Now Reading
বিজ্ঞান কি?



বিজ্ঞান কি?

আজকে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব বিজ্ঞান নিয়ে । আমরা তো আমাদের শিক্ষাজীবনে অনেক বিজ্ঞান বই পড়েছি আবার আমরা বিজ্ঞানের অনেক আবিষ্কারও দেখেছি এবং দেখছি । আমরা কি জানি বিজ্ঞান কি ?

হয়তোবা আমরা অনেকেই জানি, বিজ্ঞান কি ? তবে, আজকে আমি আপনাদেরকে বিজ্ঞান সম্পর্কে কিছু প্রাথমিক ধারণা দিতে চাই ।

বিজ্ঞান নামটা শুনলেই বোঝা যায় বিজ্ঞান একধরনের জ্ঞান । আর জ্ঞান কি ? জ্ঞান হল কোন কিছু সম্পর্কে তথ্য । পানি, মাটি, জীব, জড় ইত্যাদি এগুলো হল আমাদের প্রাকৃতিক পরিবেশের অংশ । প্রাকৃতিক বিভিন্ন ঘটনা আমরা কে না জানি । আমরা যদি কাউকে জিজ্ঞেসা করি তাহলে সে নিশ্চয় মুখস্তবিদ্যার মত করে বলে দিবে ! এখানে একটা মজার বিষয় আছে সেটা হল, এই যে প্রাকৃতিক বিভিন্ন ঘটনা ঘটে এগুলো সম্পর্কে জ্ঞানও হল বিজ্ঞান ।

কিন্তু, প্রাকৃতিক যেকোনো তথ্যই বিজ্ঞান না ! আমরা যদি কোন পরিবেশ সম্পর্কে ঠোটস্ত ব্যাখ্যা বলি তাহলে সেটা বিজ্ঞান হবে না । বিজ্ঞানের জ্ঞান হতে হলে, পর্যবেক্ষণ ও পরীক্ষণ এর মাধ্যমে সমর্থিত ফল ফেতে হবে । যেমনঃ বৃষ্টি কীভাবে হয় ? এর সম্পর্কে যদি আমরা ঠোটস্ত ব্যাখ্যা বলি তাহলে সেটা বিজ্ঞান হবে না ! কারন এটির ব্যাখ্যা পরীক্ষণের মাধ্যমে বলা হয়নি আর এটিকে কোন পরীক্ষণও সমর্থন করেনা । আগেই বলেছি, বিজ্ঞানের জ্ঞান হতে হলে পর্যবেক্ষণ ও পরীক্ষণ এর মাধ্যমে সমর্থিত ফল ফেতে হবে ।

তাহলে আমরা এতটুকু আলোচনা থেকে নিশ্চয় বুঝতে পারলাম বিজ্ঞান কি ?

তবে আরেকবার বলে দিতে চাই, আমরা যেসব প্রাকৃতিক ঘটনা দেখি সেগুলো আসলে বিজ্ঞান সম্পর্কে জ্ঞান আর আমরা পরীক্ষণ এবং পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে যেই ফল পায় তা হল বিজ্ঞানের জ্ঞান ।

তো আমরা এই জ্ঞান কীভাবে অর্জন করব ? বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়ার হিসেবে, পরীক্ষা-নিরীক্ষা, পর্যবেক্ষণ, যুক্তিগত চিন্তার মাধমে বিজ্ঞানের জ্ঞান অর্জন করা সম্ভব । জ্ঞান যেমন বিজ্ঞান, তেমনি জ্ঞান অর্জনের প্রক্রিয়াও বিজ্ঞান ।

বিজ্ঞানের জ্ঞান অর্জনের জন্য বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়ার পাশাপাশি দরকার বিজ্ঞানসম্মত দৃষ্টিভঙ্গি বা মনোভাব এবং এগুলোকে যুক্তিযুক্তভাবেও চিন্তা করতে হবে । অপরের মতামতকে গুরুত্ব দেওয়া এবং নিজের ভুল স্বীকার করাকে বিজ্ঞানমনস্ক বলে । তাহলে বিজ্ঞানকে আমরা কি বলব ? বিজ্ঞানকে আমরা বলবো যে, প্রাকৃতিক ঘটনা সম্পর্কে জ্ঞানও হল বিজ্ঞান, যা পরীক্ষণ এবং পর্যবেক্ষণ থেকে পাওয়া ফল এবং একটি বিজ্ঞানসম্মত দৃষ্টিভঙ্গি । বিজ্ঞানের জ্ঞান ও জ্ঞান অর্জনের প্রক্রিয়া একই পরিমাণে গুরুত্বপূর্ণ এবং সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিজ্ঞানসম্মত দৃষ্টিভঙ্গি ।

এখন আমি আমার আলোচনার শেষ অংশটি নিয়ে আলোচনা করবো । এই অংশটি হল বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়ার ধাপ । তো বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়ার ধাপগুলো এখন আমরা জানবো ।

প্রশ্ন/সমস্যা নির্ধারণ ,   বিদ্যমান তথ্য সংগ্রহ,   পরীক্ষণ ও পর্যবেক্ষণের পরিকল্পনা এবং উপাত্ত সংগ্রহের উপকরন তৈরী করা,  সম্ভাব্য ফলাফল,   পর্যবেক্ষণ ও উপাত্ত সংগ্রহ,   প্রাপ্ত উপাত্ত বিশ্লেষণ,   সম্ভাব্য ফলাফল গ্রহন বা বর্জন,  ফলাফল প্রকাশ ।

আজকে আমার আলোচনা এতটুকুই ছিল । আশা করছি আপনারা বুঝতে পারবেন বিজ্ঞান কি ? এবং এর বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়ার ধাপগুলোও । আবার কোন একদিন বিজ্ঞান নিয়ে আরটিকেল লিখবো । এই আরটিকেলটি লেখার উদ্দেশ্য ছিল যে, আপনাদেরকে যাতে বিজ্ঞান সম্পর্কে বাসিক বা প্রাথমিক ধারণা দিতে পারি ।

 

 

About The Author
Saif Mahmud
Saif Mahmud
লেখা-লেখির ইচ্ছা অনেক আগে থেকেই ছিল । নিজের লেখা প্রকাশ করার জন্য এরকম একটা সাইট খুঁজছিলাম অবশেষে পেয়ে গেছি ! ধন্যবাদ বাংলাদেশিজমকে ।