পাবলিক কনসার্ন

ছাত্র জীবনে নিজেকে বলা সবচেয়ে বড় মিথ্যা ..

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ আপনি যদি পড়া লেখাতে ভালো হয়ে থাকেন তবে এই পোস্টটির ফল আপনি ইতোমধ্যেই ভোগ করছেন এটি লেখা হয়েছে কিছু ছাত্রদের উদ্দেশ্য করে ।

ছাত্র জীবনে নিজেকে বলা সবচেয়ে বড় মিথ্যা কথা হল

“আজ থেকেই পড়তে বসবো ”

দিনের বেশির ভাগ সময় কেটে যায়  আড্ডা দিতে আর বাসার পাশের চায়ের দোকানে । রাতে পড়তে বসলে ১০ মিনিট পর পর মোবাইল ধরতে ইচ্ছা হয় । এক সময় বইটা আস্তে করে বন্ধ করে ফেসবুক এ পড়ে থাকি আর মনে মনে বলি “কাল থেকে পড়তে বসবো আজ আর ভালো লাগছে না” ।

আমাদের দেশের বেশির ভাগ ছাত্রই এই কথা নিজেকে বলে থাকে । কখন এই কথা গুলো বলি? যখন পরীক্ষা খুব কাছে আর

পড়ার সময় বেশি থাকে না । বইগুলো হয়ে যাই এভারেস্ট সমান । কখনও

ভেবে দেখেছো এই পরিস্থিতির মাঝে থেকে তোমাকে কেনই বা যেতে হবে?

তুমি একটু সিরিয়াস হলেই কিন্তু এই পরিস্থিতি এড়িয়ে যেতে পারো । পরীক্ষার সময়

বাড়তি চাপও তোমাকে অনুভব করতে হবে না ।পরীক্ষাই ভালো ফলাফল তো সবাই করতে চাই কিন্তু কেও সেভাবে পড়তে চাই না ।অনেকে আছে কয়েকটা সাবজেক্ট এ ফেলই করে বসে । কিছু পদ্ধতি আছে যা অনুসরণ করলে তুমি ফেল করবে না এর গ্যারান্টি আমি দিবো যদি তুমি পদ্ধতিগুলো মেনে চলো ।

চলো তাহলে দেখে আসি কি সেই পদ্ধতি যা তোমাকে একটু হলেও

পরীক্ষার সময় আত্মবিশ্বাস এনে দিবে ?

প্রথম তোমাকে যে কাজটি করতে হবে তা হল প্রতিদিন কষ্ট হলেও কমপক্ষে ১ ঘণ্টা

পড়তে বসা (১ সাবজেক্ট ) । তোমার কোন কিচ্ছু লেখার দরকার নাই তুমি শুধু পড়

আর গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো দাগাতে পারো । পরে দেখবে ওই বিষয়ে কিছু প্রশ্ন তোমার মনে বাসা বেধেছে । এটা সব থেকে বড় দিক বলে আমি মনে করি । মনে প্রশ্ন জাগলে

বুঝে নিও তুমি প্রথম পদক্ষেপ সম্পূর্ণ করলে ।

এখন মনে প্রশ্ন জাগলে তার সমাধান ও তো করতে হবে তাই না? এ জন্য যতোটা সম্ভব তোমার ক্লাস এ তোমাকে উপস্থিত থাকতে হবে এটা তোমার দ্বিতীয় পদক্ষেপ ।

স্যার ক্লাস এ কি লেকচার দিলো তা সাথে সাথে নোট করতে হবে । পরে কিন্তু মনে থাকবে না । তারপর তুমি তোমার প্রশ্নগুলো স্যারের কাছে করতে পারো আসা করি

স্যার তোমাকে ভালো করে বুঝিয়ে দিবে ।

তৃতীয়ত তোমার বইয়ের প্রতিটি অধ্যায় তেই লক্ষ করলে দেখতে পারবে কিছু  মৌলিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে তোমার কাজ হল সেই মৌলিক বিষয় গুলো আগে পড়ে ফেলা । পরীক্ষার সময় এই মৌলিক বিষয় গুলো অনেক কাজে লাগে, অনেক ছাত্র খুজে পাবে যারা মৌলিক বিষয় জানার কারণে অনেক প্রশ্নের

উত্তর দিতে পারে ।

এইতো গেল তোমার প্রথম কাজ । আর এই কাজটা করেই সেমিস্টারের ১ম মাস কাটিয়ে দাও

যার ফলে তোমার সেমিস্টারের ১ম মাস বিফলে যাচ্ছে না । এবার আগের থেকে তোমাকে পড়া অনেক বাড়িয়ে দিতে হবে ।এভাবে আস্তে আস্তে তুমি উন্নতি করতে পারবা

