আলোচনায় ব্রেকিং নিউজ কারেন্ট ইস্যু

মেঘ না চাইতেই বৃষ্টি!

সংস্কার চেয়ে আন্দোলন করা শিক্ষার্থীদের উপহার স্বরূপ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের কোটা পদ্ধতিকেই বাতিল ঘোষণা করে দিলেন। কোটা সংস্কার  নিয়ে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের প্রেক্ষিতে জাহাঙ্গীর কবির নানক জাতীয় সংসদে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা যে আন্দোলন করছে সে একই বিষয়ে সরকার পূর্ব হতেই গঠনমূলক কাজ করে আসছে।  ১৯৭২সাল হতে চালু হওয়া এই কোটা পদ্ধতি ধাপে ধাপে তারা সংস্কার করেছেন। ছাত্রদের অধিকার ও সুযোগ-সুবিধার ব্যাপারে তার সরকার সবসময় সচেতন উল্ল্যেখ করে তিনি আরো বলেছেন- আন্দোলনকারীরা যে দাবী নিয়ে আন্দোলন করছেন তা কিন্তু বহু আগেই সরকার নিজ থেকে পূরণ করে দিয়েছে। তারা না বুজেই রাস্তায় নেমেছে এবং তাদের দাবীও স্পষ্ট নয়। বিগত বিসিএস পরীক্ষাগুলোতে  মেধার ভিত্তিতেই অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি উল্ল্যেখ করেন যারাই বিসিএস পরীক্ষা দেন তারা প্রত্যেকেই মেধাবী আর কোটাভোগী হলেও তাকে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে আসতে হয়। যেহেতু ছাত্র-ছাত্রীরা চাইছে না তবে এ কোটা পদ্ধতির আর থাকবেনা। পিছিয়ে পরা জনগোষ্ঠী এবং মুক্তিযোদ্ধাদের সরকার অন্যভাবে চাকরির ব্যাবস্থা করবে। সমাজের কোন শ্রেণী যেন রাষ্ট্রের সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত না হয় সে ব্যাপারেও সচেষ্ট আছে সরকার।

তিনি বলেছেন- শিক্ষাই দারিদ্র বিমোচনের মুল হাতিয়ার তাই শিক্ষার উপরই গুরুত্ব বেশি দিয়েছে তার সরকার। সে লক্ষ্যেই শিক্ষার বহুমুখী ট্রেনিং এবং দেশের বিভিন্ন জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তুলে প্রশিক্ষিত করার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের নিশ্চিত কর্মক্ষেত্র প্রসারে উদ্দ্যেগ নিয়েছে সরকার। উচ্চ শিক্ষা লাভে শিক্ষা সহায়তা ট্রাষ্ট ফান্ড গঠন করে গরীব ও মেধাবীদের বৃত্তি দেয়া এবং প্রাইমারী থেকে মাধ্যমিক পর্যন্ত বিনা পয়াসায় বই দিয়ে ছেলে মেয়েদের সহযোগিতা করছে কেবল লেখা পড়া শিখে মানুষের মত মানুষ হয়ে যেন তারা দেশ বিনির্মাণে ভূমিকা রাখতে পারে। কোটা সংস্কারের বিষয়ে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন- হটাৎ শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া বন্ধ করে দিয়ে সারাদেশে রাস্তায় নেমে এল কেবল ইন্টারনেটে ছড়ানো মিথ্যে গুজবে, এমনকি যেভাবে মেয়েরা রাতের বেলায় হল ছেড়ে বেড়িয়ে এল তাতে তাদের নিরাপত্তা বিগ্নিত হলে এর দায় দায়িত্ব কে নিত? এই ইন্টারনেট তাঁর বদান্যতায় সবার হাতে পৌঁছেছে মনে করিয়ে দিয়ে  সকলকে তার গঠন মুলক ব্যাবহারে আহ্বান জানান তিনি।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বাসভবনে হামলার ক্ষোভ এবং  নিন্দা জানিয়ে বলেন- কোন ছাত্র এমন জঘন্য ঘটনা ঘটাতে পারেনা। যে বা যারা এই পরিকল্পিত ঘটনা ঘটিয়েছে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হওয়ার যোগ্যতা রাখেনা। তিনি দৃঢ় কণ্ঠে উচ্চারণ করেন- যারা এই হামলা করেছে তাদের খেসারত দিতেই হবে, ইতিমধ্যেই  এ বিষয়ে দেশের গোয়েন্দাবাহিনী তদন্তে মাঠে নেমেছে। ভিসির বাড়ীর মালামাল কারা লুট করেছে এবং কারা হামলা করেছে তাদের শনাক্ত করতে ছাত্র-শিক্ষকদের সহযোগিতা চান প্রধানমন্ত্রী।

এখনো প্রধানমন্ত্রী হওয়া সত্ত্বেও তাঁর শিক্ষককে সম্মান করতে তিনি ভুলেন না উল্ল্যেখ করে বলেন- শিক্ষক এবং গুরু জনকে অপমান করে হয়ত ডিগ্রী নেয়া যায়, কিন্তু প্রকৃত শিক্ষিত হওয়া যায় না। প্রত্যেকের উচিৎ শালীনতা বজায় রেখে নিয়ম এবং আইন মান্য করা। একটা রাষ্ট্র কিছু নীতি মালার ভিত্তিতে চলে  আর সেভাবেই সরকার পরিচালিত হয়। তাঁর সরকার শিক্ষায় সেমিস্টার ও গ্রেডিং পদ্ধতির প্রচলন করে দেশের বাইরের সাথে সামঞ্জস্য রেখে শিক্ষার বৈষম্য দূরীকরণ করে মান বাড়িয়েছেন বলেও উল্ল্যেখ করেন। তিনি উল্ল্যেখ করেন- ইতিমধ্যেই মন্ত্রী পরিষদের সচিবকে দায়িত্ব দিয়েছেন যেন এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সকলকে নিয়ে আলাপ  আলোচনা করে কিভাবে যৌক্তিক পর্যায়ে পৌঁছানো যায় তা খতিয়ে দেখতে। সংসদে তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন- তাঁর প্রেরিত প্রতিনিধির সাথে আলাপ ও সমঝোতার পর আন্দোলনকারীরা সুনির্দিষ্ট তারিখ দেয়ার পরও কেন আবার আন্দোলন শুরু করে রাস্তা ঘাট বন্ধ করা হল, কেনই বা সাধারণ মানুষকে কষ্ট দিতে হবে? মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, যা হয়েছে অনেক হয়েছে, এবার বাড়ি ফিরে যাও। কোটা থাকলেই সংস্কারের প্রশ্ন উঠবে। সাধারণ মানুষের বারবার এই কষ্ট বন্ধ করতে এবং বারবার এই আন্দোলন ঝামেলা মেটানোর জন্য কোটা পদ্ধতি বাতিল হলেই উত্তম মনে করেন বলে সংসদে জানিয়েছেন তিনি।

একই রকম আরো কিছু ফুটপ্রিন্ট

বাংলাদেশের নারীরা কতটা নিরাপদ?

Ferdous Sagar zFs

সোফিয়াকে প্রশ্ন করতে গিয়ে বাংলাদেশের ইজ্জত খেয়ে ফেলল এক হোস্ট

Footprint Admin

দেশী রেডিও চ্যানেলের পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশী এক ভন্ড তান্ত্রিকের জঘন্যতম ভন্ডামির প্রমান সহ ধরা খাওয়া!

Footprint Admin

Login

Do not have an account ? Register here
X

Register

%d bloggers like this: