Now Reading
নিষেধাজ্ঞা চাইল দুদক, জাহালমকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ হবেনা



নিষেধাজ্ঞা চাইল দুদক, জাহালমকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ হবেনা

আজ মঙ্গলবার আদালতের অনুমতি নিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় বিনা দোষে কারাভোগ করা জাহালমকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছে দুদক।
এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে কাল বুধবার শুনানির জন্য আবেদনটি কার্যতালিকায় আসবে।

দুদকের কৌঁসুলি খুরশীদ আলম খান এই তথ্য জানিয়েছেন।

গতকাল সোমবার এ বিষয়ে খুরশীদ আলম খান বলেন, প্রথম আলো ও মানবজমিন অনলাইনে জাহালমের জীবনের গল্প নিয়ে সিনেমা বানানো হবে বলে খবর প্রকাশিত হয়। বিষয়টি কমিশনের নজরে আসে। কমিশন ১৪ মার্চ সিদ্ধান্ত নেয়, ওই সিনেমা নির্মাণের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আবেদন করা হবে। সে অনুসারে প্রতিবেদন দুটি যুক্ত করে নিষেধাজ্ঞার আবেদন প্রস্তুত করা হয়।
খুরশীদ আলম খান বলেন, আগে হাইকোর্ট জাহালমের বিষয়ে স্বতঃপ্রণোদিত রুল দিয়েছিলেন। রুলে দুদক বিবাদী হিসেবে আছে। আদালতের অনুমতি নিয়ে দুদক হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় জাহালমকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আবেদন দায়ের করেছে। ‘জাহালমকে নিয়ে সিনেমা, তিনিই জানেন না!’ শিরোনামে গত ১৩ মার্চ প্রথম আলোয় এবং একই দিন ‘জাহালমকে নিয়ে চলচ্চিত্র, অভিনয় করবেন রিজু’ শিরোনামে মানবজমিনে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

খুরশীদ আলম খান বলেন, বিচারিক আদালতে সোনালী ব্যাংকের চেক জালিয়াতিসংক্রান্ত ৩৩টি মামলা এবং জাহালমের বিষয়ে উচ্চ আদালতে থাকা স্বতঃপ্রণোদিত রুলের নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত চলচ্চিত্র নির্মাণে নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হয়েছে দুদকের আইনজীবী বলেন, জাহালমের বিষয়টি এখনো আদালতে বিচারাধীন। এমনকি ৬ মার্চ হাইকোর্ট মৌখিক নির্দেশে বলেছেন, আদালতের চলমান কার্যবিবরণী ছাড়া জাহালমের বিষয়ে গণমাধ্যমে কিছু লেখা বা বলা যাবে না। বিচারাধীন বিষয়ে সিনেমা ও নাটক নির্মাণ করা যায় না। এসব আদালত অবমাননার পর্যায়ে পড়ে। এসব যুক্তিতে নিষেধাজ্ঞার আবেদনটি করা হয়। এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সোনালী ব্যাংকের সাড়ে ১৮ কোটি টাকা ঋণ জালিয়াতি মামলার আসামি আবু সালেক নামের একজন। কিন্তু জাহালমকে আবু সালেক হিসেবে চিহ্নিত করে ২৬টি মামলায় আসামি করা হয়। প্রায় তিন বছর কারাভোগ করে হাইকোর্টের নির্দেশে গত ৩ ফেব্রুয়ারি তিনি মুক্তি পান। তাঁর কষ্টের কাহিনি নিয়ে সিনেমা নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মারিয়া তুষার।

About The Author
Sharmin Boby
Sharmin Boby
Comments
Leave a response

You must log in to post a comment