Now Reading
অপেক্ষা



অপেক্ষা

“অপেক্ষা”
 
তোমার সাথে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর ল্যাপটপ,ইন্টারনেট,মোবাইল এগুলা ব্যবহার করা একদম প্রায় ছেড়েই দিয়েছি।এগুলোর সবগুলোই ছিল তোমার সাথে যোগাযোগ করার মাধ্যম।এখন তুমিই নাই এগুলো সব অর্থহীন আমার কাছে।কিন্তু আজকের দিনে না এসে পারিনা।এই দিনটাতে আমি তোমাকে হারিয়েছি তাই ভাবি যদি এই দিনেই তোমাকে আবার ফিরে পাই।
 
আজ আমার বিয়ে।অনেক ব্যস্ততম একটা দিন।তবুও হাজার ব্যস্ততার মধ্যেও আজ একটু ইন্টারনেট ব্যবহার করছি।জানিনা তোমাকে পাব কিনা।কিন্তু প্রতিবার যা করি তাই করছি।তোমার সাথে হওয়া চ্যাট গুলো দেখছি
 
-ঐ তেলচুরা(আমায় ও এইটাই ডাকত)
-কি গুবরে পোকা(আমি এইটাই ডাকতাম)
-খাইবার দিছে আজ?
-দিবেনা কেন?
-দিবে কোন দুঃখে?
-কেন আমি কি করছি?
-তেল চুরি করছ
-চুপ গুবরে পোকা আর গন্ধ ছড়াইয়ো না
-হুরর গরু
-ঐ গরু তুমি আমি কেমনে?
-আমার Doubt আছে তুমি আসলেই মেয়ে কিনা
-হাট এখান থেকে
-ওরে আমার সোনা আর রাগ করেনা
-ঐ মেজাজ খারাপ করবানা
-ওকে sweetheart আর বলবনা
-এখন এই ফাউল কথাগুলো বলছো কেনো?
-এগুলো বললে কি হইছে?এগুলা তো দুষ্টামি
-না এগুলা বলবানা
-না আমি এরকম দুষ্টামি মাঝে মাঝে করব।তোমার কি?
-আমার না তো কার?
-হুহ!
-আচ্ছা ঠিকাছে কইরো
 
এরকম দুষ্টুমি হাসি মান অভিমানের মধ্যে দিয়েই আমরা থাকতাম।আর তুমিই ছিলে আমার জীবনের একমাত্র মানুষ যে আমার সবথেকে কাছের এবং সবথেকে বেশি প্রিয়।অথচ তুমিই সবথেকে বেশী দূরে থাকতে।সীমানার ওপারে।মানে আমার পাশের দেশে।কিন্তু কয়েক মাস এভাবে চলার পর বুঝতে পারলাম আমি তোমাকে ভালবেসে ফেলেছি।আমি জানতাম তুমিও আমাকে ভালবাসো কিন্তু বিভিন্ন ধরনের সংকোচ থাকত মনের ভিতর।তাই সরাসরি বলতে পারতামনা।বিভিন্ন ধরনের রূপক করে বলতাম।হয়ত এটাই আমার জীবনের সবথেকে বড় ভুল ছিল।যদিও তোমার সাথে আমার মিলন অনেকটা অসম্ভবই ছিল।কারন দূরত্বটা অনেক ছিল।তবুও এটাকে আমি আমার জীবনের সবথেকে বড় ভুলই বলি।কারন যদি আমি সরাসরি বলতাম তাহলে তুমি কিছু হলেও করতে।কি করব বলো আমিও বোকা আর তুমি আমাকে বুঝতে পারতেনা।
 
-এই গুবরে পোকা জানো আমি একজনকে ভালবাসি।তার সাথে আমার সারাদিন কথা হয়।খুব বেশীদিন হয়নি তার সাথে পরিচিয় হয়েছে।কেমন জানি একটা আবেশে জড়িয়ে গেছি।কিন্তু তার আর আমার মাঝে অনেক দূরত্ব।
 
এই সহজ কথাগুলো তুমি বুঝতে পারলেনা।এগুলার সবকিছুই তো তোমাকে ঘিরে ছিল।আর তুমি কি করলে….
 
-তেলচুরা আমি তোমাকে খুব ভালবাসি।তাই তোমার সাথে ঐরকম দুষ্টামি করতে চাইতাম।কিন্তু তুমি এখন অন্য কাউকে ভালবাস।তাই কোনো মানেই হয়না তোমাকে আর বিরক্ত করার।তুমি ভাল থেকে।আমি সরে গেলাম চিরতরে।তবে তোমার জন্যই অপেক্ষা করব।যদি জীবনের কোন গলিতে দেখা হয়ে যায়।বিদায়!
 
পরের দিন এই মেসেজটা দিয়ে তুমি আমার সাথে সবরকম যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছিলে।আর সেটা আজকের এইদিন।জানিনা তুমি আসলেই অপেক্ষা করছ কিনা।হয়ত তুমি করবেও।কারন তুমি অনেক মহান।আমি বোধ হয় তোমার মত মহান হতে পারবোনা।আমি এই ৬ বছর করেছি।অনন্ত কাল পর্যন্ত করতাম।কিন্তু বাবা-মা কে কি বলব।তাই পরাজিত হয়ে গেছি।
 
আমি সামিরা এখন বিয়ের পিড়ির দিকে এগিয়ে যাচ্ছি।এখনও একটা আশা করছি।যদি বরটা তুমি হও তাহলে হয়ত কাঁদতাম আর বলতাম আগে বলতে পারলেনা তাহলে একটু ভাল করে সেজে আসতাম।
 
কিন্তু সব আশা পূরন হয়না।তাই আমার অপেক্ষা এখানেই সমাপ্তি হল………….

Comments
Leave a response

You must log in to post a comment