5
New ফ্রেশ ফুটপ্রিন্ট
 
 
 
 
 
ফ্রেশ!
REGISTER

নাইজিরিয়া এবার খেলবে ক্রিকেট বিশ্বকাপ

Now Reading
নাইজিরিয়া এবার খেলবে ক্রিকেট বিশ্বকাপ

নাইজেরিয়া ফুটবল খেলে সবাই জানেন, কিন্তু নাইজেরিয়া ক্রিকেটও খেলে হয়তো অনেকে জানেন না। নাইজেরিয়া শুধু ক্রিকেট খেলে তা নয়, এবার তারা ক্রিকেট বিশ্বকাপ খেলবে।
নাইজেরিয়া এর আগে কখনো ক্রিকেটের কোন ধরনের বিশ্বকাপে ( ওয়ানডে বিশ্বকাপ, টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বা নারী বিশ্বকাপ) খেলেনি।
তবে নামিবিয়াতে সবাইকে চমকে দিয়ে আজ নাইজেরিয়া অনূর্ধ্ব ১৯ দল নিজেদের প্রথম কোন ক্রিকেট বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করলো।
আর বিশ্বকাপের মতো আসরে জায়গা করে নেয়ার পর দারুন উচ্ছ্বসিত নাইজেরিয়া ক্রিকেট ফেডারেশন (এনসিএফ) এর ভাইস প্রেসিডেন্ট উয়ি আকপত। এমন অর্জনকে নাইজেরিয়ার ক্রিকেটের জন্য একটি বিজয় বলে মনে করেছেন তিনি । তার মতে;
“নাইজেরিয়ার ক্রিকেটের সাথে জড়িত সবাই ছেলেদের অর্জন নিয়ে গর্বিত, এটি কঠিন ছিল তাদের জন্য, কিন্তু তারা খুব নিবেদিত এবং সুশৃঙ্খল ছিল এবং আমরা তাদের নিকট ভবিষ্যতে সিনিয়র জাতীয় দল গড়ার প্রত্যাশা করছি।”
এদিকে ম্যাচের শুরুতে টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তানজানিয়া। শুরুতে অবশ্য ম্যাচের নিয়ন্ত্রন নিজেদের দিকে নিয়েছিল তানজেনিয়া।
নাইজেরিয়ান ব্যাটসম্যানদের চেপে ধরে দ্রুত উইকেট তুলে নিতে থাকলেও শেষ দিকে ইফতেনি উবয়ো ও সেগুন উগনদিপে জুটি ৮০ রান যোগ স্কোরবোর্ডে। দুজনের জুটির কারণে প্রথম ইনিংসে নাইজেরিয়ারার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪৬.২ ওভারে ১৬৯ রান।
জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৪৩.২ ওভারে ১৩৪ রানের সবকটি উইকেট হারিয়ে ফেলে তানজেনিয়া। গোকুল দাস ১০৪ বলে ৫৮ রানের সর্বোচ্চ একটি ইনিংস খেলেন। নাইজেরিয়ার পিটার অহো ১০ ওভারে বল করে ৩৭ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট লাভ করেন।
এদিকে মঙ্গলবার টুর্নামেন্টের ফাইনালে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে সিয়েরা লিওনের বিপক্ষে মাঠে নামবে নাইজেরিয়া। এই ম্যাচে জিতলেই চ্যাম্পিয়ন হয়েই বিশ্বকাপে খেলতে যাবে আফ্রিকার দেশটি।

নাইজেরিয়ার লাগোস শহরে ভবন ধসে কমপক্ষে আট শিশু শিক্ষার্থী নিহত

Now Reading
নাইজেরিয়ার লাগোস শহরে ভবন ধসে কমপক্ষে আট শিশু শিক্ষার্থী নিহত

নাইজেরিয়ায় ভবন ধসে কমপক্ষে আট শিশু শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে এবং আটকে পড়েছেন অনেক মানুষ। দেশটির বাণিজ্যিক রাজধানী খ্যাত লাগোস শহরে এ ভবন ধসের ঘটনা ঘটেছে। ধসে পড়া তিনতলা ভবনের উপর তলায় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ছিল।

ধসে পড়া ভবনের ধ্বংসস্তূপে উদ্ধারকাজ চলছে। তবে কতজন মানুষ আটকে পড়েছেন এবং ভবন ধসের কারণ জানা যায়নি। স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, ওই ভবনে বিদ্যালয় ছাড়াও বেশ কয়েকটি আবাসিক অ্যাপার্টমেন্ট ছিল। উদ্ধারকারীরা ধ্বংসস্তূপ থেকে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

উদ্বিগ্ন অভিভাবকেরা ঘটনাস্থলে ভিড় জমিয়েছেন। অনেকে আবার সন্তানের খোঁজে হাসপাতলে ছুটে গেছেন। জাতীয় জরুরি সেবা ব্যবস্থাপনা সংস্থার মুখপাত্র ইব্রাহিম বলেন, বুধবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় ভবন ধসের এ ঘটনা ঘটে। ধারণা করা হচ্ছে শিশুসহ সেখানে অনেক লোক আটকা পড়েছেন। নাইজেরিয়াতে ভবন ধসের ঘটনা খুব অস্বাভাবিক নয়। সেখানে নির্মাণ সামগ্রী খুব নিন্মামনের এবং আইনের প্রয়োগ খুব শিথিল। ২০১৬ সালেও দেশটির একটি চার্চের ছাদ ধসে শতাধিক লোক নিহত হন।

Page Sidebar