5
New ফ্রেশ ফুটপ্রিন্ট
 
 
 
 
 
ফ্রেশ!
REGISTER

কে সেই হামলাকারী কেনই বা তার এই হামলা???

Now Reading
কে সেই হামলাকারী কেনই বা তার এই হামলা???

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলাকারী ব্যক্তি অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক। হামলাকারীর পরিচয় নিশ্চিত করে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেন, হামলাকারী কট্টর ডানপন্থী। তাঁর নাম প্রকাশ করেননি তিনি।
নিউজিল্যান্ডের একটি গণমাধ্যমে বলা হয়, ওই হামলাকারী অস্ট্রেলিয়া থেকে এসেছেন। দুই বছর ধরে তিনি এ হামলার পরিকল্পনা করছেন। হামলাকারী জানিয়েছেন, ইউরোপের দেশগুলোতে বিদেশি হামলাকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে এ হামলার পরিকল্পনা করেন তিনি। হামলার আগে ৭৩ পাতার টুইটারে একটি ইশতেহার আপলোড করেন ওই হামলাকারী। সেখানে তিনি এই হামলাকে সন্ত্রাসী হামলা বলে দাবি করেন। এ ছাড়া অভিবাসনের বিরুদ্ধে অবস্থানের কথা জানান। তাই নিজেকে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থক বলে উল্লেখ করেন।

অভিবাসীবিদ্বেষী এ হামলাকারী তার ইশতেহারে বলেছেন, হামলা করে তিনি অভিবাসীদের দেখাতে চান যে, আমাদের ভূমি কখনও তাদের ভূমি হবে না। যতক্ষণ শ্বেতাঙ্গরা জীবিত থাকবেন। তিনি মুসলমান এবং ধর্মত্যাগীদের ঘৃণা করেন। ধর্মত্যাগকারীদের তিনি রক্তের সঙ্গে প্রতারণাকারী হিসেবে উল্লেখ করেন।

নিজের লেখা ওই ইশতেহারে ব্রেনটন জানিয়েছেন, তিনি নিম্নবিত্ত শ্রমজীবী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। নিজের পরিবারের লোকজনের ভবিষ্যৎ নিশ্চিতের জন্য পদক্ষেপ গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তাই ইউরোপের মাটিতে সরাসরি অভিবাসীদের সংখ্যা কমাতেই তিনি এই হামলা চালিয়েছেন। একই সঙ্গে ইসলামপন্থী জঙ্গিদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে আল নুর মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা দেড়টার দিকে মসজিদে নামাজ শুরুর ১০ মিনিটের মধ্যে একজন বন্দুকধারী সিজদায় থাকা মুসল্লিদের ওপর গুলি ছোড়ে। বন্দুক হামলার পর মসজিদ থেকে লোকজন আতঙ্কিত হয়ে ছোটাছুটি করতে থাকে। মসজিদের ভেতর কয়েকজনের প্রাণহানি ঘটেছে। পুলিশ এখনো হতাহত ব্যক্তির সংখ্যা নিশ্চিত করেনি। এ ঘটনাকে ‘গুরুতর ঘটনা’ উল্লেখ করে সতর্ক অবস্থান নিয়েছে পুলিশ। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে শহরের হাসপাতাল ও সব স্কুলে যে যেভাবে আছে সেভাবেই ভেতরে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বাসিন্দাদের বাসা থেকে বের না হতে নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ। এ ছাড়া ঘটনাস্থল থেকে লোকজনকে দূরে থাকতে বলা হয়েছে।

ক্রাইস্টচার্চের আল নূর মসজিদে জুমার নামাজ আদায়রত মুসলিমদের ওপর হামলা চালানোর পরে কাছাকাছি শহরতলি লিনউডের মসজিদে হামলা চালানো হয়। তবে দ্বিতীয় মসজিদে হামলাকারী একই ব্যক্তি কি না, তা এখনো নিশ্চিত করা হয়নি। প্রত্যক্ষদর্শী কারও কারও মতে, হামলাকারী একাধিক ছিলেন। হামলায় জড়িত সন্দেহে এক নারীসহ চারজনকে পুলিশ আটক করেছে। একটি গাড়িতে স্থাপন করা বিস্ফোরক উদ্ধার করে তা নিষ্ক্রিয় করেছে পুলিশ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছে (আরসিবিসি)

Now Reading
বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছে (আরসিবিসি)

রিজার্ভ চুরির ঘটনায় ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং করপোরেশন (আরসিবিসি) মানহানির’ মামলা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে ‘। নিজের দেশের জনগণকে ধোঁকা দিতেই এই মামলা করেছেন বলে মন্তব্য করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

আরসিবিসির কর্মকর্তাদের আচরণটা আমার আইনী আচরণ বলে মনে হয়নি। ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোয়াসু ইজুমির সঙ্গে বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে তিনি একথা বলেন। তারা নিজেদের দেশের মানুষকে ধোঁকা দেওয়ার জন্য মামলাটা করেছে বলে মন্তব্য করলেন তিনি।

ফিলিপিন্স সরকার ফিলিপাইনের সিনেট পর্যন্ত হ্যাকিংয়ের কারণে বা আচরণে বা কন্ডাক্টের জন্য আরসিবিসিকে দায়ী করেছে বলে জানান তিনি। সেখানে বাংলাদেশ আইনী পন্থায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করলে সেটা মানহানিকর কিছু নয়।

গত ২ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে আরসিবিসির বিরুদ্ধে মামলা করে বাংলাদেশ ব্যাংক। তিন বছর আগে হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে নিউ ইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক থেকে বাংলাদেশের রিজার্ভের চুরি যাওয়া অর্থ উদ্ধারের আশায়। তার জবাবে গত ৬ মার্চ আরসিবিসি মানহানির অভিযোগ এনে ফিলিপিন্সের সিভিল কোর্টে বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে পাল্টা একটি মামলা করে। অবশ্য বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ফজলে কবির জানিয়েছেন আরসিবিসির মামলায় কোনো সমস্যা হবে না। কেন্দ্রীয় ব্যাংক আরসিবিসির মামলাকে ‘সময়ক্ষেপণের কৌশল’ হিসেবেই দেখছে।

এক ছাত্রলীগ নেতাকে রগ কেটে হত্যা করলেন আরেক ছাত্রলীগ নেতা

Now Reading
এক ছাত্রলীগ নেতাকে রগ কেটে হত্যা করলেন আরেক ছাত্রলীগ নেতা

দুর্বৃত্তরা রগ কেটে হত্যা করেছে সোহেল মিয়া নামের এক ছাত্রলীগ নেতাকে। নিহত ছাত্রলীগ নেতার বয়স ২৭ বছর। বুধবার রাতে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার ভোলাব ইউনিয়নের টাওড়া এলাকায়। এ ঘটনায় পুলিশ সন্দেহভাজন চারজনকে আটক করেছে বলে জানা যায়।

জানা যায় নিহত ছাত্রলীগ নেতা সোহেল মিয়া ছিলেন ভোলাব ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক। তার বাবার নাম নুরুল ইসলাম।

বুধবার রাত আনুমানিক ১০টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত ছাত্রলীগ নেতা সোহেলকে তুলে নিয়ে দুই পায়ের রগ কেটে দেয় এবং পিটিয়ে আহত করে বলে মন্তব্য করেন ভোলাব তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শহিদুল আলম এবং পরে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে চলে যায়। পরিবারের লোকজন প্রথমে তাকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে এই মুমূর্ষু অবস্থায়। কিন্তু সেখানে কোন ভরাষা না পেয়ে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এবং নেয়ার পথে মারা যান ছাত্রলীগ নেতা সোহেল মিয়া।

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে স্থানীয় বিএনপির কর্মীরা আমার ছেলেকে রগ কেটে ও পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে মন্তব্য করেন নিহত সোহেল মিয়ার বাবা নুরুল ইসলাম। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান রূপগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি মাহমুদুল হাসান।

