কারেন্ট ইস্যু

কয়লা যেভাবে গেল..!

কয়লা নিয়ে ময়লা ঘাঁটাঘাঁটি কম হচ্ছেনা তারপরও আসল রহস্য উন্মোচিত হচ্ছেনা। এদিকে আবার শোনা যাচ্ছে, যে পরিমাণ কয়লা গায়েব হয়েছে পরিমাণে নাকি তা আরো বেশি। দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে প্রায় দেড় লাখ টন কয়লা উধাও হয়ে যাওয়ার খবরে সরগরম গোটা দেশ। এদিকে সরকারের সংশ্লিষ্ট মহলও দারুণ বিপাকে। তাদের ভাষ্য কয়লা উত্তোলন প্রক্রিয়া সাময়িক বন্ধ হওয়াতে কয়লা গায়েব হওয়ার বিষয়টি নজরে আসে। প্রক্রিয়াটি নাকি বেশ কয়েক বছরের ব্যবধানেই কর্তৃপক্ষের অজ্ঞাতসারেই সম্পন্ন হয়েছে। এদিকে সংশ্নিষ্টদের বরাত দিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম বলছে, প্রকৃত দুর্নীতির মাত্রা নাকি আরও বেশি। ভিন্ন কৌশলে আরও লক্ষাধিক টন কয়লা অবৈধভাবে বিক্রি করা হয়েছে। তার মানে দাড়ায়, যে পরিমাণ কয়লার কথা বলা হচ্ছে আদতে তা দ্বিগুণ পরিমাণ গায়েব হয়েছে। ভাবছেন কিভাবে? কয়লা খনির ভূগর্ভে জমে থাকা পানি পাম্পের সাহায্যে অনবরত খনির বাইরে নিস্কাশন করা হয়। আর এই পানি এসে জমা হয় কয়লা খনির ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টে যেখানে কয়লার ডাস্ট (ক্ষুদ্রাকৃতির কয়লা) জমা হতে থাকে। এই ক্ষুদ্রাকৃতির কয়লা পুনরায় শুকিয়ে জমা করা হয় কোল ইয়ার্ডে, যার কোনো প্রকৃত হিসাব সংরক্ষণ করা হয় না। ওয়াটার ট্রিটমেন্টে বছরে প্রায় ১৬ থেকে ২০ হাজার টন কয়লা উৎপাদন করা হয় যা কাগজে কলমে হিসেব রাখা হয়না। গত ৭-৮ বছর ধরে ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট থেকে ডাস্ট কয়লা জমা করা হচ্ছে যার পরিমাণ দাড়ায় সোয়া লাখ থেকে দেড় লাখ টন।  এই হিসাব বহির্ভূত কয়লা কোল ইয়ার্ড থেকে আবার অবৈধভাবে বিক্রি করে দেওয়া হয় খনির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের যোগসাজশে। সুতরাং ভাবুন কি ভয়াবহ অবস্থা এই খাতে…!

তবে আশার কথা হচ্ছে, বিষয়টির সমাধানে সরকারের স্বদিচ্ছার অভাব নেই। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নিজেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে দ্রুত সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন। বরখাস্ত হয়েছেন খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী হাবিব উদ্দিন আহমেদ, বদলী করা হয়েছে কোম্পানি সচিব ও মহাব্যবস্থাপক আবুল কাশেম প্রধানীয়াকে ও সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন আরো দুই কর্মকর্তা। এ ঘটনায় ইতিমধ্যে এই ৪ কর্মকর্তাসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট দফতর, পেট্রোবাংলা ও অন্যান্য সংস্থার সমন্বয়ে গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটি। এ নিয়ে একটি ভিডিও দেখুন নিচের লিংকে…

একই রকম আরো কিছু ফুটপ্রিন্ট

বিভক্ত কোটা সংস্কার আন্দোলন!

MP Comrade

প্রকাশ্যে মূত্রত্যাগ করা কিংবা ঘুষ খাওয়া অামাদের বিড়াল প্রজাতির কাছে অপরাধ না তবে প্রেমিকাকে অালিঙ্গন করা অপরাধ!

rafiuzzaman

ফুটপ্রিন্ট-বাংলাদেশীজমঃ বাংলাদেশের প্রথম ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট !!

Ferdous Sagar zFs

Login

Do not have an account ? Register here
X

Register

%d bloggers like this: