Now Reading
এসেছে উবুন্টু ১৭.১০ ,রিভিউ



এসেছে উবুন্টু ১৭.১০ ,রিভিউ

 

উবুন্টু অত্যন্ত ক্যানোনিকালের অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি অপারেটিং সিস্টেম। এবার এক ঘোষণা দিয়ে উবুন্টু বেশ হইচই ফেলে দিয়েছিল, উবুন্টুর ডিফল্ট ডেস্কটপ ইউনিটির ডেভলপমেন্ট বন্ধ হয়ে যাবে। নতুন অপারেটিং সিস্টেমটিতে ব্যবহার হয়েছে গ্নোম শেল। ১৭.১০ ভার্সনটির কোডনেম Artful Aardvark, Artful একটা বিশেষণ, অর্থ দক্ষ আর Aardvark হল আফ্রিকান পিঁপড়াখেকো। এই ভার্সনটি স্ট্যাবল না, অর্থাৎ ৯ মাস সাপোর্ট পাওয়া যাবে এবং বাগ থাকার সম্ভাবনা বেশি। পরবর্তী স্ট্যাবল ভার্সন হবে ১৮.০৪, যা আসবে ২০১৮ সালের ৪র্থ অর্থাৎ এপ্রিল মাসে।

ইউনিটির তুলনায় এটাকে খারাপ মনে হয়নি। ইউনিটির তুলনায় অনেক আধুনিক মনে হয়েছে। বর্তমান যুগোপোযোগী ফ্ল্যাট ডিজাইন রয়েছে। তবে আরো ইউজার ফ্রেন্ডলি হবে বলে আশা করেছিলাম। যেহেতু পূর্বে গ্নোম ডেস্কটপ ব্যবহারের অভিজ্ঞতা ছিল না, তাই একেবারেই নতুন অভিজ্ঞতা পেলাম। কাস্টমাইজেবিলিটি ইউনিটির চেয়ে কিছুটা বেশি হলেও আমার আশানুরুপ ছিল না। বেশি খারাপ লেগেছে আগের মতই ডিফল্টলি কোন টুইক টুল বা সেটিংসে যথেষ্ট অপশন নেই। ভবিষ্যৎ ভার্সনগুলোতে আরো কিছু অ্যাপ যেমন, Gdebi, Gnome Tweak প্রভৃতি যোগ করে দেওয়া উচিৎ বলে মনে করি।

উইন্ডোজ, ম্যাক এবং বেশিরভাগ লিনাক্স ডিস্ট্রো উইন্ডো বাটন (ক্লোজ, মিনিমাইজ, রিস্টোর/ম্যাক্সিমাইজ) ডান সাইডে রাখলেও উবুন্টু সম্ভবত ১১.০৪ থেকে ১৬.০৪ ভার্সন পর্যন্ত বাম সাইডে রেখেছিল, এবার তারা পুনরায় ডান সাইডে নিয়ে আসছে। আমি এটাকে পজিটিভলি দেখি, তবে সেটিংসে ডান-বাম সুইচ করার অপশন রাখাটাই সবচেয়ে ভাল হত মনে করি। তবে যেটা খারাপ লেগেছে, ক্লোজ বাটনকে প্যানেল (টপবার) এর নিচে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে, যেটা কাজের গতি কমিয়ে দিচ্ছে। মাল্টিটাস্কিংয়ের জন্য উবুন্টু ১৭.১০ খুবই চমৎকার। ডেস্কটপ সুইচের অপশন এখানে অনেক এডভান্সড।

ভাল লেগেছে যে, ইউনিটির স্বাদ ধরে রাখার চেষ্টা করা হয়েছে। ইউনিটি ডেস্কটপের মতই উপরে একটা প্যানেল আর ডানে একটা ডক, হ্যাঁ, লঞ্চার এখন থেকে ডক বলে অবিহিত হবে। থিম ও অন্যান্য দিক দিয়েও এটা ইউনিটির মতই করা হয়েছে, মানিয়ে নিতে কোন অসুবিধাই হবে না! আর পুরনো ভার্সন থেকেও নতুন ভার্সনে আপগ্রেড করে নেওয়া যাবে।

ফিচার

১. ইউনিটির বদলে ব্যবহার হচ্ছে গ্নোম! পূর্বেও উবুন্টু গ্নোম ফ্লেভারে গ্নোম ডেস্কটপ পাওয়া যেত। তবে এখন গ্নোম হবে ডিফল্ট ফ্লেভার। আর এটা বেশ কাস্টমাইজডও বটে।

২. ডিসপ্লে সার্ভার এখন হবে ওয়েল্যান্ড। বাই দ্য ওয়ে, এসব আমি বুঝি না।

৩. এসেছে নতুন অন স্ক্রিন কিবোর্ড! উইন্ডোজের অন স্ক্রিন কিবোর্ডের তুলনায় অনেক সুবিধাজনক মনে হয়েছে।

৪. ইউনিটির অভিজ্ঞতা ধরে রাখা হয়েছে।

৫. পূর্বের ন্যায় থাকছে উপরে প্যানেল ও ডানে ডক(লাঞ্চার), তবে আরো আধুনিক এবং সহজে বামে বা নিচে নামানো যাবে।

৬. আগের চেয়ে বেশি কাস্টমাইজেবল, তবে আমার মনে হয়েছে আরো কাস্টমাইজের সুযোগ থাকা দরকার ছিল।

৭. কার্নেল হিসেবে রয়েছে লিনাক্স কার্নেল ৪.১৩।

৮. ঝামেলাহীনভাবে পুরনো ভার্সন থেকে আপগ্রেড করা যাবে।

৯. আলাদা সয়াপ পার্টিশনের প্রয়োজন নেই। সয়াপ এখন একটি ফাইল হিসেবে থাকবে!

ডাউনলোড

উবুন্টুর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকেই ডাউনলোড করতে পারবেন বিনামূল্যে! এসময় আপনি কোন কন্ট্রিবিউট করার পেজ আসতো পারে। বিনামূল্যে ডাউনলোড করতে চাইলে Not now, take me to the download › বাটনে ক্লিক করলে বিনামূল্যে ডাউনলোড করা যাবে।

About The Author
Rezwanul joy
Comments
Leave a response

You must log in to post a comment