পিকআপের ধাক্কায় মিরসরাইয়ের এক বিদ্যালয়য়ের শিক্ষিকা নিহত

Now Reading
পিকআপের ধাক্কায় মিরসরাইয়ের এক বিদ্যালয়য়ের শিক্ষিকা নিহত

এক স্কুল শিক্ষিকা নিহত হয়েছেন মিরসরাইয়ে বেপরোয়া গতির পিকআপের ধাক্কায়। নিহত স্কুল শিক্ষিকার নাম মোসাম্মৎ রহিমা আক্তার। মোসাম্মৎ রহিমা আক্তার উপজেলার আবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিষয়ের শিক্ষিকা ছিলেন। বুধবার সন্ধ্যায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চিনকী আস্তানা চট্টগ্রাম শহর এলাকায় থেকে ট্রেনিং শেষ করে বাড়ি যাওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
রহিমা আক্তার আবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন বলে জানান আবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবদুল্লাহ খান । তিনি বিজ্ঞান বিভাগের ক্লাশ নিতেন। বুধবার টিসিজি (বিজ্ঞান) বিষয়ে ৬দিনের প্রশিক্ষণ কোর্সে অংশগ্রহণের জন্য চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের কলকাকলী উচ্চ বিদ্যালয়ে যান। প্রতিদিন সকালে গিয়ে প্রশিক্ষণ ক্লাশ শেষে আবার সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে আসেন। আগামী শনিবার (১৬ মার্চ) কোর্স শেষ হওয়ার কথা ছিল।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার চিনকী আস্তানা স্টেশনে ট্রেন থেকে নেমে বাড়ি যাওয়ার জন্য ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক পার হতে গিয়ে বেপরোয়া গতির একটি পিকআপের ধাক্কায় ঘটনাস্থলে মারাত্মক আহত হন রহিমা আক্তার, জানালেন প্রধান শিক্ষক মোঃ আবদুল্লাহ খান। দুর্ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে রহিমা আক্তারকে বারইয়ারহাট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় নিহতের জানাযা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

রহিমা আক্তার টিসিজি বিজ্ঞান বিষয়ে প্রশিক্ষণ শেষে চট্টগ্রাম শহর থেকে গ্রামের বাড়ি ফেরার পথে দুর্ঘটনার শিকার হন বলে মন্তব্য করেন নিহতের মামা কামরুল হুদা। রহিমা বেগম এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জননী ছিলেন বলেও জানান তিনি। উপজেলার ৬ নম্বর ইছাখালী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের জয়নগর গ্রামের ব্যবসায়ী নাদেরুজ্জামান প্রকাশ নাদু সওদাগরের স্ত্রী।

৫ দিনের জন্য লেনদেন বন্ধ ডাচ-বাংলা ব্যাংকের

Now Reading
৫ দিনের জন্য লেনদেন বন্ধ ডাচ-বাংলা ব্যাংকের

সিস্টেম আপগ্রেডের জন্য ৫ দিন ডাচ-বাংলা ব্যাংকের লেনদেন বন্ধ থাকবে। প্রযুক্তিগত উন্নয়নে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের এটিএম, পোজ ও এজেন্ট ব্যাংকিং সেবা এই দিনগুলোতে বন্ধ থাকবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমতি সাপেক্ষে প্রযুক্তিগত উন্নয়নের কাজ শুরু হবে বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) রাত ১২ টা ১ মিনিট থেকে মঙ্গলবার (১৯মার্চ) পর্যন্ত।
বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমতি সাপেক্ষে সিস্টেম আপগ্রেডের জন্য আগামী ১৪ মার্চ (বৃহস্পতিবার) রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে ১৯ মার্চ (মঙ্গলবার) সকাল ৬টা পর্যন্ত শাখা, এটিএম বুথসহ পিওএস এবং এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে বলে জানান ব্যাংকের জনসংযোগ কর্মকতা সগির আহমেদ ।
এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশ করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের সিস্টেম আপগ্রেডের জন্য আগামী ১৪ মার্চ (বৃহস্পতিবার) রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে ১৯ মার্চ (মঙ্গলবার) সকাল ৬টা পর্যন্ত শাখা, এটিএম বুথসহ পিওএস এবং এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।
প্রসঙ্গত, বর্তমানে দেশে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ৪ হাজার ৬৬৮টি এটিএম বুথ রয়েছে, যার বেশিরভাগেই ফার্স্টট্রাক কার্যক্রম পরিচালিত হয়। গ্রাহকদের আরও উন্নত সেবা দিতে ব্যাংকের সফটওয়্যার আপগ্রেড করার কাজ চলবে। ফলে মোট পাঁচদিন ব্যাংকের সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। এরইমধ্যে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়ে এবং গ্রাহকদের এসএমসের মাধ্যমে বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান ব্যাংকের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ (জনসংযোগ) ছগির আহমেদ। এসময় গ্রাহকদের সাময়িক অসুবিধার জন্য ব্যাংকটির পক্ষ থেকে দুঃখও প্রকাশ করেন তিনি।

৬০০ বোতল ফেন্সিডিল সহ আটক ট্রাক ড্রাইভার

Now Reading
৬০০ বোতল ফেন্সিডিল সহ আটক ট্রাক ড্রাইভার

মানিকগঞ্জ ঘিওর উপজেলা থানাধীন নদীর উত্তরপার পঞ্চরাস্তার মোড় এলাকা থেকে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন(র‌্যাব)-৪ এর একটি দল ৬০০ বোতল ফেন্সিডিল ভর্তি ট্রাক চালকসহ আটক করেছে। গতকাল বুধবার দুপুরে এই মাদকের চালন আটক করা হয়। জানা গেছে র‌্যাব-৪ ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার অতিঃ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আতিকুল হকের নেতৃত্বে আটক করা হয় ট্রাক চালককে।
সেসময় উক্ত ট্রাক থেকে ৩০০ বস্তা চাউলও উদ্ধার করা হয় বলে জানা গেছে। আর মাদকের সাথে আটক করা হয়। মোঃ জমির আলী (৩৭) নামের মাদক কারবারিকে। জানা যায় সাভারের যাদুরচর গ্রামের মৃত আব্দুল আলীর ছেলে মোঃ জমির আলী।
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পেরেছেন, দিনাজপুর থেকে আসা পিরোজপুর ট-১১-০২৪২ নম্বরের একটি ট্রাকে করে বিপুল পরিমান মাদকের চালান আসছে বলে জানালেন র‌্যাব-৪ ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার অতিঃ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আতিকুল হক। এ তথ্য পাওয়ার পর তার নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি টিম ওত পেতে ছিল সেখানে। এবং অবশেষে সক্ষম হয় এই বিপুল পরিমান মাদকের চালান আটক করতে।
র‌্যাব এলিট ফোর্স হিসেবে আত্মপ্রকাশের সূচনালগ্ন থেকেই বিভিন্ন ধরনের অপরাধ নির্মূলের লক্ষ্যে অত্যন্ত আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করে আসছে বলে মন্তব্য করলেন র‌্যাব-৪ ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার। তিনি আরো বলেন খুন, ডাকাতি, দস্যুতা, ধর্ষণ, অপহরণ, চাঁদাবাজি, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সন্ত্রাসী গ্রেফতার এবং জঙ্গীবাদের মত ঘৃণ্যতম অপরাধ নির্মূল ও রহস্য উৎঘাটনের পাশাপাশি মাদক দ্রব্য উদ্ধার, মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারসহ নেশার মরণ ছোবল থেকে তরুন সমাজকে রক্ষা করার জন্য র‌্যাবের জোড়ালো তৎপরতা অব্যাহত আছে। র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা আরো জানান মাদক আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে আটক জমির আলীর বিরুদ্ধে।
দিনাজপুর জেলার সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় এই ফেন্সিডিল আমদানী করে মানিকগঞ্জসহ সাভার ও আশুলিয়ার বিভিন্ন জায়গায় খুচরা বিক্রেতার নিকট বিক্রয় করে থাকেন বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন আটক হওয়া মাদক কারবারি মোঃ জমির আলী।

