সাহিত্য কথা

হয়তো প্রেমের গল্প

সূচনা –

প্রথম প্রথম সব কিছু ভালো লাগে । যেমন, প্রথম দিন স্কুলে যাওয়া । সবার ক্ষেত্রে এই ব্যাপারটা এক না । কিন্তু প্রথম স্কুল জীবন পেরিয়ে কলেজে যাওয়াটা কিন্তু সবার কাছে আনন্দের । আবার কলেজ পেরিয়ে ভার্সিটি , এইটা মনে পড়লে নিজেকে তখন অনেক বড় বড় লাগে । ঠিক আমার প্রথম দিনটাও ছিল স্মরণীয় । ভার্সিটির প্রথম দিন আমি র‍্যাগিং নামক একটি বস্তুর সম্মুখীন হয়েছিলাম । আমাকে বলা হয়েছিল পানিওয়ালা ডান্স নামক গানের সাথে নাচতে । আমি জীবনে কখনো নিজের অজান্তে নাচ করিনি । সেদিন আমাকে বাধ্য হয়ে করতে হয়েছিল । আমার পাশে একটা আপু , মনে হয় আপুই হবে , সে খুব হাসছিল । বুঝতে পেরেছিলাম উনাকে খুব আনন্দ দিতে পেরেছি । র‍্যাগিং শেষে তার পাশের সিটে গিয়ে বসে প্রথমে মুচকি হাসি দিলেও . নিজের কৃতকর্মের জন্য হাসি আর ধরে রাখতে পারছিলাম না । পরিচিত হলাম । আমি শান্ত । আপনি ?
আমি চাঁদনী ।
না আমি কোনো লেখক নই , না আমি কোনো কবি , তার নাম শোনা মাত্রই আমি কবিতা বানিয়ে ফেলবো । শুধু জিজ্ঞেস করেছিলাম আপু কোন সেমিস্টারে আছেন ?
৪র্থ সেমিস্টারে আছি ।
বুঝতে পারছিলাম না কি করবো । প্রথম দেখায় প্রেম কি এখানে কবর দিয়ে দিবো নাকি আরো একটু সময় নিবো । যাই হোক কিছু না বলে উঠে আসি । যেহেতু একই ভার্সিটিতে লেখা পড়া . সেই সুবাদে প্রায় তার সাথে আমার দেখা হয় । ক্যান্টিনে বসে প্রায় আড্ডা দেয়া হয় । ভাব শুরু , এক সময় ভাব পরিণত হয় ভালোবাসায় । আজ আমি তাকে নিয়ে কবিতা লিখি । তাকে নিয়ে ভাবি । কারণ আজ যে আমি তার প্রেমিক ।

পরিণাম

সব কিছুর সুন্দর শেষ হবে তা কোথাও লেখা নেই । লেখা থাকলে ভালো হতো । আজ অন্তত সে আমার হতো । বিছানার পাশে একটি বিয়ের কার্ড । বেশি কিছু হয়নি , যেখানে আমার বাবা ডাক শোনার কথা ছিল সেখানে হয় আমি মামা না হয় চাচা । কথা গুলো শুনতে অনেক সহজ শোনালেও , আমি জানি আমার মধ্যে দিয়ে কি যাচ্ছে । কারণ তার সাথে সময় কাটানো প্রতিটা মুহূর্ত , প্রতিটা জায়গা আমাকে প্রতিদিন মেরে ফেলবে । আর সে ঠিক তার জামাইকে নিয়ে ভালো থাকবে । আসলে আমাদের সবচেয়ে বড় শত্রু হলো প্রকৃতি । আবার খুব কাছের বন্ধু হলো প্রকৃতি । প্রকৃতির খেলা বোঝা বড় মুশকিল । আজ প্রকৃতি আমাদের আলাদা করে দিয়েছে । যেখানে আজ সমাজ নামের প্রকৃতি সমবয়স মেনে নেয় না , আর সেখানে আমার থেকে বড় । অনেকটা হাসির মতো শোনালেও কথা সত্য । আমার জীবনে সবচেয়ে বড় অভিশাপ আমি এখনো ছাত্র , মানে আমি বেকার । প্রতিরাতে অনেক পরিমাণ অশ্রুবৃষ্টি হয় আমার ঘরে । চাঁদনীর ঘরে যে অশ্রু বৃষ্টি হচ্ছে না , তা কিন্তু নয় । ওদের ঘরেও হচ্ছে কিন্তু সেই বৃষ্টি তার জীবনের ভালোবাসার বৃষ্টি । এইখানেও আমাদের প্রকৃতি তার অদ্ভুত রূপ দেখিয়েছে । একই বৃষ্টি আজ দুই জায়গায় । পরিস্থিতি ভিন্ন হওয়ার কারণে আজ অশ্রুর নামও পরিবর্তন হয়েছে । আজ আমার সঙ্গী কিছু গান –

