কিভাবে টাইপিং ছাড়া চ্যাটিং করবেন দেখে নিন।

Now Reading
কিভাবে টাইপিং ছাড়া চ্যাটিং করবেন দেখে নিন।

 

আমরা সবাই কম বেশি ফেসবুক ম্যাসেন্জার এর সাথে পরিচিত। ফেসবুক ম্যাসেন্জার এ আমরা চ্যাটিং এবং কলিং করতে পারি আমাদের ফেসবুক বন্ধুদের সাথে। সম্প্রতি গুগল ফেসবুক ম্যাসেন্জার এর সাথে সরাসরি প্রতিযোগীতায় নামতে একটা ম্যাসেন্জার অ্যাপ বাজারে ছাড়ছে। অ্যাপটির নাম দেয়া হয়েছে Google Allo। গুগল এই Google Allo কে জনপ্রিয় করার জন্য উঠে পরে লেগেছে। এর মধ্যে গুগল Google Allo তে বিশেষ কিছু ফিচার অ্যাড করেছে।তার মধ্যে রয়েছে গুগল ভার্চুয়াল অ্যাসিসট্যান্ট। এই ভার্চুয়াল অ্যাসিসট্যান্ট এর মাধ্যমে আপনার সামনে কিছু উত্তর হাজির হবে। যার মাধ্যমে আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী উত্তর দিতে পারবেন।

Google_Allo_App_for_Android

অবাক হলে ও সত্যি যে ফেসবুক মেসেঞ্জার এর বট Google Allo এর বট কে নকল করেছে। কিন্তু রিপ্লে সাজেশনটা কপি করতে পারি নাই। সুতরাং, এই দিক থেকে নিঃসন্দেহে বলা যায় ফেসবুক মেসেঞ্জার থেকে Google Allo অনেকটা এগিয়ে আছে।

এছাড়াও Google Allo এর বেশ কিছু ফিচার রয়েছে। এগুলো হলঃ খবর, গান, গেমস, ফানি ভিডিও, কোন রেস্টুরেন্ট এর লোকেশন, অ্যালার্ম ইত্তাদি। আশা করা যাচ্ছে অদূর ভবিষ্যতে আর নতুন নতুন ফিচার গুগল অ্যাড করবে।

Google Allo এর সকল ফিচার উপভোগ করতে হলে আপনার স্মার্ট ফোন এ অবশ্যই নেট কানেকশন থাকতে হবে।

আজ এই পর্যন্ত!! সবাই ভালো থাকবেন।
কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করে জানাবেন। ধন্যবাদ!!

দেখে নিন কিভাবে টেনডা ওয়াইফাই রাওটার কনফিগারেশন করবেন!! (যারা জানেন না তাদের জন্য)

Now Reading
দেখে নিন কিভাবে টেনডা ওয়াইফাই রাওটার কনফিগারেশন করবেন!! (যারা জানেন না তাদের জন্য)

আসসসালামু আলাইকুম!! কেমন আছেন সবাই? আশা করি সবাই ভালোই আছেন।

আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে খুব সহজেই টেনডা ওয়াইফাই রাওটার কনফিগারেশন করবেন। আমরা যারা ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যবহার করি সবারই ওয়াইফাই রাওটার ব্যবহার করার প্রয়োজন পরে। কারন ব্রডব্যান্ড ইউজাররা একটা ডিভাইস ই ইন্টারনেট ব্যবহার করেন না।একের অধিক ডিভাইস এ ইন্টারনেট ব্যবহার করার জন্য দরকার হয় রাওটার এর।

সুতরাং, আমরা যারা নতুন রাওটার কিনি তাদের মধ্যে অনেকই রাওটারটা ঠিক মত কনফিগারেশন করতে পারেন না বিধায় ইন্টারনেট ও ব্যবহার করতে পারেন না।মুলত তাদের জন্য আমার এই টিউন। সাধারনত সব ব্র্যান্ড এর রাওটার কনফিগারেশন এক ই রকম। আমি টেনডা ওয়াইফাই রাওটার এর কনফিগারেশনটা দেখাচ্ছি।

১) টেনডা ওয়াইফাই রাওটার এর ডিফল্ট ip হল http://192.168.0.1/login.asp

২) Ip টি যেকোনো ব্রাউজার এ লিখে এন্টার দেন।

৩) এই রকম একটা পেজ আসবে।

৪) ইউজার নেম দেয়া থাকবে। আপনি password দিবেন admin.সব রাওটার এর ই ডিফল্ট password admin দেয়া থাকে। আপনি পরে চাইলে এটা পরিবরতন ও করতে পারবেন।

৫) এরপর এই রকম একটা পেজ আসবে।

৬) PPPoE টাইপ সিলেক্ট করে আপনার ISP এর ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে ওকে করুন।

৭) এটা ই মুলত প্রাইমারি সেটআপ ইন্টারনেট Connect করার জন্য।

আশা করি সবাই বুজতে পেরেছেন।

সবাই ভালো থাকবেন। আল্লাহ হাফেয!!!

