Now Reading
রেপিস্টদের পরিচয় রেপিস্ট ভিন্ন কিছু নয়



রেপিস্টদের পরিচয় রেপিস্ট ভিন্ন কিছু নয়

পৃথিবীতে এক শ্রেণীর প্রানী আছে,যারা আকার আকৃতিতে হুবুহু মানুষের সাথে সাদৃশ্যপূর্ন এবং মানুষের ঔরষজাত ও গর্ভজাত হওয়া স্বত্তেও বিবেকের চোখে ও সমাজের চোখে তারা মানুষ না।তাদের একটাই পরিচয়।আর সেই পরিচয়টি হলো,তারা রেপিস্ট।আর রেপিস্টরা কখনোই মানুষের সাথে কোনো সামাজিক বন্ধনে আবদ্ধ হতে পারেনা।রেপিস্টদের কোনো মা বোন নেই এবং রেপিস্টরা কারো বাবা বা ভাই হতে পারেনা।

রেপিস্টরা এতটাই জঘন্য যে,কোন পশুর সাথেও যদি তাদের তুলনা করা হয় তবে সেই পশুটির প্রতিও অবিচার করা হবে।কেননা পশু যতই হিংস্র এবং বিবেকহীন হোক না কেন,এদের ভিতরও মমত্ববোধ থাকে যা ঐ রেপিস্টদের ভিতরে নেই।আর তাই যদি থাকতো তবে তারা কখনোই রেপিস্ট হতে পারতো না।কারণ একটি মেয়ে যখন রেইপের শিকার হয় তখন সে দূর্ঘটনাটা ঘটার শেষ সেকেন্ডেও কাতর গলায় অনুনয় বিনয় করে থাকে যা দেখেও রেপিস্টদের মন গলাতো দূরে থাক এতটুকু কাঁপেনা।উল্টো তারা নির্দ্বিধায় কর্মটা সম্পাদন করে হাসতে হাসতে চলে যায়।শুধু এখানেই তারা ক্ষান্ত দেয়না।কখনো কখনো প্রমান নির্মূলের নিমিত্তে তারা ভিকটিমকে খুন করে ফেলে হাসিমুখে।যার জলন্ত উদাহরন রুপা।

আর যদিও ধর্ষিতা বেঁচে থাকে তাহলে তারা তাকে জীবন্ত লাশের মতো করেই বাচিয়ে রাখে।ধর্ষিতা মেয়েটি তাদের হুমকির মুখে ধর্ষনেট বিচার চাইতে সাহস পায়না,তাদের বিরুদ্ধে মুখ তুলে কথা বলার সাহস পায়না।আর যদি কোন ধর্ষিতা তাদের বিরুদ্ধে নালিশনামা নিয়ে আদালত অথবা ইউনিয়ন পরিষদের দ্বারস্থ হয়ও তবুও ফলাফল বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ফলাফল ধর্ষিতার বিন্দুমাত্র স্বান্তনা স্বরুপ কিংবা বিপক্ষে যাওয়া ব্যাতীত ভিন্ন কিছু হয়না।আর এর প্রতিদান হিসেবে ধর্ষকদের দ্বারা তার ও তার গোটা পরিবারের জীবন হয়ে ওঠে নরক স্বরুপ।যার হাত থেকে নিস্তার পেতে গোটা পরিবারকে বেছে নিতে হয় আত্মহত্যার পথ।আবার কখনো কখনো পুনরায় রেইপ হতেও খুন হতে হয় রেপিস্টগুলোর দ্বারা। যার জলন্ত উদাহরন বিউটি।

এই হচ্ছে রেপিষ্টদের বৈশিষ্ট,যে বৈশিষ্ট কোনো মানুষেরও নেই এমনকি কোনো পশুরও নেই।সেজন্যই এদের পরিচয় একটাই।আর তা হলো এরা রেপিষ্ট।এর জগতের সবচেয়ে ঘৃনিত,নিকৃষ্ট এবং জঘন্যতম প্রানী।
আসুন আমরা কোন রেপিষ্টের নাম উচ্চারন করতে গেলে উচ্চারনের আগে তাদের উদ্দেশ্যে একবার থুতু ফেলি,উচ্চারনের পরে তাদের উদ্দেশ্যে আরও একবার থুতু ফেলি।

 

[পোস্টটি সামহোয়ার ইন ব্লগ থেকে নেয়া হয়েছে]

About The Author
rafiuzzaman
i am a writer
Comments
Leave a response

You must log in to post a comment