বিশ্বের সেরা দীর্ঘায়ু ব্যাটারির চার্জ ক্ষমতাসম্পন্ন স্মার্টফোন!

Please log in or register to like posts.
News

স্মার্টফোনের ব্যবহার আমাদের দৈনন্দিক জীবনের একটা বিশেষ অংশ হিসেবে পরিণিত হয়েছে।আমরা প্রয়োজনীয় বিভিন্ন কাজ অত্যন্ত সহজে এখন মোবাইলেই করতে পারি।এমনকি ডেক্সটপের অনেক কাজ বর্তমানে স্মার্টফোনেই করা যাচ্ছে।স্মার্টফোনের কাজ সম্পাদনের সুযোগ-সুবিদা বর্তমানে এন্ড্রয়েডে সবচেয়ে বেশি রয়েছে।কারণ অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমের চেয়ে এন্ড্রয়েডের ডেভেলপাররা বিভিন্ন রকম সফটওয়্যার তৈরির মাধ্যমে স্মার্টফোনের কাজকে প্রতিনিয়ত আরো সহজতর করছে।তাই বর্তমানে এন্ড্রয়েড স্মার্টফোনের জনপ্রিয়তা সবার শীর্ষে।কিন্তু স্মার্টফোনের একটি গুরুত্বপূর্ণ ভিত্তি  হচ্ছে ব্যাটারি।কারণ স্মার্টফোনে কাজ করতে অনেক ব্যাটারি শক্তির প্রয়োজন হয়।আর স্মার্টফোনের ব্যাটারি যত শক্তিশালী হবে ততো বেশি দীর্ঘ সময় ধরে চার্জ দেওয়া বিহীন স্মার্টফোনটি ব্যবহার করা যাবে।কিন্তু স্মার্টফোনে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে গিয়ে ব্যাটারির চার্জ নিয়ে সমস্যা পোহাতে হয়নি এমন মানুষ খুবই কম পাওয়া যাবে।অনেক নামীদামী ব্রান্ডের স্মার্টফোনেরও চার্জ পুড়িয়ে যায় তাড়াতাড়ি।তার কারণ হচ্ছে কম ক্ষমতা সম্পন্ন দূর্বল ব্যাটারি ডিভাইসের সাথে জুড়ে দেওয়া। তাই স্মার্টফোনের ব্যাটারি সমস্যা দূর করতে সবাইকে ছাপিয়ে চীনের ‘অকিটেল’ কোম্পানি দুটি বিশ্বের সেরা ব্যাটারি ক্ষমতা সম্পন্ন স্মার্টফোন লঞ্জ করেছে।এই স্মার্টফোনগুলো হাতে থাকা মানে রীতিমতো একটি পাওয়ার ব্যাংক নিয়ে ঘোরা।কারণ  দুটিতেই ব্যবহার করা হয়েছে “১০হাজার” মিলিআ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি।হয়তো শুনে অনেকের নিশ্চয় অবাক লাগতে পারে?হ্যা! অবাক লাগারই কথা,কিন্তু সত্যি এটাই যে ১০ হাজার এম্পিঅ্যায়ারের ব্যাটারি এ ডিভাইস দুটিতে জুড়ে দেওয়া হয়েছে।

অকিটেলের এ ডিভাইস দুটিতে একবার ফুল চার্জ দিলে নরমাল ইউজে ১৫ দিন এবং একটানা ইউজে ৪৬ ঘন্টার বেশি বা ২দিন চলে যাবে এমটাই জানিয়েছে কোম্পানিটি।

ডিভাইস দুটির নামও ব্যাটারির সাথে মিল রেখে দেওয়া হয়েছে।যথা,অকিটেল কে১০,০০০ ও অকিটেল কে১০,০০০ প্রো বা (Oukitel k10,000 And Oukitel k10,000 pro)এ দুটির মধ্যে কে ১০০০০প্রো ডিভাইসটি সবদিক দিয়ে এক কথায় অসাধার। 

ডিভাইস দুটির সংক্ষেপে স্পেসিফিকেশন দেওয়া হল।

অকিটেল কে ১০,০০০ প্রো:-

Screenshot_2017-05-30-18-17-06~01.jpg

★→৫.৫ ইঞ্চি পিএইসডি ( 1280 x 1920) পিপিআই বিগ নিখুত ডিসপ্লে সাথে কর্নিং গরিলা গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে।

★→পিছনের ক্যামেরার নিচে রয়েছে ফিঙ্গার ফ্রিন্ট সেন্সর।

★→মিডিয়াটেক 6750 4x কোরটেক্স A53 1.5 গিগাহার্জ + 4X কোর্টেক্স -A53 1.0GHz গিগাহার্জের শক্তিশালী ডোয়াল অক্টকোর ব্যবহার করাই ডিভাইসটিতে কোনো রকম সমস্যা বা ল্যাগিং ছাড়া গেমিং করা যাবে অনায়াসে।

Screenshot_2017-05-30-18-13-00~01.jpg

★→অপারেটিং সিস্টেম এন্ডয়েড সর্বশেষ ভার্সন ৭.০ নুগ্যাট ব্যবহার করা হয়েছে।

★→ডোয়াল সিম সাথে ২জি,৩জি ও ৪জি ব্যবহারের সুবিদা রয়েছে।

★→৩২ জিবি ইন্টারনাল এবং ৬৪ জিবি এক্সটারনাল মেমোরি ব্যবহারের সুবিদা।

★→৩জিবি র্যাম ব্যবহার করাই কোনো প্রকার ল্যাগিং ছাড়ায় মাল্টিটাস্কিন বেশি করা যাবে।

★→৫ফিঙ্গার মাল্টিটাচের সুবিদা।

★→পিছনে ১৩ মেগাপিক্সেল এবং সামনে ৫মেগাপিক্সেল উন্নত ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে।

★→ওয়াইফাই

★→হটস্পট

★→ওটিজি

★→ব্যাটারি টাইপ:- নন-রিমুভাল।

★→আরো আছে জেসচার সেটিংস’। যার মাধ্যমে এই ডিভাইসটিকে এক হাতে ব্যবহার করা অনেক সহজ হবে। স্ক্রীন অফ থাকা অবস্থায়ও আঙুল দিয়ে C লিখে ক্যামেরা ওপেন করা, কিংবা E লিখে ব্রাউজার ওপেন করা যাবে। ফোনের নির্দিষ্ট জেশ্চার চাইলেই এডিট করে, নির্দিষ্ট অ্যাপ্লিকেশন ওপেন করা যাবে।

Screenshot_2017-05-30-18-12-49~01.jpg

★→কে১০০০০ প্রো মডেলের এই স্মার্টফোনে ইউএসবি ওটিজি রিভার্স চার্জ ফাংশন থাকায় এই ফোনকে একটি পাওয়ার ব্যাংক হিসেবেও ব্যবহার করার সুযোগ রয়েছে। অর্থা, এই ফোনকে ব্যবহার করে অন্যান্য স্মার্টফোনের ব্যাটারিও চার্জ দেওয়া যাবে।

Screenshot_2017-05-30-18-12-18~01.jpg

→এই বিশাল শক্তির ব্যাটারি চার্জ করতেও তো অনেক সময় লাগার কথা।তাই সে সমস্যা মাথায় রেখেই ১২ভি/২এ ফ্লাশ চার্জার দিয়েছে অকিটেল।এর মাধ্যমে ব্যাটারি চার্জ হতে সময় লাগবে মাত্র ৩ ঘণ্টা। 

Screenshot_2017-05-30-18-13-22~01.jpg

(কে১০,০০০ প্রো’র  বর্তমান মূল্য:- 219.99 ইউএস ডলার বা 17,728 টাকা।)

 

অকিটেল কে ১০,০০০:-

Screenshot_2017-05-30-18-17-20~01.jpg

★→৫.৫ ইঞ্চি এইসডি-আইপিএস( ৭২০ x ১২৮০) পিপিআই বিগ নিখুত ডিসপ্লে।

★→মিডিয়াটেক 6735 64 Bit 1.0GHz গিগাহার্জের শক্তিশালী কোয়াড কোর ব্যবহার করা হয়েছে।

★→জিপিইউ Mali T720 ব্যবহার করাই মোটামুটি গেম খেলার জন্য যথেষ্ট।

★→অপারেটিং সিস্টেম এন্ডয়েড সর্বশেষ ভার্সন 5.1 নুগ্যাট ব্যবহার করা হয়েছে।

★→ডোয়াল সিম সাথে ২জি,৩জি ও ৪জি ব্যবহারের সুবিদা রয়েছে।

★→16 জিবি ইন্টারনাল এবং 32 জিবি এক্সটারনাল মেমোরি ব্যবহারের সুবিদা।

★→2জিবি র্যাম ব্যবহার করাই কোনো প্রকার ল্যাগিং ছাড়ায় মাল্টিটাস্কিন বেশি করা যাবে।

★→5ফিঙ্গার মাল্টিটাচের সুবিদা।

★→পিছনে 8 মেগাপিক্সেল এবং সামনে 2 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে।

★→ওয়াইফাই

★→হটস্পট

★→ওটিজি

*→ব্যাটারি টাইপ:- নন-রিমুভাল।

*→আরো আছে জেসচার সেটিংস’। যার মাধ্যমে এই ডিভাইসটিকে এক হাতে ব্যবহার করা অনেক সহজ হবে। স্ক্রীন অফ থাকা অবস্থায়ও আঙুল দিয়ে C লিখে ক্যামেরা ওপেন করা, কিংবা E লিখে ব্রাউজার ওপেন করা যাবে। ফোনের নির্দিষ্ট জেশ্চার চাইলেই এডিট করে, নির্দিষ্ট অ্যাপ্লিকেশন ওপেন করা যাবে।

 

★→কে১০০০০ মডেলের এই স্মার্টফোনে ইউএসবি ওটিজি রিভার্স চার্জ ফাংশন থাকায় এই ফোনকে একটি পাওয়ার ব্যাংক হিসেবেও ব্যবহার করার সুযোগ রয়েছে। অর্থা, এই ফোনকে ব্যবহার করে অন্যান্য স্মার্টফোনের ব্যাটারিও চার্জ দেওয়া যাবে।

 

★→এই বিশাল শক্তির ব্যাটারি চার্জ করতেও তো অনেক সময় লাগার কথা।তাই সে সমস্যা মাথায় রেখেই 9ভি/2এ ফ্লাশ চার্জার দিয়েছে অকিটেল।এর মাধ্যমে ব্যাটারি চার্জ হতে সময় লাগবে মাত্র 3.5 ঘণ্টা। 

Screenshot_2017-05-30-18-11-29~01.jpg

(কে১০,০০০ এর বর্তমান মূল্য:- ১৩২ ইউএস ডলার বা 10,631 টাকা।)

 

বিদ্র: ফোনগুলো আলিএক্সপ্রেস থেকে খুব সহজে অর্ডার করে কিনতে পারবেন অথবা facebook থেকে “Online purchase” গ্রুপে জয়েন হয়ে এডমিনের সাথে কথা বলে বিকাশে পেমেন্টর মাধ্যমে কুরিয়ার সার্ভিসে ফোন নিতে পারবেন।

Reactions

0
0
0
0
0
0
Already reacted for this post.

Reactions

Nobody liked ?