ফিফার কাউন্সিলর মাহফুজা আক্তার কিরণ গ্রেফতার

Now Reading
ফিফার কাউন্সিলর মাহফুজা আক্তার কিরণ গ্রেফতার

আজ (শনিবার) সকালে ধানমন্ডির কেয়ারি প্লাজার সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় মাহফুজা আক্তার কিরণকে। মতিঝিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওমর ফারুক কিরণকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানিয়েছেন, কিরণকে গ্রেফতারের পর আদালতে নেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তি করার মামলায় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) কার্যনির্বাহী সদস্য মাহফুজা আক্তার কিরণের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
শনিবার জামিন আবেদনের উপর উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সুফিয়ান মো.অপরদিকে, মাহফুজা আক্তার কিরণের বিরুদ্ধে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে বাফুফে। কমিটির আহ্বায়ক বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাম মুর্শেদী, আর দুই সদস্য বাফুফের সহ-সভাপতি কাজী নাবিল আহমেদ ও সংস্থাটির সদস্য আব্দুর রহিম। কিরণের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ পর্যালোচনা করে তদন্ত কমিটি বাফুফের কাছে তদন্ত রিপোর্ট জমা দেবে।
প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে দায়ের করা মামলায় মাহফুজা আক্তার কিরণের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানার আদেশ দেন আদালত।
মঙ্গলবার (১২ মার্চ) ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক সরাফুজ্জামান আনসারী বাদির জবানবন্দি গ্রহণ করে গ্রেফতারি পরোয়ানার এ আদেশ দেন।
নোমান এ আদেশ দেন।

বিমান বাহিনীতে ফাইটার জেট চালাবে নারীরা

Now Reading
বিমান বাহিনীতে ফাইটার জেট চালাবে নারীরা

শনিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আন্তর্জাতিক নারী দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের মেয়েরা এখন সব জায়গায় এগিয়ে গেছে। চাকরি-বাকরি, খেলাধুলা সব ক্ষেত্রে তারা যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছে। আগামীতে নারীরা বিমান বাহিনীতে ফাইটার জেট চালাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
তিনি বলেন, আগে জুডিশিয়াল সার্ভিসে কোনো নারীর চাকরির সুযোগ ছিল না। বঙ্গবন্ধু এই আইন বাতিল করে দিয়েছেন। ওই সময় নাজমুন আরা ছিলেন জেলা জজ। আমরা ক্ষমতায় এসে তাকে হাইকোর্টে নিয়ে আসি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা নারীদের এগিয়ে যাওয়ার জন্য স্বাধীনতার পর সংবিধানে মেয়েদের জন্য সংরক্ষিত নারী আসন দেন। তিনি মেয়েদের শিক্ষা অবৈতনিক করে দিয়েছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, এখন অনেক ধর্মীয় নেতা নারী শিক্ষার বিরোধিতা করেন। আমি তাদের বলতে চাই বিবি খাদিজা একজন ব্যবসায়ী ছিলেন এবং তিনিই প্রথম ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। কোনো পুরুষ তখন সাহস করেননি। সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীতে এখন অনেক নারী কাজ করেন। এমনিতে নারী পাইলট আছেন। আগামীতে বিমান বাহিনীতে ফাইটার জেট চালাবেন তারা।

তিনি বলেন, সেনাবাহিনীতে একসময় মেয়েদের জায়গা ছিল না। ৯৬’ সালে আমি এসে সব চালু করে দেই। এছাড়া আমি প্রথম কয়েকজন নারীকে সচিবের পদমর্যাদা দেই।

জেলা ডিসি, এসপির পদে মেয়েদের বাধা ছিল। এরপর আমি যাকে প্রথম নারী এসপি করে মুন্সীগঞ্জে আনলাম। তিনি দায়িত্ব নিয়েই ডাকাত ধরে ফেললেন। তার এ কাজের সঙ্গে আমিও জয়ী হয়ে গেলাম।

Page Sidebar