Now Reading
মসজিদ নাকি প্রাসাদ?



মসজিদ নাকি প্রাসাদ?

সুন্দর্যে ঘেরা আমাদের এই বাংলাদেশ। বাংলার অনেক কবি সাহিত্যিক এই সুন্দর্য নিয়ে অনেক গল্প, কবিতা লিখেছে। কিছু কিছু যায়গা এতটাই সুন্দর যে, এর সুন্দর্য বর্ণনা করার ভাষা সকলের থাকে না।

দূর থেকে দেখলে যায়গাটা যেনো স্বর্গের কোন প্রাসাদ বা কোন রাজা বা জমিদার এর সদ্য তৈরি করা কোণ অট্টালিকা এর মতন দেখায়। যায়গাটা সবাইকে মুগ্ধ করার জন্য যথেষ্ঠ। তাইতো আমি এর নাম দিয়েছি “জান্নাত এর দরজা”। এইটা দেখতে একটা প্রাসাদ, তবে মানুষের না “আল্লাহ” এর।

হ্যাঁ, বলছিলাম ঢাকার কেরানীগঞ্জের সাউথ টাউন জামে মসজিদ এর কথা। অপরূপ সুন্দর্যে ঘেরা আর চোখ ধাধানো ডিজাইন এর মিশ্রনে যেনো অপার্থিব সুন্দর চোখে পরে। একটা মসজিদ এত সুন্দর করে ডিজাইন এর হতে পারে আপনি না দেখলে বিশ্বাস করবেন না কখনো।

মনে হবে যেনো Disney World এ চলে এসেছেন। মসজিদ টা এরকম ই দেখতে। দূর থেকে দেখেই মনে হয় নিজের সুন্দর জানান দিচ্ছে। তবে যায়গাটার আশে পাশে ইট ভাটা। তাই ধুলা ইকটু বেশী। আপনি যাওয়ার সময় কিভাবে ইট তৈরি হয় বা ইট ভাটার কর্মজীবি শ্রমীকদের সামাজিক অবস্থাও দেখে নিতে পারবেন। তবে আমার মতে  তাদের সাথে বেশী কথা না বলাই ভালো। কারন তারা এইসব ততটা পছন্দ করে না। এমনকি আপনাকে ভালো মন্দ দুই এক কথা শুনিয়ে ও দিতে পারে।

তবে হ্যাঁ কোন খাবার দোকান কিন্তু নেই সেখানে।দুইটা চায়ের দোকান আছে জেল গেট এর অপর পাশে, তবে ততটা স্বাস্থ্যকর না।

আরেকটা কথা। আপনারা চাইলে কেরানীগঞ্জ সেন্ট্রাল জেলখানা ও পরিদর্শন করতে পারবেন। তবে জেলখানা পরিদর্শন করতে হলে আপনাকে সকাল ৮ টা থেকে দুপুর ৩ টা এর মধ্যে জেলখানায় যেতে হবে। আর মসজিদ দেখার উপযুক্ত সময় বিকাল আর সন্ধায়। তাই, দুপরে জেলখানা ঘুরে বিকালে মসজিদ দেখাটা অনেকটাই এক ঢিলে দুই পাখি মারার মতন হবে। তাছাড়া সন্ধায়, মসজিদ এর চারিপাশে যখন লাইট গুলো জ্বলে উঠে তখন দেখলে অনেকটা মুভিতে দেখানো ভৌতিক বাড়িগুলোর মতন দেখায়। সব মিলিয়ে অসম্ভব সুন্দর একটা যায়গা ঢাকার মধ্যে।

যেভাবে যাবেনঃ

ঢাকার যে কোন যায়গা থেকে গুলিস্তান চলে আসবেন। সেখান থেকে লেগুনা বা সিএনজি করে যাত্রাবাড়ী। যাত্রাবাড়ী থেকে লেগুনা তে পোস্তগোলা ব্রিজ এ। আপনি চাইলে গুলিস্তান থেকে সরাসরি সিএনজি তে করে পোস্তগোলা ব্রিজে চলে আসতে পারেন। পোস্তগোলা ব্রিজ পাড় হওয়ার জন্য সিএনজি আছে। সিএনজি তে পোস্তগোলা ব্রিজের ওপার চলে আসার পর সেখান থেকে লেগুনা আছে। লেগুনায় কেরানীগঞ্জ সেন্ট্রাল জেল গেট এ নেমে যাবেন। তারপর সেখান থেকে ৪/৫ মিনিট হাটলেই পেয়ে যাবেন সাউথ টাউন জামে মসজিদ টি। জেল গেট থেকে যে কাওকে জিজ্ঞা্সা করলেই দেখিয়ে দিবে মসজিদ টি।

যে কোন এক বিকেলে সময় করে ঘুরে আসতে পারেন সকলে মিলে। মসজিদ টা সম্পর্কে এখনো তত মানুষ জানে না। যদি প্রাইভেট গাড়ি থাকে, তাহলে সব থেকে ভালো হবে সকলে মিলে ঘুরে আসার জন্য। আর অবশ্যই মসজিদে নামাজ পড়ে নিবেন এক ওয়াক্ত।

About The Author
Pritom Pallav
Pritom pallav

You must log in to post a comment