পুনঃনির্বাচনের দাবির সাথে সহমত পোষন করলেন নুরুল হক নুর

Now Reading
পুনঃনির্বাচনের দাবির সাথে সহমত পোষন করলেন নুরুল হক নুর

বাম ছাত্রজোটের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী বলেন আগামী তিন দিনের মধ্যে যদি ডাকসু নির্বাচন বাতিল করে পুনঃ তফসিল দেওয়া না হয় তাহলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অচল করে দিতে বাধ্য হব। সেইসঙ্গে এই নির্বাচন পরিচালনার সঙ্গে যাঁরা যুক্ত ছিলেন, তাদের প্রত্যেককে পদত্যাগ করতে হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন এবং সেইসাথে মামলা প্রত্যাহর করার কথাও বলেন তিনি। যদি এসব করা না হয় তাহলে আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অচল করে দিতে বাধ্য হব বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরব রক্ষার্থে বলে মন্তব্য করলেন তিনি।
আজ বুধবার দুপুরে ছাত্রলীগ বাদে পুননির্বাচন চেয়ে উপাচার্যের কার্যালয়ের কাছে স্মারকলিপি নিয় যায় ভোট বর্জনকারী ডাকসুর পাঁচটি প্যানেল। স্মারকলিপি প্রদানের পর উপাচার্যের প্রতিক্রিয়া নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে কথা বলেন লিটন নন্দী।

লিটন নন্দী বলেন, ‘আমরা উপাচার্যকে বলেছি। আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে, সেগুলো প্রত্যাহার করতে হবে। যারা বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্থিতিশীল পরিবেশ করে, তাদের ছাড় দেওয়া হবে না। বরং তাদের বিরুদ্ধে ক্রিমিনাল অ্যাক্টের মামলা দেওয়া হবে। আমরা বলেছি, বিশ্ববিদ্যালয়ে এত দিন যারা ক্রিমিনাল অ্যাক্ট করলেন, তাঁদের বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তিনি কোনো উত্তর দেননি।’
আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা শেষে সকলের কর্মপ্রয়াস, আন্তরিকতা, সময় শ্রম সেগুলোকে নস্যাৎ করার এখতিয়ার, সেটি আমার নেই বলে অপর এক সংবাদ সম্মেলনে মন্তব্য করেন পুনর্নির্বাচনের বিষয়ে উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান। প্রত্যেকটি প্রক্রিয়া, প্রত্যেকটি কার্যক্রম রীতিনীতি মেনে হবে বলে জানান তিনি।’
এর আগে দুপুর ১২টা থেকে গতকালের ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এর পরে তাঁরা স্মারকলিপি নিয়ে উপাচার্যের কার্যালয়ে যান।
গতকাল মঙ্গলবার ডাকসু নির্বাচনের পরদিন দিনটি ছিল নাটকীয়তায় ভরা। গত সোমবার গভীর রাতে ক্ষোভে ফেটে পড়েছিলেন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা, যখন সহসভাপতি (ভিপি) পদে বিজয়ী হিসেবে নুরুল হকের নাম ঘোষণা করা হয়। নুরুলকে ‘শিবির’ আখ্যা দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি তোলেন তাঁরা। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ক্যাম্পাসে এলে তাঁকে ধাওয়াও দেওয়া হয়। এরপর হঠাৎ এসে নুরুলকে বুকে জড়িয়ে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী। এবং তাৎক্ষনিক পরিস্থিতি পাল্টে যায়।
ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের যে ঘোষণা দিয়েছিলাম, তা থেকে আমরা সরে এসেছি বলে জানান নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক। কিন্ত অন্য সংগঠন তাঁর দেওয়া এই ঘোষণা মেনে না নেওয়াতে তোপের মুখে পড়লেন নুর এবং রাতে অন্যান্য ছাত্রসংগঠনের সঙ্গে সহমত পোষণ করে পুননির্বাচন চান বলে ঘোষণা দেন তিনি।

