Now Reading
পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলও খেল ধাক্কা



পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলও খেল ধাক্কা

ব্রাজিল আর্জেন্টিনার মত হেরে যায়নি। কিন্তু ব্রাজিলের ফলাফলটা সুখকর হয়নি। র‌্যাঙ্কিংয়ে ৭৩ ধাপের ব্যবধান—এমন দলের বিপক্ষে জয় না পেলে ফলটা গৌরবের হয় কীভাবে? হোক না প্রীতি ম্যাচ, পর্তুগালে কাল মাথা নিচু করে মাঠ ছাড়তে হয়েছে কুতিনহো-জেসুসদের। র‌্যাঙ্কিংয়ে ৩য় আর ৭৬তম দলের মধ্যে লড়াইয়ে অনুমিত ফলটা যে তাঁরা এনে দিতে পারেননি। পুঁচকে পানামার সঙ্গে ১-১ গোলে আটকে গেছে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল।
আর্জেন্টিনার তবু সান্ত্বনা, তাঁরা পানামার চেয়ে শ্রেয়তর দলের কাছে হেরেছে। ভেনেজুয়েলা ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ৩২তম দল। অন্যদিকে পানামা ৭৬তম, আর সবশেষ ১১ ম্যাচে জয়বঞ্চিত। এমন দলের বিপক্ষে ব্রাজিলের জয়বঞ্চিত থাকা আর্জেন্টাইন সমর্থকদের জন্য এক অর্থে হারের ক্ষত মোচনের দাওয়াই। আর্জেন্টিনা যে দলের বিপক্ষে হেরেছে, তাঁদের চেয়ে বাজে দলের বিপক্ষেও যে ব্রাজিল জিততে পারল না।
ব্রাজিলের ভক্তরা হয়তো ভেবেছিলেন, পানামার মতো দলের বিপক্ষে জিততে নেইমার না থাকলেও তো চলে! পিএসজি তারকা চোটের কারণে এখন মাঠের বাইরে। তবে জাতীয় দল সতীর্থদের খেলা দেখতে গ্যালারিতে ছিলেন। রীতিমতো হতাশই হয়েছেন। তাঁর ১০ নম্বর জার্সি পরে খেলা মিডফিল্ডার লুকাস পাকুয়েতার গোলে ৩২ মিনিটে এগিয়ে গিয়েছিল ব্রাজিল। মিরান্ডা-ফ্যাগনার-কাসেমিরোদের রক্ষণ এই এগিয়ে যাওয়া ধরে রাখতে পেরেছে মাত্র চার মিনিট। ৩৬ মিনিটের মাথায় গোল করে পানামা ঐতিহাসিক ফলের সুবাস পাইয়ে দেন অ্যাডলফো মাচাদো।
কাসেমিরো, ফ্যাগনার, রিচার্লিসন, রবার্তো ফিরমিনো, কুতিনহোদের নিয়ে শক্তিশালী একাদশই মাঠে নামিয়েছিলেন ব্রাজিল কোচ তিতে। গোটা ম্যাচে প্রত্যাশামতো পানামার চেয়ে ভালো খেলেছে তাঁর শিষ্যরা। দ্বিতীয়ার্ধে দুবার পানামার গোলপোস্ট কাঁপিয়েছেন রিচার্লিসন ও কাসেমিরো। কিন্তু পাকুয়েতা ছাড়া আর কেউ জাল খুঁজে পাননি। আর তাতে নেইমারের অনুপস্থিতিতে ব্রাজিলের গোল করার লোকের অভাবটা আবারও চোখে বিঁধেছে সমর্থকদের।
পরিসংখ্যান বলছে, এই পানামার বিপক্ষেই শেষ চারবারের মুখোমুখিতে ব্রাজিলের জয়ের ব্যবধান ছিল যথাক্রমে ৫-০, ৫-০, ৪-০, ২-০। চার ম্যাচে ১৬ গোল। এবার সেই দলটাকেই কিনা ব্রাজিল হারাতে পারল না! উল্টো, র‌্যাঙ্কিংয়ে তৃতীয় দলটির বিপক্ষে নিজেদের ইতিহাসে প্রথম ড্র তুলে নিল মধ্য আমেরিকার দেশটি।
কোপা আমেরিকার প্রস্তুতি হিসেবে প্রীতি ম্যাচে পাওয়া ফলটা ব্রাজিল কোচ তিতের জন্য সুখকর হলো না। ম্যাচ শেষে তাঁর ভাষ্য, ‘খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স দুর্দান্ত না হলেও একেবারে খারাপও ছিল না। কোপা আমেরিকায় আমাদের আরও সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’ ১৪ জুন থেকে ব্রাজিলে শুরু হচ্ছে কোপা আমেরিকা।

About The Author
MD BILLAL HOSSAIN
MD BILLAL HOSSAIN
Comments
Leave a response

You must log in to post a comment