ছবিয়াল ও ‘বারো’ সিনেমা

Please log in or register to like posts.
News

‘ছবিয়াল’ নামটি নাট্যজগতে এদেশে যখন অাবির্ভূত হয় তখন একটা শতাব্দীর শুরু হয়েছিল। ২০০০ সালে ‘ছবিয়াল’ যখন যাত্রা শুরু করে নব্বই দশকীয় একটা ইমেজ থেকে বের হয়ে নাগরিক চলতি সমাজের উপস্থাপন করতে শুরু করেছিল এ নাট্যনির্মাণ প্রতিষ্ঠানটি। মোস্তফা সরোয়ার ফারুকী-র হাত ধরে শুরুটা জমে উঠেছিল তাই এ গোষ্ঠীর নাটকের নিয়মিত দর্শকের কাছে ‘ফারুকীর ভাই বেরাদার’ নামেই বিশেষভাবে পরিচিতি পায়।

নাটকের গ্রামীণ ভাষা বা প্রমিত কথা বলার বাইরে ছবিয়াল যে পরিবর্তনটা অানে সেখানে শহুরে ভাষা প্রবেশ করেছিল। ভাষাটা ‘খাইছে, মারছে, ধরছে, বলছে, হইছে’ এরকম অাঞ্চলিকতার শব্দের সংযোগ ঘটাতে থাকে। তরুণ প্রজন্মের লাইফস্টাইল তাদের নাটকে দেখানো হত। রেদওয়ান রনি-র ‘বৃত্ত, বিহাইন্ড দ্য সিন, উড়োজাহাজ, উচ্চতর শারীরিক বিজ্ঞান, হৃৎকাহন’ নাটকগুলোতে নির্মাতা নিজের সময়কে তুলে ধরেছিল। প্রজন্মের মেজাজকে ধরতে ‘উড়োজাহাজ’ নাটকটি এক্ষেত্রে মনে করলেই যথেষ্ট বোঝা যায় স্ট্রাগল, প্রেম, বিচ্ছেদ এসব কিভাবে এ প্রজন্মের মধ্যে অবস্থান করে। রোমেল ও জেনির এ নাটকটি জনপ্রিয়। মোস্তফা কামাল রাজের ‘চাঁদের নিজের কোনো অালো নেই, বন্ধু ও ভালোবাসা’ নাটক দুটি দুই ধরনের বিষয় নিয়ে তৈরি। মধ্যবিত্ত পরিবারের সুখ-দুঃখ নিয়ে প্রথমটি অসাধারণ নির্মাণ ছিল পরেরটি মজা করার মাধ্যমে বন্ধু ও ভালোবাসার সম্পর্কের পার্থক্য দেখিয়েছে। অাশুতোষ সুজনের ‘বরাবর স্যার’ নাটক দেখলে যে কারো মন খারাপ হবে। নিম্নবিত্ত ছাত্রের স্বপ্নের মৃত্যু ও তার অাত্মহত্যার মধ্য দিয়ে প্রচলিত সমাজকে চপেটাঘাত করা হয়েছে। এছাড়া তার ‘ভালুককে শুভেচ্ছা টুনটুনি’ চমৎকার কাজ। শরাফ অাহমেদ জীবনের ‘সিরিয়াস কথার পরের কথা’ খুবই জনপ্রিয় নাটক। এছাড়া ‘উচ্চ মাধ্যমিক সমাধান’-ও ভালো কাজ। ইফতেখার অাহমেদ ফাহমি-র ‘ভ্যানিটি ব্যাগ, অামি, রিং, ঊনমানুষ, রুম ডেট, কবি বলেছেন, অামাদের গল্প, অামার একটি কুকুর অাছে’ এগুলো বৈচিত্র্যময় কাজ। ধারাবাহিক নাটকের মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিল ‘হাউজফুল।’ নাটকের সিরিয়াস ও মজার ভাষাটা ফাহমি শক্তভাবে অায়ত্ত করেছে। ইশতিয়াক অাহমেদ রোমেল-এর ‘জীবন থেকে নেয়া, গল্প ভুলে গেছি, লালবাক্স, ঠুয়া’ এ নাটকগুলো পরিচিত। অালী ফিদা একরাম তোজো-র ‘কালো অার ধলো বাহিরে কেবল’ অালোচিত নাটক। অাদনান অাল রাজীব তরুণদের মধ্যে ‘অলটাইম দৌড়ের উপর’ নির্মাণ করে নজরে এসেছে। অাশফাক নিপুণ তরুণদের মধ্যে ইতোমধ্যে অবস্থান তৈরি করেছে-‘মিডলক্লাস সেন্টিমেন্ট, হাঁচি, ও রাধা ও কৃষ্ণ, তুমি না থাকলে’ এ নাটকগুলো দিয়ে। তার নিজস্বতা অাছে গল্প বলা ও নির্মাণে। অারো অাছে অাশিকুর রহমান, হুমায়ুন সাধু

এই নাট্যকাররা এবারের ঈদে একসাথে সম্মিলিত প্রজেক্টে এক হয়েছেন। সংবাদ সম্মেলেনে ফারুকী বলছিলেন তাকে সবাই খুব করে ধরেছিল টেলিভিশনে পরিবর্তনের জন্য অাবার একসাথে হবার জন্য। তাদের ২০০০ পরবর্তী সময়ের পর একটা বিরতি ছিল পরে ২০০৫-এ অাবার একসাথে কাজ করা হয়। এরপর ব্যক্তিগত প্রোডাকশন নিয়ে সবাই ব্যস্ত হয়ে পড়লে একটা দূরত্ব অনুভব করেন সবাই। যার জন্য অাবারো এক হলেন তারা। তাদের এক হওয়াতে লাভটা জুটল দর্শকের যারা একসাথে ৭টা গল্পের নাটক পাবে এ ঈদে, পরের ঈদে ৫টা এবং নাটকের পর ১২ জনের ১২ টা সিনেমা থাকবে প্রজেক্টের অংশ হিশাবে। ১২ টা সিনেমা! এটা অবশ্যই বিশেষ কিছু অন্তত অাজকের ঢালিউডের এই থমথমে পরিস্থিতিতে এক পশলা বৃষ্টি তো অবশ্যই।

৮টা টেলিফিল্মের নাম চূড়ান্ত করা হয়েছে-
১. ২৬ দিন মাত্র
২. চিকন পিনের চার্জার
৩. হায় চিল সোনালি ডানার চিল
৪. নোঙ্গর ফেলি ঘাটে ঘাটে
৫. অাবার তরা সাহেব হ!
৬. বিকেল বেলার পাখি
৭. পুতুল
৮. ছেলেটা কিন্তু ভালো ছিল!
নামের ভেরিয়েশনে বোঝা যাচ্ছে অাটটা টেলিফিল্ম হবে অাটরকম। স্পেশালি ‘চিকন পিনের চার্জার’ নামটা খুব সমসাময়িক। এটাতে যতটুকু ধারণা করা যায় লাইভ প্রোগ্রামে কমেন্ট করা ইয়ো ইয়ো টাইপের পোলাপানদের চিকন পিনের চার্জার খোঁজ করার মতো কালচার উঠে অাসবে। এটা একটা মেসেজমূলক কাজ হবে ভাবাই যায়। সবগুলো ভালো কাজ হোক।

১২ টি সিনেমা নিয়ে অামি খুব এক্সাইটেড এ মুহূর্তে। ফারুকী যা বললেন, অাগামী এক থেকে দেড় বছরের মধ্যে দর্শক এগুলো উপভোগ করবে। নিজেদের গল্পে নিজেদের সিনেমা দেখব অামরা এরকম অাভাস দিলেন। ইস! যদি মেইনস্ট্রিম কমার্শিয়াল সিনেমাগুলোতে এমন মৌলিক গল্পে সিনেমা হত! জাস্ট দর্শকের কাছ থেকে স্ক্রিপ্ট চাওয়া হলেই কাজ হত! কে ভাববে সেসব! অাশা করি সিনেমিতে ‘ছবিয়াল’ একটা ভাইটাল রোল প্লে করবে। সব সিনেমা ব্যবসাসফল বা সুপারহিট হতে হবে এমন কথা নেই। ছবিয়ালের সিনেমা কমার্শিয়াল ও অফট্র্যাক দুই ঘরানাতেই হোক।

তার মানে এক দেড় বছরের হিশাব কষলে ২০১৮-র মাঝামাঝিটা ছবিয়ালের সিনেমা টাইম হতে যাচ্ছে! স্মরণীয় হোক ২০১৮ অন্তত ২০১৭-র বর্তমান বড় বেদনাটা ভুলে যাবার জন্য হলেও হোক। হওয়াটা খুব খুব দরকারি।

Reactions

0
0
0
0
0
0
Already reacted for this post.

Reactions

Nobody liked ?