Ref: লেখাটি আমার পূর্বের টেকটিউনস এ প্রকাশিত। লিঙ্ক এখানে ।

সবাই ভালো থাকবেন। আল্লাহ হাফেয!!!

সবার আগে জীবনের মানে বুঝতে হবে

Now Reading
সবার আগে জীবনের মানে বুঝতে হবে

আসসালামু আলাইকুম!! বনানী তে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘটনাটি নিয়ে আমার কিছু কথা!!

বনানীতে দুই তরুণীকে ধর্ষণের আসামী সাফাত ও সাদমান এর জন্য আমার খুব মায়া হচ্ছে। নাহ! তাদের করা অপরাধের জন্য মায়া হচ্ছে না। মায়াটা ভিন্ন এঙ্গেল থেকে হচ্ছে। চলুন ধর্ষন করার আগের দিন পর্যন্ত তাদের লাইফ নিয়ে কিঞ্চিত্‌ বিশ্লেষন করি।

প্রথমত, সাফাত একজন উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তান। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে বলতে পারেন সোনার চামিচ মুখে নিয়ে জন্মানের মতো। বাবা ছিলেন আপন জুয়েলার্স এর মালিক। বিশাল ব্যাপার। হয়তো জন্মের পর অর্থকষ্ট কি তা কোনদিন বুঝতেও পারে নি। সে হিসাবে সে সৌভাগ্যবান হয়েই জন্মেছে। কারন বাংলাদেশের প্রায় আনুমানিক ৭০ শতাংশ পরিবারের ছেলেমেয়েরা কোন না কোন ভাবে অর্থকষ্টটা উপলব্ধি করে। যা হয়তো তার কোনদিন করতে হয়নি। যেখানে লক্ষ লক্ষ তরুনের চাকরি খোজা নিয়ে মাথাব্যাথা হয়ে যায়, সেখানে তো তার জীবন পূর্ব প্রতিষ্ঠিত। দেশের এভারেজ ছেলেদের সবচেয়ে বড় দুই টেনশন ১। চাকরি ও ২। অর্থ। এ দুইটা নিয়ে তার কোন সমস্যাই ছিলো না। সে চাইলেই একটা সুন্দর জীবনের অধিকারী হতে পারতো। অথচ, আজ সে ধর্ষন মামলার আসামী হয় গ্রেফতার হয়েছে। কি নিকৃষ্ট! কি জঘন্য মানুষিকতার হলে কেউ জীবনের এ সামান্য মানেটুকুও বুঝতে পারে না ভাবতে পারেন?

দ্বিতীয়ত, বিভিন্ন সোর্স থেকে পাওয়া তথ্যমতে, সাফাত প্রেম করে বিয়ে করেছে। তার বউ ও একজন মডেল। খুব সম্ভবত, দুই বছর প্রেম করার পর বিয়ে করেছে। তার সাবেক বউয়ের দেওয়া তথ্যমতে, বিবাহিত জীবনে সাফাত এর মধ্যে অস্বাভাবিকতা খুজে পায়নি। একজন ভালো স্বামীর মতোই পরিবারে সময় দিয়েছে। হঠাত্‌ একদিন বউকে ডিভোর্স লেটার পাঠায় যার কারন তার বউ নিজেও জানে না! তার কিছুদিন পর দুই তরুনীকে ধর্ষন করে আজ দেশের সবচেয়ে জঘন্য ব্যক্তিত্বে পরিনত হয়েছে। কি অদ্ভুত। কি জঘন্য! সে প্রেম করে বিয়ে করেছে, তার বিবাহিত জীবন ছিলো গোছালো। অথচ তাকে অন্য দুই তরুনীকে ধর্ষন করার মামলায় গ্রেফতার হতে হয়েছে। কি জঘন্য! কি বিকৃত মানুষিকতা! তার এ সুখী জীবনের মানে সে বুঝে ওঠতে পারে নি। প্রেম করে বিয়ে করার পর ও আবার ধর্ষন করার মতো বিকৃত রুচি একজন অমানুষেরই কেবল থাকতে পারে। সে প্রেম ভালোবাসার গুষ্ঠি উদ্ভার করে দিয়েছে একদম!!!

তৃতীয়ত, তার বাবা একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। আমার ধারনা মতে, কোন বাবাই চায় না যে, তার ছেলে ধর্ষন করে দেশের হট টপিক হয়ে উঠুক আর নিজের ব্যবসায়ের বারোটা বাজিয়ে দিক। নিশ্চই জেনে থাকবেন যে, তার বাবার ব্যবসায়ের লেনদেনের হিসাবে চেয়েছে শুল্ক বিভাগ। ব্যাস। এইখানেই ভীষনভাবে ধরা খেয়ে যাবে তার বাবার ব্যবসা। একমাত্র কুলাঙ্গার না হলে কোন ছেলে তার লালসার কারনে বাবার প্রতিষ্ঠিত ব্যবসা নষ্ঠ করতে পারে না। ধিক্বার জানাই এ শুয়ায়ের বাচ্চাকে! ওরে ফাসি দিলেও তার শাস্তির কমতি হয়ে যাবে।

সর্বশেষ, তার সাবেক স্ত্রীর দেওয়া তথ্যমতে, সে সপ্তাহে পায় দুই তিন দিন রেইনট্রি হোটেলে রাত্রী যাপন করতো। আর সঙ্গী হিসাবে থাকতো অনেক মডেল নায়িকারা। হ্যা। কথাটি তিতা হলেও সত্যি যে, সে চাইলে তো আর মেয়ের অভাব ছিলো না। আমি ইন্সপায়ার করছি না। এইটা সত্যি যে, সে চাইলে আরো অনেক রাত্রী যাপন করতে পারতো যা হয়তো কোনদিন ধর্ষন খাতায় নাম উঠতো না (উচ্চ বিত্তদের কাছে এটা কোন বড় বিষয় নয়। আমি কি বুঝাতে চেয়েছি আশাকরি তা বুঝতে পেরেছেন)। অথচ, তাকে অন্য দুইজন তরুনীকেই মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে ধর্ষন করতে হলো। ফলাফল? হয়তো অনেক বড় শাস্তি হবে। আমি চাইবো একটা নজীরবিহীন শাস্তি যেনো তাদের দেওয়া হয়। এই কুলাঙ্গারদের বেচে থেকে কোন লাভ নেই।

বিকৃত রুচি মানুষকে কতটা নিচে নামিয়ে দেয় তা একবার ভাবতে শিখুন। নিজের জীবনকে সঠিকভাবে মূল্যায়ন করতে না পারলেই আপনার মাঝে অসভ্য ও বিকৃত রুচির জন্ম নিবে। আল্লাহ আপনাদের সবাইকে ও আমাকে এইসব বিকৃত রুচি থেকে বাচিয়ে রাখুক। আমীন।

সবাই ভালো থাকবেন। ধন্যবাদ!!

১০০ ডলার এর নিচে কিন্তু কিভাবে অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট ক্যান্সেল করবেন দেখে নিন!

Now Reading
১০০ ডলার এর নিচে কিন্তু কিভাবে অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট ক্যান্সেল করবেন দেখে নিন!

আসসালামু আলাইকুম। সবাই কেমন আছেন? আশা করি সবাই ভালো আছেন।

আজ আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করবো ১০০ ডলার এর নিচে Balance থাকা সত্তেও কিভাবে অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট ক্যান্সেল করবেন।

আমাদের যাদের অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট এ ১০০ ডলার এর নিচে আছে তারা খুব সহজেই অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট এ লগ ইন করে অ্যাকাউন্ট ইনফর্মেশন ট্যাব থেকে ক্যান্সেল অপশন এ ক্লিক করলে অ্যাকাউন্ট ক্যান্সেল করে নিতে পারেন। কিন্তু যাদের অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট এ ক্যান্সেল অপশন নাই তারা কি করে অ্যাকাউন্ট ক্যান্সেল করবে?? আমার এই পোস্টটি মুলত তাদের জন্যই যারা অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট ক্যান্সেল করতে চাচ্ছেন কিন্তু ক্যান্সেল অপশন পাচ্ছেন না। অপশন না পাবার মুল কারন হল অ্যাডমব এ অ্যাকাউন্ট এর জন্য।

প্রথমত, আপনি আপনার অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট এ গেলে এই রকম দেখতে পারবেন

Capture1

 

এখানে দেখুন ক্যান্সেল অপশন টি নেই। এখন আপনি আপনার অ্যাডমব অ্যাকাউন্ট এ লগ ইন করবেন। এবং অ্যাকাউন্ট ইনফর্মেশন এ গেলে আই রকম দেখতে পারবেন

Capture2

এখন, অ্যাকাউন্ট স্ট্যাটাস এর পাশে Learn More এ ক্লিক করুন। এখন এই রকম একটি পেজ আসবে

Capture3

পেজটি আসার পর Submit New Request এ ক্লিক করুন। এরপর এই পেজ আসবে

Capture4

এখন এই ফর্মটি সঠিকভাবে ফিলআপ করে সাবমিট করুন। সাবমিট করার ২-৩ দিন পর আপনার মেইল এ একটি কনফারমেশন মেইল আসবে যে আপনার অ্যাডমব অ্যাকাউন্টটি ক্যান্সেল হয়েছে। অ্যাডমব অ্যাকাউন্ট ক্যান্সেল হবার পরই আপনি আপনার মেইল এ অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্টটি ক্যান্সেল হবার ও কনফারমেশন মেইল পাবেন।
এভাবেই আপনি আপনার অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট এ ক্যান্সেল অপশন না আসলেও ক্যান্সেল করে আপনার অবশিষ্ট টাকা আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এ নিয়ে আসতে পারেন ৭ দিন এর মধ্যে।
আজ এই পর্যন্ত!! সবাই ভালো থাকবেন।
কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করে জানাবেন। ধন্যবাদ!!