Now Reading
বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচ হলেও পাকিস্তানকে বয়কটের পক্ষে গাম্ভীর



বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচ হলেও পাকিস্তানকে বয়কটের পক্ষে গাম্ভীর

ভারত ও পাকিস্তান প্রতিবেশী দেশ হলেও, এই দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক কখনই ভালো ছিলনা। ভারত পাকিস্থান সীমান্ত এলাকায় প্রায় সবসময় বিভিন্ন সমস্যা থাকেই। কাশ্মীরের পুলওয়ামায় কিছুদিন আগে জঙ্গি হামলায় ৪০ ভারতীয় জওয়ান নিহত হয়। এরপর থেকেই দুই প্রতিবেশী দেশের সম্পর্কে নতুন করে চিড় ধরে। সীমান্তে যুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টির পাশাপাশি ভারতের সাবেক ক্রিকেটাররা বিশ্বকাপের পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কটের দাবি তুলেছিলেন। গম্ভীর নিজেও পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কটের পক্ষে। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘শর্তসাপেক্ষে নিষেধাজ্ঞা বলে কিছু নেই। হয় পাকিস্তান বয়কট করুন কিংবা সবকিছুতে অংশ নিন। পুলওয়ামায় যা ঘটেছে তা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’
গৌতম গম্ভীর খেলোয়াড়ি ক্যারিয়ারে যেমন সোজা ব্যাট খেলেছেন, তেমনি সোজা কথাটা সোজা করে বলতেই ভালোবাসেন। পাকিস্তান বিরোধিতার প্রশ্নে তাঁর সাফ কথা, শর্তসাপেক্ষে নিষিদ্ধ বলে কিছু নেই। হয় আমরা পাকিস্তানের বিপক্ষে সবকিছু বয়কট করব নতুবা সবকিছুতেই অংশ নেব। এবং এই সিদ্ধান্ত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকেই (বিসিসিআই) নিতে হবে বলে মনে করেন দেশটির সাবেক এ ওপেনার।
ইংল্যান্ডে ৩০ মে শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ। গ্রুপপর্বে ১৬ জুন পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে ভারত। এই সূচি অনুযায়ী-ই যে ম্যাচ মাঠে গড়াবে তা আগেই স্পষ্ট করে দিয়েছে আইসিসি। গম্ভীর তা জেনেই যুক্তি দিলেন, ‘আইসিসির টুর্নামেন্টে বয়কট করা যে কঠিন হবে তা আমিও জানি। কিন্তু আমরা এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলা বন্ধ করতে পারি।’ অবশ্য বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কটের ব্যাপারে ইংল্যান্ডের উদাহরণও দিয়েছেন গম্ভীর, ‘২০০৩ সালে জিম্বাবুয়েতে খেলতে যায়নি ইংল্যান্ড। বিসিসিআই যদি পাকিস্তানের বিপক্ষে না খেলার সিদ্ধান্ত নেয় তাহলে ২ পয়েন্ট ছেড়ে দেওয়ার ব্যাপারে সবার মানসিক প্রস্তুতি থাকা উচিত। আমরা হয়তো সেমিফাইনালে নাও উঠতে পারি। এ জন্য ভারতীয় দলকে দোষ দেওয়া উচিত হবে না সংবাদমাধ্যমের।’
দুই দল ফাইনালে উঠলে কী হবে? তখন কি ম্যাচ বর্জন করা উচিত হবে বিরাট কোহলিদের? এই প্রশ্নের জবাবেও অনড় থেকে গম্ভীর বললেন, ফাইনালে উঠলেও ম্যাচ বয়কট করা উচিত। ‘দুই পয়েন্ট গুরুত্বপূর্ণ না, দেশ গুরুত্বপূর্ণ। যে ৪০ জওয়ান প্রাণ হারিয়েছে তাঁদের চেয়ে একটা ক্রিকেট ম্যাচ বেশি গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে না। আমরা ফাইনাল ছেড়ে দিলে তা মেনে নিতে দেশের প্রস্তুত থাকা উচিত।’

About The Author
MD BILLAL HOSSAIN
MD BILLAL HOSSAIN
Comments
Leave a response

You must log in to post a comment