Now Reading
জার্মানির অভ্যন্তরীণ বিষয়ে সমালোচনার জন্য মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবি



জার্মানির অভ্যন্তরীণ বিষয়ে সমালোচনার জন্য মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবি

জার্মানিতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সাম্প্রতিক এক বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন জার্মানির এক ঊর্ধ্বতন সাংসদ৷ তিনি ঐ রাষ্ট্রদূতকে তাঁর ‘দায়িত্ব পুনর্বিবেচনা’ করার পরামর্শ দিয়েছেন৷ জার্মানির অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বারবার নাক গলানোর কারণে জার্মানিতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রিচার্ড গ্রেনেলকে বহিষ্কারের দাবি উঠেছে। জার্মানির লিবারেল ডেমোক্রেটিক দলের নেতা ভলফগ্যাং কিউবিকি মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের এই দাবি তুলেছেন।

বিভিন্ন রকম অকূটনৈতিক আচরণের জন্য মার্কিন রাষ্ট্রদূত বিভিন্ন সময় সমালোচিত হয়েছেন। জার্মানিতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রিচার্ড গ্রেনেল সম্প্রতি জার্মানির অভ্যন্তরীণ জাতীয় বাজেট নিয়েও সমালোচনা করেছেন।

জার্মানির লিবারেল ডেমোক্রেটিক দলের নেতা ভলফগ্যাং কিউবিকি জানান, জার্মানির মতো একটি সার্বভৌম রাষ্ট্রে একজন কূটনীতিকের এই ধরনের আচরণ কোনো সময় মেনে নেওয়া যায় না। কিউবিকি আরও বলেন, মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে অবাঞ্ছিত ও বহিষ্কারে বিষয়ে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাশকের সঙ্গে কথা বলবেন তিনি। জার্মান সংসদে সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক দলের সংসদীয় প্রধান ক্যাস্টনার স্নাইডারও মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে একজন অযোগ্য কূটনীতিক এবং তাঁর বিরক্তকর বক্তব্য দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কে বিরূপ প্রভাব পড়বে বলে জানিয়েছেন।

জার্মানিতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রিচার্ড গ্রেনেল রাশিয়ার সঙ্গে ইউরোপের নর্থ স্ট্রিম গ্যাসলাইন নিয়ে অযাচিত কথাবার্তা ও ইরানের সঙ্গে ব্যবসারত জার্মান প্রতিষ্ঠানগুলোকে বন্ধ করবার জন্য চিঠি লিখে সমালোচনার পাত্র হয়েছিলেন। আর তাই জার্মানির বামপন্থি দলগুলো গ্রেনেলকে বহিষ্কারের আহ্বান জানিয়েছে৷

About The Author
salma akter
Comments
Leave a response

You must log in to post a comment