Now Reading
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ;ভর্তিযুদ্ধ এবং ছাত্রজীবনের কিছু অভিজ্ঞতা



জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ;ভর্তিযুদ্ধ এবং ছাত্রজীবনের কিছু অভিজ্ঞতা

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়!যার ডাক নাম জাবি ও জানবিবি,এমন একটি জায়গা যেখানে প্রশান্তির পরশ খুজতে নিয়মিত আনাগোনা দেখা যায় ভার্সিটির প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও দর্শনার্থীদের।ঢাকার অদূরে সাভারে প্রায় ৭০০ একর জায়গা জুড়ে জাবির অবস্থান।প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে অতুলনীয় এই ক্যাম্পাস পড়াশোনার দিক থেকেও দেশের ভেতরে শীর্ষস্থানীয়।জাবিতে ভর্তি হবার তীব্র ইচ্ছা কাজ করতো এইস এস সি লেভেল থেকেই।উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড থাকলেও, হাপিয়ে উঠেছিলাম সায়েন্স পড়ে।ইচ্ছা ছিলো গতবাধা পড়াশোনার বাহিরে কোনো সাবজেক্ট নিয়ে পড়তে।একটা ধারণা কাজ করতো সোশ্যাল সায়েন্স নিয়ে পড়লে সমাজের সাথে নিজের সম্পর্কটাকে ঠিকঠাক বুঝতে পারবো। সেই স্বপ্ন নিয়েই চলছিলো প্রস্তুতি।

৩২ হাজার আবেদনকারী এর ভিতর থেকে ৩৪০ টি সিটের একটি সিটের জন্যে যুদ্ধ যখন শেষ হলো,অবাক হয়ে আবিষ্কার করলাম জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এর নৃবিজ্ঞান বিভাগের একজন ছাত্র হিসেবে নির্বাচিত হয়েছি।সাথে পেয়েছি ৭০০ একরের এক স্বর্গে পাচটি বছর কাটানোর এক অমূল্য সুযোগ।

গতকাল আমার ক্যাম্পাসে ৫০ তম দিনটি পার হয়েছে।৫০ দিনের অভিজ্ঞতা জানতে চান??শুনুন তাহলে;এই ৫০ টি দিনের প্রত্যেকটি দিন ছিলো কোনো না কোনো সাংস্কৃতিক উৎসবে ভরপুর। ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চে বসে উপভোগ করতাম শিল্প সংস্কৃতির অমৃত সূধা।চাদনি রাতের আলো যখন ক্যাম্পাসকে সিক্ত করতো,তখন রাত জেগে সদলবলে উপভোগ করতাম জীবনকে।আর হলের অভিজ্ঞতা?ফোন আর পাওয়ার ব্যাংকের চার্জ শেষ হয়ে যাবে তাও লেখা শেষ হবে না।

নৃবিজ্ঞান বিভাগে পেয়েছি এমন কিছু শিক্ষক,যাদের ক্লাস করতে হলে প্রচুর সৌভাগ্য নিয়ে জন্মাতে হয়।পড়াশোনাও যে উপভোগ্য হতে পারে,তা বুঝতে শিখিয়েছে আমাকে নৃবিজ্ঞান বিভাগ।পেয়েছি কিছু অসাধারণ বন্ধু যারা শিখিয়েছে ক্লাসের বাহিরের অনেক কিছু।ঘুরে বেড়িয়েছি ইচ্ছেমতো,কোনো বাধা ছাড়া।মানিকগঞ্জের জমিদার বাড়ি থেকে পুরান ঢাকা,পুরো ডিপার্টমেন্ট ঘুরেছি এক সাথে।বন্ধুদের পরে আরেক পাওয়া হলো সিনিয়র বড় ভাইরা।এমনও বড় ভাই দেখেছি যিনি সারাদিন রাজনীতি নিয়ে ব্যস্ত,আবার আরেক বড় ভাই সকাল ৮ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত লাইব্রেরিতে পড়াশোনা করে ক্লান্ত হয়ে হলে ফেরেন।ফিউচার ক্যারিয়ার নিয়ে সিনিয়র ভাইদের সিরিয়াসনেস বাধ্য করে নিজেকেও আগামীর জন্যে প্রস্তুত করতে। বিভাগের বড় ভাইদের দেখে শিখছি কিভাবে একাডেমিক পড়াশোনা ও এক্সট্রাকারিকুলার কাজের সাথে নিজেকে যুক্ত রাখা যায়।প্রতিষ্ঠিত সিনিয়র ভাইরা অনুপ্রেরণা জুগিয়ে যান দূর থেকে।তাদের সাফল্য দেখে স্বপ্ন দেখি বিসিএস,মাল্টিন্যাশনালে চাকরি করবার।ক্যাম্পাসের মুক্ত জ্ঞানচর্চার পরিবেশ সাহায্য করে যা খুশি তা শিখতে।

জীবনের বড় পাওয়া গুলোর ভিতরে একটি হলো জাবির ছাত্র হতে পারা।অসাধারণ ক্যাম্পাস লাইফ প্রাপ্তির শুকরিয়ায় নত হই আল্লাহর প্রতি।স্বপ্ন দেখি জীবনে সুপ্রতিষ্ঠিত হয়ে নিজেকে,পরিবারকে এবং ভার্সিটি কে গর্বিত করবার।

About The Author
sagoranthro
Crazy Anthropology student who loves being creative. Highly curious about Mankind and It's aspects
1 Comments
Leave a response

You must log in to post a comment