অন্ধকার ঘরে, কাগজের টুকরো ছিঁড়ে
কেটে যায় আমার সময়
তুমি গেছো চলে
যাওনি বিস্মৃতির অতলে
যেমন শুকনো ফুল বইয়ের মাঝে রয়ে যায়

রেখেছিলাম তোমায় আমার হৃদয় গভীরে
তবু চলে গেলে এই সাজানো বাগান ছেড়ে
আমি রয়েছি তোমার অপেক্ষায়……

নিকষ কালো এই আঁধারে
স্মৃতিরা সব খেলা করে
রয় শুধু নির্জনতা
নির্জনতায় আমি একা
একবার শুধু চোখ মেলো
দেখো আজ পথে জ্বালি আলো
তুমি আবার আসবে ফিরে
বিশ্বাসটুকু দু’হাতে আঁকড়ে ধরে।

গানটার সাথে আজ আমার বড়ই মিল ।

উপসংহার

আজ আমার ২য় বাচ্চাটি জন্ম নিয়েছে । বড় ছেলে ক্লাস ৫ এ পড়ে । প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে অফিসে যেতে আর ভালো লাগে না । ইচ্ছে করে বৌয়ের সাথে কিছু সময় কাটাই । ওর পাশে আমার থাকাটা অনেক জরুরি । কিন্তু ব্যস্ত নগরী তার ব্যস্ততার মাঝে আমাকে গিলে খেয়েছে । আচ্ছা ভার্সিটিতে থাকতে আমি একটা মেয়েকে ভালোবেসে ছিলাম । কি যেন তার নাম ? বেশ কিছু দিন ধরে অনেক চেষ্টা করছি মনেই করতে পারছি না । ও হ্যাঁ , চাঁদনী । মনে পড়েছে । আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে একা একা হাসি । কতই না বোকা ছিলাম । হাহাহা কত রাত কেঁদে কাটিয়েছি । ধন্যবাদ দিতে চাই স্রষ্টাকে । আমার জীবন থেকে ওই মেয়ে না গেলে হয়তো এই রকম মিষ্টি একটি বউ পেতাম না । না নিজের সাথে আর আয়নায় দাঁড়িয়ে কথা বলা যাবে না । অফিসের দেরি হয়ে যাচ্ছে । চলে যাই ।

লেখকের মন্তব্য

জীবন থেমে থাকে না । কারণ জীবনের সংজ্ঞায় আছে , জীবন থেমে থাকার নয় , প্রবহমান নদীর মতো । কোনো রাস্তা বন্ধ হয়ে গেলে , নিজের চলার জন্য আরেকটি রাস্তা তৈরি করে নেয় । হয়তো আমরা কাউকে পেয়ে খুব ভালো থাকি । আবার কয়েক বছর পর আমাদের মনে হয় . আজ তাকে না পেয়ে আমি অনেক ভালো আছি কি মনে হয় সেটা পরের কথা । আমি লেখক হিসেবে আপনাকে এইটা বলতে পারি , নিজের কথা নিজে বোঝার চেষ্টা করবেন । নিজের মন কি চায় সেটা বোঝার চেষ্টা করবেন । অন্যদের প্রতি স্বার্থপর হয়ে নিজের সুখের দিকটা ভাবেন । কারণ আপনি দুঃখী হলে কেউ এসে আপনাকে সুখী করবে না । নিজেকে নিজেরই সুখী করতে হবে । ভালো রাখেন নিজেকে , আগলে রাখেন নিজের ভালোবাসাকে ।

জয় হোক সত্যের ।

একই রকম আরো কিছু ফুটপ্রিন্ট

ব্ল্যাক-ম্যাজিক বা কালোজাদু সংক্রান্ত কিছু বাস্তব ঘটনা (পর্ব-২)

Ferdous Sagar zFs

রহস্য চারিদিকে পর্ব—১

Salina Zannat

পথের শেষে [১ম পর্ব]

Ikram Jahir

Login

Do not have an account ? Register here
X

Register

%d bloggers like this: