একটি ভ্রমণের নেপথ্যে

Now Reading
একটি ভ্রমণের নেপথ্যে

ভ্রমণ মানুষের জ্ঞানের পথ কে অনেক প্রসারিত করে। সেটা হোক দেশ ভ্রমণ অথবা বিদেশ ভ্রমণ। তবে মজার ব্যাপার হল এটা যে,  এই জ্ঞান টা আপনি মজার মাধ্যমে অর্জন করতে পারবেন।  ভ্রমন কাহিনী নিয়ে অনেক গল্প পড়েছি,  তবে আমি আজ কোন ভ্রমন কাহিনী লিখতে বসিনি।  এই ভ্রমন এর নেপথ্যে কি থাকে সেটা নিয়ে আমার ব্যাক্তি জীবনের কিছু কথা লিখছি।

বন্ধুদের সাথে কোথাও ঘোরতে যাওয়ার মজাই আলাদা, আর যদি সেটা হয় সব বাল্যকালের বন্ধুদের নিয়ে, তাহলেত কথাই নেই।

আমারা বন্ধুরা অনেক সময় অনেক জায়গায় যাওয়ার পরিকল্পনা করি, তবে ভ্রমণের জন্য যে তিনটি বিষয় অপরিহার্য ভাবে সমন্বয় করতে হয় (সময়, অর্থ, স্থান) সেই বিষয় গুলো ঠিক হয়ে ওঠে না বিদায় সেটা কেবল পরিকল্পনাতেয় স্বীমাবদ্ধ থাকত।

তবে গত বছর আর সেটা পরিকল্পনাতে সীমাবদ্ধ ছিল না।

আমারা ছিলাম ৭-৮ জনের মত। এদের মধ্যে অনেকে পড়ালেখা করে, আর অনেকে পড়ালেখা শেষ করে চলে গেছে যে যার কর্মস্থলে। ভ্রমণে যাওয়ার জন্য সবার আগে আমাদের যেটা নিয়ে ভাবতে হয়েছে তা হল সময়, তারপর বন্ধুদের মধ্যে অনেকে ছাত্র, তাদের কথা ভেবে অর্থের কথাও বিবেচনা করতে হয়েছে, তার পর হল ভ্রমন স্থান নির্ধারণ করা।

সময় টা খুব বড় ব্যাপার হয়ে  দাড়াল।  কারো পরীক্ষা কারো আবার কাজের চাপ। তবে অনেক ভেবে চিন্তে, সবার কথা ভেবে,  কয়েক দিনের টানা সরকারী ছুটিতে অক্টোবর মাসের দিকে একটা তারিখ নির্ধারণ করা হল।

এর পরে যে বিষয় টা আসে তা হল অর্থ। সেটা নিয়ে আমাদের তেমন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়নি। কেননা আমাদের পরিকল্পনাটা অনেক দিন আগে থেকেই করা হচ্ছিল, তাই আমরা প্রতিদিন কিছু কিছু করে টাকা জমাতে থাকলাম। এরপরও যাদের টাকার একটু সমস্যা ছিল,  তাদের টাকা ধার করে জোগাড় করে দেওয়া হল।

তার পরে আসে স্থান। আমাদের বাংলাদেশে অনেক দর্শনীয় স্থান আছে। সবার আগে যে স্থানের কথা মাথায় আসে তাহল কক্সবাজার বাজার, তাছাড়া রাঙামাটি,  সিলেট,  সুন্দরবন ইত্যাদি।  তবে স্থান নির্ধারণ করার সময় একেক জন একেক মত দিতে থাকল, তবে এক সাথে সব জায়গা যাওয়া সম্ভব নয় বিধায়, আমরা একটা সিদ্ধান্ত নিলাম যে আমরা শুধু এই একবার ঘুরেই আমাদের অভিযান শেষ করে দিবনা, আমাদের অভিযান চলতে থাকবে। ঘুরব আমরা সারাদেশ, প্রতি বছর নতুন নতুন কোন স্থানে ভ্রমণে বেরিয়ে পরব আমরা। এর জন্য আমরা আমদের ফেসবুকে একটা গ্রুপ খুলি, একেকজন একেক জায়গায় থাকলেও সব সময় সংযুক্ত থাকি, আর ভ্রমণের তারিখ কাউন্টডাউন করতে থাকি। তবে গতবার আমরা কক্সবাজার ই যাই, কক্সবাজার ভ্রমণ নিয়ে গল্প আরেক দিন লিখব।

এই বছর আবার নতুন কোন জাগায় ভ্রমণে বেরিয়ে পরব। আমাদের এই ভ্রমণ বিলাস চলতেই থাকবে।