রবিউল হত্যায় যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিলেন তিনজনকে, সাথে ১০ হাজার টাকা জরিমানা

Now Reading
রবিউল হত্যায় যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিলেন তিনজনকে, সাথে ১০ হাজার টাকা জরিমানা

মেহেরচন্ডি এলাকার নসু মিয়ার ছেলে রবিউলের সঙ্গে ঐ এলাকার এক নারীর ল্যাপটপ চুরির ঘটনা নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থী রবিউল ইসলামকে ২০১৩ সালে ১৪ এপ্রিল বিভিন্ন দেশিয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে তাকে হত্যা করা হয়। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী রবিউল ইসলাম হত্যা মামলায় তিনজনকে আজ বুধবার দুপুরে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত সেইসঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্ত প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ রায় ঘোষণা করেন রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার।
রবিউল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন মেহেরচন্ডী এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। তিনি ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অ্যান্ড কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি।
দন্ড পাওয়া আসামিরা হলেন নগরের মেহেরচন্ডি এলাকার হাসান হকের ছেলে সেতু ইসলাম, বাবু কসাইয়ের ছেলে বাবলা ও বাবলু ড্রাইভারের ছেলে সোহাগ। এছাড়াও এ মামলায়া খালাস দেওয়া হয়েছে রাজন, সুরুজ, কাজল, শাকিব, সাঈদ, রেজাউল ও নিটুল নামের মোট সাতজনকে। রায় ঘোষনার সময় সেতু ছাড়া সবাই আদালতে হাজির ছিলেন।
বাদী ও আসামি পক্ষ উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা জানিয়েছেন এই রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে ।
জানা গেছে, ২০১৩ সালের ১৪ এপ্রিল পয়লা বৈশাখে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা মাঠে রবিউলের ওপর রড, পেপসির বোতলসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে তাঁকে আহত করেন দুর্বৃত্তরা। রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। এ ঘটনার পরের দিন ১৫ এপ্রিল নিহত ছাত্রলীগ নেতার বড় ভাই শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে নগরের বোয়ালিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশের মেহেরচন্ডী এলাকার সেতু, বাবু, বাবলা, সোহাগ, সাঈদ, রেজাউল, নিটুল, রাজন, সুমন, জামিল, কোয়েল, সুরুজ, মিঠুসহ ১২ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ৫ থেকে ৬ জনকে মোট ১৮ জনকে আসামি করা হয়।
তিন দফায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পরিবর্তনের পর ২০১৪ সালের ৫ মে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বোয়ালিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ওমর শরীফ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এতে বাদী আদালতে নারাজি দিলে আদালত পুনরায় তদন্তের জন্য নগর গোয়েন্দা পুলিশকে দায়িত্ব দেন। এখানেও কয়েক দফা তদন্তকারী কর্মকর্তা পরিবর্তনের পর ২০১৫ সালের ২৪ এপ্রিল তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের এসআই রাশেদুল ইসলাম আদালতে ১২ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন। চাঞ্চল্যকর মামলা হিসেবে ২০১৮ সালে মামলাটি রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরিত হয়। শুনানি শেষে আজ বিচারক এই রায় দেন।
রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে বাদী পক্ষের আইনজীবী এন্তাজুল হক। উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা জানিয়েছেন। এই রায়ে ন্যায়বিচার পাইনি বলে মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন আসামিদের ফাঁসির রায় প্রত্যাশা করেছিলাম। ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্য তিনি উচ্চ আদালতে যাবেন বলে জানান। সেইসাথে আসামি পক্ষের একজন আইনজীবীও বলেন, তারাও যাবেন উচ্চ আদালতে। একই সঙ্গে তিনি আশা প্রকাশ করেন উচ্চ আদালতে দন্ড পাওয়া আসামিরা অব্যাহতি পাবেন।

আটক হলেন তিন মাদক ব্যবসায়ী

Now Reading
আটক হলেন তিন মাদক ব্যবসায়ী

গাঁজাসহ আটক হয়েছেন তিন ব্যক্তি। রাজবাড়ির গোয়ালন্দে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের হাতে আটক হন এই তিন ব্যক্তি। আটক তিন ব্যক্তিকে গতকাল মঙ্গলবার বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গোয়ালন্দের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী হাকিম মো. আবদুল্লাহ আল-মামুন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন গোয়ালন্দ পৌরসভার পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের জুড়ান মোল্লার পাড়ার আবুল কাসেম শেখ (৪২), একই ওয়ার্ডের ক্ষুদিরাম সরকার পাড়ার সুরেশ বিশ্বাস (৫০) এবং উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের শামসু মাস্টার পাড়ার আজাদ খান (৫০)।

গতকাল বিকেল পাঁচটার দিকে একটি দল দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট এলাকা থেকে ২৭ পুরিয়া গাঁজাসহ আবুল কাসেম শেখ, আজাদ খান ও সুরেশ বিশ্বাসকে গ্রেপ্তার করে, রাজবাড়ী জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক তানভির হোসেন খানের নেতৃত্বে জানালেন ভ্রাম্যমাণ আদালত । তাঁরা দীর্ঘদিন ধরে গাঁজাসহ বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্যের ব্যবসা করে আসছিলেন বলে জানা যায়। তাদের আটক করা হয় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে । রাতেই তাদের সহকারী কমিশনারের (ভূমি) কার্যালয়ে হাজির করা হয় এবং রাতেই তাদের রাজবাড়ী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে এ সময় তাঁরা তাদের অপরাধ স্বীকার করায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবদুল্লাহ আল-মামুন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে আবুল কাসেম শেখ ও আজাদ খানকে এক বছর করে এবং সুরেশ বিশ্বাসকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

আইসিইউ থেকে ওবায়দুল কাদের এখন কেবিনে, আগামী সপ্তাহে সার্জারি

Now Reading
আইসিইউ থেকে ওবায়দুল কাদের এখন কেবিনে, আগামী সপ্তাহে সার্জারি

আজ বুধবার সকালে আইসিইউ (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে। সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন ওবায়দুল কাদের। আজ সকালে ওবায়দুল কাদেরর চিকিৎসা সমন্বয়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) পরিচালক অধ্যাপক আবু নাসার রিজভী এ তথ্য জানান।

ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা ভালো বলে মন্তব্য করলেন অধ্যাপক আবু নাসার রিজভী। আজ সকাল থেকে তাঁকে নরম খাবার দেওয়া হচ্ছে। আগামী সপ্তাহে সুবিধাজনক সময়ে তাঁর বাইপাস সার্জারির প্রস্তুতি নিচ্ছেন চিকিৎসকেরা।
এর আগে সোমবার ওবায়দুল কাদেরের মেডিকেল বোর্ডের সঙ্গে কথা বলে অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী জানান, ওবায়দুল কাদের হাঁটতে পারছেন। স্বাস্থ্যের আশানুরূপ উন্নতি হওয়ায় তাকে মঙ্গলবার সকালে আইসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হতে পারে। তবে গতকাল তাকে কেবিনে দেয়া না হলেও আজ আইসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আবু নাসার রিজভী।
এর আগে কার্ডিও থোরাসিক সার্জন সিবাস্টিন কুমার সামি মন্ত্রীর চিকিৎসার সর্বশেষ অগ্রগতি পরিবারের সদস্যদের জানান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ওবায়দুল কাদেরের স্ত্রী ইসরাতুন্নেসা কাদের ও সিঙ্গাপুরে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান।
উল্লেখ্য, গত ৩ মার্চ ভোরে হৃদরোগে আক্রান্ত হন ওবায়দুল কাদের। এরপর দ্রুত তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের আইসিইউতে নেয়া হয়। তার হার্টে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে। এরপর ৪ মার্চ ভারতের প্রখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠি এসে তাকে দ্রুত সিঙ্গাপুর নেয়ার পরামর্শ দিলে ওইদিনই এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নেয়া হয় ওবায়দুল কাদেরকে।

Page Sidebar