এখন যখন তুমি বলতেই পারো যে ভাই আপনার কথা মতো তো পড়ে দেখলাম কিন্তু

আমার মনে থাকতেছে না এ ক্ষেত্রে আমি বলতে পারি তুমি যখন পড়বে তখন সেই

টপিকটা লিখবে ফলাফল তুমি নিজেই দেখতে পাবে ।

আর কিছু ছাত্র আছে যারা কিছু কিছু সাবজেক্ট এর বই ধরতেই ভয় পায় কারণ তারা  বুঝতে পারে না, তাই তারা ওই বইটা পড়েই না ।

একটা কথা সবসময় আমি বলি,

যে বিষয়টা কে তুমি ফেস করতে ভয় পাও তাকে বার বার ফেস করো , নিজের মনের ভয়টা কে শেষ করা তোমার প্রথম কাজ । যে সাবজেক্টটা নিয়ে ভয় পাচ্ছো তা বার বার পড়ার চেষ্টা করতে পারো, আমার একটা সাবজেক্ট এমন কঠিন ছিল তখন আমি ওই সাবজেক্টটা প্রথম প্রথম পৃষ্ঠাগুলা উল্টাই পাল্টাই দেখতে শুরু করি পরে আস্তে আস্তে ভয় কেটে যাওয়ার পর আমি মেইন বিষয়গুলো শেষ করার পর বিস্তারিত পড়তে থাকি, এটা একদিনের বিষয় ছিল না একটু একটু করে শেখা লেগেছে ।

এখন এই লেখাটি পড়ে হয়তোবা তুমি এক সপ্তাহ পড়লে তারপর আমার লেখার কথাও ভুলে গেলে আর পড়াশোনাও ছেড়ে দিলে ।

এমনটা যেন না হয় সে জন্য তুমি যা করতে পারো তা হচ্ছে তুমি তোমার বাসায় যে স্থান এ সব থেকে বেশি সময় কাটাও সেখানে একটা সাদা কাগজ ছিঁড়ে লিখে রাখো

“আমাকে পড়তে হবে ভালো রেজাল্ট করতে হবে” ।

বেশির ভাগ সময় যদি তোমার মোবাইলে কেটে জায় তাহলে মোবাইলের ব্যাকগ্রাউন্ড ছবি এমন রাখতে পারো যা তোমাকে কাজের দিকে নিয়ে যাবে যেমন রাখতে পারো

“YOU SHOULD DO WORK”

এর পর তুমি পড়া ছেড়ে যদি চলেও আসো আর তোমার এই লেখাটি তোমার চোখে পড়ে তুমি একটুপর আবার ঠিক পড়তে বসবে ।

এতক্ষণ যা বললাম তা শুধু তোমাকে পড়ার দিকে আকৃষ্ট করতে পারে কিন্তু তোমাকে নিজের সমস্যাগুলো নিজেই সমাধান করতে হবে ।

সবশেষ বলতে চাই পড়াশোনা একান্তই তোমার নিজস্ব ব্যাপার এখানে তোমাকে তোমারি সাহায্য করতে হবে । আর একটা কথা বন্ধু নির্বাচনে সবসময় সচেতন হও

যারা একদম খারাপ ছাত্র তাদের থেকে দুরে থাকার চেষ্টা কর ,একটু একটু করে ফল

পেতে থাকবে । তুমি যদি ক্লাস এর প্রথম সারির ছাত্রদের সাথে বসতে অস্বস্তি বোধ করো তাহলে সপ্তাহে কিছু দিন তাদের সাথে বসে ক্লাস করার চেষ্টা কর ।

আর কিছু যদি না মানো তাহলে বলতেই থাকবে “ আজ থেকেই পড়তে বসবো ” ।

 

একই রকম আরো কিছু ফুটপ্রিন্ট

ফেসবুক-লাইভে তরুণীদের নোংরামোঃ সস্তা জনপ্রিয়তা নাকি বেহায়াপনা?

Ferdous Sagar zFs

আত্মহত্যা ভয়ংকর মানসিক ব্যাধি

Sharmin Boby

বাংলাদেশকে নিয়ে অপমানজনক ভুল তথ্যে ভরা ভিডিও তৈরীর জন্য বাংলাদেশীজমের অভিনব প্রতিবাদ !!

Ferdous Sagar zFs

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy