখেছি আমার প্রতি এক অন্য রকম ভালোবাসা । আমি শুধু তোমাকে নিয়ে ইহকালে নয় পরকালেও থাকতে চাই । আমি চাই তোমাকে আমার জনম জনমের সাথী করতে ।

আমিও চাই তোমাকে নিয়ে বাঁচতে । তোমার মাঝে বাঁচতে । আমার ভালোবাসা তো আমি তোমার মাঝে দেখেছি । আমি বেশি কিছু চাইনা তোমার কাছে । শুধু বলবো আজ আমাকে যেভাবে ভালোবাসো , ঠিক আজীবন ভালোবেসে দিও একই রকম করে । এই দুনিয়ায় কেন , পরকালে যদি সঙ্গী হিসেবে বেছে নিতে বলা হয় প্লিজ তুমি আমাকেই তোমার সঙ্গী করে নিয়ে ।

রুপা এই কথা বলে আমার বুকের মাঝে মুখ লুকল । আমি তার কথা শোনার সময় আকাশের দিকে তাকিয়ে পূর্ণিমার চাঁদ দেখছিলাম । যখন সে আমার বুকে মাথা রাখল আমি তখন তার দিকে তাকালাম । কি তার মায়াবী মুখ । আকাশের জোছনা তখন মেঘে ঢেকে গিয়েছে । যাবেই না কেন , চাঁদ যে আমার বুকে আজ মাথা লুকিয়েছে । এই পূর্ণিমা শুধুই আমার ।

প্রথম থেকে সব পর্ব পড়ার জন্য সাইটে প্রবেশ করুন । আমার নামের ওপর ক্লিক করলে সব আর্টিকেল পেয়ে যাবেন

About The Author
Rohit Khan fzs
Rohit Khan fzs
বি.এস.সি করছি ইলেকট্রনিক এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং। লিখতে ভালবাসি। নতুন নতুন মানুষদের সাথে পরিচিত হতে পছন্দ করি।

You must log in to post a comment