Now Reading
নাটকের অভিনয় শিল্পীরা কী সিনেমার জন্য পারফেক্ট নয়??



নাটকের অভিনয় শিল্পীরা কী সিনেমার জন্য পারফেক্ট নয়??

নতুন মুখ উপহার দিলেই কী ভালো অভিনেতা-অভিনেত্রী পাওয়া যায়??
জোকার এর মতো দেখতে হলেই কী তাকে কৌতুক অভিনেতা বলা যায়??
ভিলেনের মতো দেখতে হলেই কী তাকে দিয়ে ভিলেনের অভিনয় হয়??
লুস ক্যারেকটার এর মতো দেখতে হলেই কী তাকে দিয়ে সেই চরিত্রে অভিনয় করানো যায়??
উপরের প্রশ্নগুলো বর্তমান কিছু পরিচালকের জন্য।আমার করা প্রশ্নগুলো ঠিক আমা মুখে মানায় না কারন আমি একজন সাধারন মানুষ,তুবুও প্রশ্নগুলো তুলেছি কিছু পরিচালকের সিনেমা দেখে বিরক্ত হয়ে।আমাদের দেশের অনেক পরিচালকই মনে করেন নাটকের অভিনয় শিল্পীরা চলচ্চিত্রের জন্য পারফেক্ট নয়।যে সকল পরিচালকগন বলেন নাটকের অভিনয় শিল্পীরা পারফেক্ট নয় তাদেরই ভুল প্রমান করেছেন আমাদের দেশের নামকরা কিছু পরিচালক।নাটকের অভিনয় শিল্পীরা যে সিনেমার জন্যও পারফেক্ট হতে পারেন তার প্রকৃষ্ট উদাহরন ‘তারকাঁটা ‘ ছবিটি।’তারকাঁটা ‘ ছবির বেশির ভাগ অভিনয় শিল্পীই নাটক থেকে নেওয়া হয়েছে। আমরা জানি তারকাঁটা ছবির হিরো আমাদের প্রিয় নায়ক আরিফিন শুভ একসময় নাটকে অভিনয় করতেন,বর্তমানে তিনি চলচ্চিত্র জগতের একজন জনপ্রিয় অভিনেতা।তারকাঁটা ছবির জন্য আরিফিন জিতেছিলেন সমালোচক পুরষ্কার যা শুধু জনপ্রিয়তা বা ক্ষমতা থাকলেই জেতা যায় না কিংবা সবেচেয়ে নিম্নমানের টিকেট কেটে দেখা দর্শক যার কিনা অশ্লীল দৃশ্য সামনে আসলে মুখ দিয়ে সিটি বাজায় কিংবা অস্বাভাবিক বা উদ্ভট ডায়লগ শুনে সিটি বাজায় তাদের ভোটেও জেতা যায় না। তারকাঁটা ছবির নায়িকা মিম… যাকে প্রথম দুইটি ছবি করার পরে সাধারনত নাটকেই দেখা যেতো এবং যার সম্পর্কে কেউ কেউ বলতেন মিম নাটকের জন্যই পারফেক্ট সেই অভিনেত্রী।’তারকাঁটা ‘ ছবিতে অভিনয়ের প্রশংসা পেয়ে মিম তাদের ধারনাকে ভুল প্রমান করেছিলেন যা করতে তাকে সাহায্য করেছিলেন পরিচালক মোস্তফা কামাল রাজ।’তারকাঁটা ‘ ছবির ভিলেন আরিফিন শুভর বিপক্ষের ভিলেন ফারুক আহমেদ আর পক্ষের ভিলেন এজাজুল হক অসাধরন অভিনয় করে সকলের মনজয় করে নিয়েছিলেন।নাটকের অভিনয় শিল্পীরা যদি সিনেমার অভিনয়ের জন্য পারফেক্ট না হয় তবে নাটকের জোকার চরিত্রে অভিনয় করা লোক কিভাবে সিনেমার ভিলেন চরিত্রে একদম পারফেক্ট ভাবে মানিয়ে গেলেন??
এজাজুল হক এবং ফারুক আহমেদ এর মতো পারফেক্ট অভিনেতা নবাগত ভিলেন কিংবা জোকারদের মধ্যে কেউ নেই।কচি খন্দকার নাটকের অভিনেতা হয়েও তারকাঁটা ছবিতে তার লুস ক্যারেকটার এর অভিনয় খুব সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তুলেছিলেন যা মানুষের মনজয় করেছিল। এবার আসা যাক অন্য একটি ছবির কথায় এবং নাটক ব্যতীত অন্য একটি বিষয়ে।পরিচালক আশিকুর রহমান এর আবিষ্কার বান্টি(হারুন রশিদ) দেখতে জোকারের মতো না হলেও তিনি তার অভিনয় এর মাধ্যমে তিনি মানুষের মনজয় করেছিলেন,তার চিকন আলির মতো জোর করে হাসানোর দরকার হয়নি।আবার আসা যাক নাটের অভিনয় শিল্পীদের বিষয়ে। প্রথম কাতারের পরিচালক ফারুকীর টেলিভিশন ছবির প্রত্যেকটা অভিনয় শিল্পী নাটকে ছিল,তাই বলে কী ছবিটা হিট হয়নি? টেলিভিশন কী পুরষ্কার জেতেনি?? অমিতাভ রেজার ‘আয়নাবাজি’ ছবিটির অভিনয় শিল্পীরাও নাটকের অভিনয় শিল্পী ছিলেন, তাই বলে কী ছবিটি হিট করেনি?? নাটকের অভিনেতা রওনক ‘রাতারগুল’ টেলিছবির মাধ্যমে অনেকের মনজয় করেছেন এবং সমালোচক পুরষ্কারও জিতেছেন।যারা রনকের নাটকটি দেখেছেন তারা যদি তাকে সিনেমার অভিনয় শিল্পী হিসেবে চান,সেটা কী ভুল চাহিদা হবে?? নতুন মুখের কথা যদি বলতে যান তবে আমার প্রশ্ন,নাটকের অভিনয় শিল্পীদের থেকে কী নতুন মুখরা কী ভালো কিছু করে দেখাতে পেরেছেন??
সব মিলিয়ে বলা যায় নাটকের অভিনয় শিল্পী হলেই যে তারা ভালো কিছু করতে পারবেন না তা মিথ্যা এবং জোকারের মতো দেখতে হলেই যে তারা মানুষের মনজয় করতে পারবেন তাও মিথ্যা।

About The Author
Atikur Rahman Titas
I am Atikur Rahman Titas .I love to write
Comments
Leave a response

You must log in to post a comment