শিশু নিরাপত্তা ও ভবিষ্যত

শিশুদের ‘অনলাইন ওয়াইল্ড ওয়েস্ট’ থেকে সুরক্ষিত থাকতে হবে

মানসিক স্বাস্থ্যের উপর সোশ্যাল মিডিয়ার প্রভাব সম্পর্কে একটি নতুন রিপোর্টে সংসদ সদস্য বলেন, সামাজিক মিডিয়া সংস্থাগুলো শিশুদের সুরক্ষার জন্য কঠোর নিয়ন্ত্রণের প্রয়োজন এবং তাদের ব্যবহারকারীদের কাছে কোম্পানির যত্নের সাথে দায়িত্বে থাকা উচিত।
সোশ্যাল মিডিয়া অ্যান্ড ইয়ং পিপলস মানসিক স্বাস্থ্য ও কল্যাণ বিষয়ে সর্বদলীয় সংসদীয় দল (এপিজি) জানিয়েছে, ফেসবুক, টুইটার এবং ইনস্টগ্রামের মতো প্ল্যাটফর্মগুলো অফকমের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হওয়া উচিত এবং আচরণবিধির সংবিধি মেনে চলতে বাধ্য করা উচিত।


অক্টোবর এর মধ্যে যেই কোডগুলো স্থানান্তরিত হওয়া উচিত সোশ্যাল মিডিয়ায় তরুণ-তরুণীদের ক্ষতির কারণ হতে পারে – যেমন স্ব-ক্ষতি, বিরক্তিকর খাদ্যাভ্যাস, স্ব-স্ব-সম্মান, ঘুমের অভাব এবং সামাজিক মিডিয়াতে অতিরিক্ত নির্ভরতা এসব এর
উপর সঠিক নিয়ম প্রতিষ্ঠা করতে হবে। সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানির মুনাফার ০.৫% ধারায় অর্থায়নের মাধ্যমে “স্বাস্থ্য ও কল্যাণে সামাজিক প্রচার মাধ্যমের প্রভাব সম্পর্কে ক্রমবর্ধমান প্রমাণ” পর্যালোচনা করার জন্য সংসদ নতুন সোশ্যাল মিডিয়া হেলথ অ্যালায়েন্স গঠনের আহ্বান জানিয়েছে।

শ্রম মন্ত্রী ক্রিস এলমোর, এপিপিজি এর চেয়ারম্যান, তিনি বলেন, “আমি সত্যিই মনে করি আমাদের প্রতিবেদনটি সচেতন করার জন্য সকলকে জাগ্রত করা প্রয়োজন – অবশেষে এইটা সামাজিক গণমাধ্যমের তরুণদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে নেওয়ার অর্থপূর্ণ পদক্ষেপ। “অনেক দীর্ঘ সময়ের পর সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানির জন্য অনলাইনে ওয়াইল্ড ওয়েস্টে কাজ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।
এপিপিজি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ এর মাধ্যমে তরুণদের জীবনকে ইতিবাচকভাবে প্রভাবিত করার সম্ভাবনা রয়েছে যেমন, “তরুণরা তাদের অনুভূতিগুলো সহজে প্রকাশ করতে পারে, সহায়তা খুঁজে পেতে পারে এবং কম বিচ্ছিন্ন ও কম একাকীত্ব অনুভব করবে”।

রয়্যাল কলেজ অফ প্যাডিয়াট্রিকস অ্যান্ড চাইল্ড হেলথ উন্নয়নের কর্মকর্তা ডঃ ম্যাক্স ডেভি বলেন, “সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সামাজিক আড়াআড়ি পরিবর্তিত হয়েছে, আমাদের শিশু এবং যুবকেরা তার পরীক্ষামূলক পাইলট।” সর্বশেষ তথ্য প্রমাণ করে যে স্ক্রিন এ তাকিয়ে থাকা বড়দের জন্য ক্ষতিকারক না হলেও, শিশুদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক কিন্তু আপনি যখন ঘুমের সময় মুখোমুখী মিথস্ক্রিয়া আলো পরে এতে ক্ষতির কারণ হতে পারে।

সরকার শীঘ্রই একটি হোয়াইট পেপার প্রকাশ করবে যা অনলাইন প্ল্যাটফর্মের দায়িত্বগুলো নির্ধারণ করে দিবে কীভাবে এই দায়িত্ব পূরণ করা উচিত এবং যদি না করে তবে কী হবে।

একই রকম আরো কিছু ফুটপ্রিন্ট

বুলিং এর কবলে শিশু-কিশোর’রা

MP Comrade

আর্থিক সংকটে বিপর্যস্ত “আইওএম” এর রোহিঙ্গা স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম

MP Comrade

কার ভরসায় রেখে যাচ্ছি শিশু ?

juairiafarzana

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy