কারেন্ট ইস্যু

থৈ থৈ চট্টগ্রামের করুন অবস্থায় একটি বিশেষ প্রশ্ন

চট্টগ্রাম এখন একটি নোংরা পানির আস্ত সুইমিং পুল। গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার রাতের ৩/৪ ঘন্টার বৃষ্টিপাতে প্রিয় শহরটি রুপ নিয়েছে ভেনিস নগরীতে, তবে পার্থক্য একটাই – ভেনিসের পানি তাদের গর্ব, আর চট্টগ্রামের আটকে যাওয়া এই পানি চট্টগ্রামের দুঃখ। চীনের দুঃখ হোয়াংহ নদী আর চট্টগ্রামের দুঃখ বৃষ্টি – হোক সেটা হালকা বা ভারী।

সেহরী খাওয়ার পর যখন গা-টা একটু বিছানায় এলিয়ে দিলাম, তখন খবর আসল “স্যার, আপনার অফিস পানির নীচে”। দৌড়ে গেলাম আর দেখলাম আসলেই অবস্থাটা কতটা শোচনীয়। ভোর ৬ টায় সেই পানি এখনও নামেনি। বিশ্বাস না হলে আমার ফেসবুক ভিডিওটি দেখে নিন।

এই মহুর্তে বুধবার রাত ১১ টা, যখন আমি এটি লিখছি এবং সকালের সেই পানি নামার কোন নাম গন্ধ নেই। বিদ্যুৎ নেই টানা ২১ ঘন্টা হয়ে গেল। আর সেই সাথে আবারো শুরু হলো ভারি বর্ষন। গতকালের বর্ষনের পানি কিন্তু এখনও যায়নি। গর্বের সাথে রয়ে গেছে আর চট্টগ্রামকে “সৌন্দর্যমন্ডিত” করছে। আর নতুন বৃষ্টিতে পানি আরো বাড়তে যোগ হচ্ছে। তো এখন আমরা কোথায় যাব?

চট্টগ্রামে নগর পিতা বাছাইয়ের প্রাককালে সবসময় সকল নগর পিতা হতে ইচ্ছুক ব্যাক্তিবর্গ একটা ওয়াদাই করেন, সেটি হলো, চট্টগ্রামের পানি নিস্কাসন ব্যবস্থাকে একেবারে ঠিক করে ফেলা। কিন্তু ওয়াদা ওয়াদাই থেকে যায়, রেজাল্ট আর পাওয়া যায় না। সারাবছর অনেক কিছু বলা হলেও রেজাল্ট সব পানির নীচে চাপা পড়ে যায়। এই রোজার মাসে মানুষের দুর্ভোগ যেন এই কারনে আরো ১০ গুন বেড়ে গেছে। বেড়ে যাওয়াটাই নরমাল ব্যাপার।

এখন কথা হলো, কবে এর থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। ধরে নিলাম আমি বিশ্বাস করি সবার ওয়াদাগুলো বা নির্বাচনী ইশতেহার গুলো। কিন্তু কতদিন সেই বিশ্বাসের সাথে বসবাস করব? কিছু একটা তো চোখে দেখা দরকার তাই না? তাই যারা নগর চালান, তাদের উদ্দেশ্যে একখানা বিনীত আবেদন করছি, দয়া করে আমাদের অর্থাৎ চট্টগ্রামবাসীদের কি কোন তারিখ দিতে পারবেন? সেটা যখনই হোক না কেন। পারবেন কি? যেমন ২০১৯ সালের মার্চ মাসের ১২ তারিখ চট্টগ্রামের পানি আটকে যাওয়ার সমস্যা আর থাকবে না। পারবেন এরকম কিছু দিতে? বিশ্বাস করেন, এতটুকু একটা পারফেক্ট তারিখ যদি দেন, তাহলে ততদিন পর্যন্ত এই কষ্ট মেনে নিতে রাজি আছি। কোন সমস্যা নেই। আমরা আছি আপনার সাথে। আমার ভাই, তোমার ভাই, মেয়র ভাই, মেয়র ভাই – এই স্লোগানে গলা ফাটিয়ে ফেলব কথা দিলাম। শুধু একটা সত্যিকারের তারিখ দিন।

জানিনা আজ রাত চট্টগ্রাম বাসীর কেমন যাবে। বেশীরভাগ এলাকায় কোন বিদ্যুৎ নেই। ঘরে পানি। রোযার মাস। বাইরে যেতে পারছে না কেউ। গরম। আবার বৃষ্টি, আরো পানি। কই যাবে হতভাগা চট্টগ্রামবাসী। ডিজিটাল বাংলাদেশের বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রাম। আর বাণিজ্যিক রাজধানীর যদি এই হাল হয়, তবে কি করবে মানুষ? একটি তারিখ দিন। সত্যিকারের তারিখ, যে তারিখে চট্টগ্রামের এই সমস্যা সমাধান হবে। আর কিছু চাই না। আর না দিলে, তাও কিছু করার নাই। সাধারন মানুষের আর কিই বা করার আছে।

PS: পোস্টের কিছু ছবি আমার নিজেরই তোলা, আর কিছু ছবি নেয়া হয়েছে সাজ্জাদ মামুন ভাইয়ের কাছ থেকে।

একই রকম আরো কিছু ফুটপ্রিন্ট

দিবস | প্রয়োজনীয় নাকি অপ্রয়োজনীয়?

Rihanoor Islam Protik

একজন চেস্টার বেনিংটন এর মৃত্যু আর তার কারন

Kazi Mohammad Arafat Rahaman

শৈশবে রমজান !!

Ahmmed Abir

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy