Now Reading
পুনঃনির্বাচনের দাবির সাথে সহমত পোষন করলেন নুরুল হক নুর



পুনঃনির্বাচনের দাবির সাথে সহমত পোষন করলেন নুরুল হক নুর

বাম ছাত্রজোটের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী বলেন আগামী তিন দিনের মধ্যে যদি ডাকসু নির্বাচন বাতিল করে পুনঃ তফসিল দেওয়া না হয় তাহলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অচল করে দিতে বাধ্য হব। সেইসঙ্গে এই নির্বাচন পরিচালনার সঙ্গে যাঁরা যুক্ত ছিলেন, তাদের প্রত্যেককে পদত্যাগ করতে হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন এবং সেইসাথে মামলা প্রত্যাহর করার কথাও বলেন তিনি। যদি এসব করা না হয় তাহলে আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অচল করে দিতে বাধ্য হব বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরব রক্ষার্থে বলে মন্তব্য করলেন তিনি।
আজ বুধবার দুপুরে ছাত্রলীগ বাদে পুননির্বাচন চেয়ে উপাচার্যের কার্যালয়ের কাছে স্মারকলিপি নিয় যায় ভোট বর্জনকারী ডাকসুর পাঁচটি প্যানেল। স্মারকলিপি প্রদানের পর উপাচার্যের প্রতিক্রিয়া নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে কথা বলেন লিটন নন্দী।

লিটন নন্দী বলেন, ‘আমরা উপাচার্যকে বলেছি। আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে, সেগুলো প্রত্যাহার করতে হবে। যারা বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্থিতিশীল পরিবেশ করে, তাদের ছাড় দেওয়া হবে না। বরং তাদের বিরুদ্ধে ক্রিমিনাল অ্যাক্টের মামলা দেওয়া হবে। আমরা বলেছি, বিশ্ববিদ্যালয়ে এত দিন যারা ক্রিমিনাল অ্যাক্ট করলেন, তাঁদের বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তিনি কোনো উত্তর দেননি।’
আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা শেষে সকলের কর্মপ্রয়াস, আন্তরিকতা, সময় শ্রম সেগুলোকে নস্যাৎ করার এখতিয়ার, সেটি আমার নেই বলে অপর এক সংবাদ সম্মেলনে মন্তব্য করেন পুনর্নির্বাচনের বিষয়ে উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান। প্রত্যেকটি প্রক্রিয়া, প্রত্যেকটি কার্যক্রম রীতিনীতি মেনে হবে বলে জানান তিনি।’
এর আগে দুপুর ১২টা থেকে গতকালের ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এর পরে তাঁরা স্মারকলিপি নিয়ে উপাচার্যের কার্যালয়ে যান।
গতকাল মঙ্গলবার ডাকসু নির্বাচনের পরদিন দিনটি ছিল নাটকীয়তায় ভরা। গত সোমবার গভীর রাতে ক্ষোভে ফেটে পড়েছিলেন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা, যখন সহসভাপতি (ভিপি) পদে বিজয়ী হিসেবে নুরুল হকের নাম ঘোষণা করা হয়। নুরুলকে ‘শিবির’ আখ্যা দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি তোলেন তাঁরা। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ক্যাম্পাসে এলে তাঁকে ধাওয়াও দেওয়া হয়। এরপর হঠাৎ এসে নুরুলকে বুকে জড়িয়ে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী। এবং তাৎক্ষনিক পরিস্থিতি পাল্টে যায়।
ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের যে ঘোষণা দিয়েছিলাম, তা থেকে আমরা সরে এসেছি বলে জানান নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক। কিন্ত অন্য সংগঠন তাঁর দেওয়া এই ঘোষণা মেনে না নেওয়াতে তোপের মুখে পড়লেন নুর এবং রাতে অন্যান্য ছাত্রসংগঠনের সঙ্গে সহমত পোষণ করে পুননির্বাচন চান বলে ঘোষণা দেন তিনি।

About The Author
Md Meheraj
Md Meheraj
Comments
Leave a response

You must log in to post a comment