একটি ভেড়া এবং কৃত্তিম গর্ভাশয়

Now Reading
একটি ভেড়া এবং কৃত্তিম গর্ভাশয়

আমরা যারা পত্রিকা নিয়ে একটু ঘাটাঘাটি করি তারা হয়ত বর্তমানে খুব আলোচিত একটা টপিক লক্ষ্য করেছি যেখানে, দাবি করা হয়েছে – একটা ভেড়াকে মা ছাড়া কৃত্তিমভাবে তৈরী গর্ভাশয়ের মাধ্যমে তৈরী করা হয়েছে ! আসলে, ঘটনাটা মোটেও এরকম নয় ,একে আসলে কিছুটা অতিরঞ্জিত করে লেখা হয়েছে | সঠিক বিষয়টা অনেকটা এরকম – শুধু একটা ভেড়া নয়, এর আগেও হয়েছে (!) ,আর মা ছাড়া মোটেও নয় এখানে মা প্রয়োজন (!) আর কৃত্তিম গর্ভাশয়ের ব্যাপারটা ঠিক আছে !

যাইহোক, মূল ঘটনাটা অনেকটা এরকম এই বছরের -April -2017 এ Children’s Hospital of Philadelphia একটা পেপার পাবলিশড করে যেখানে তারা দাবি করে -তারা একটি Artificial womb তৈরী করেছে যেখানে তারা একটা ভেড়াকে ৪ সপ্তাহ পর্যন্ত লালন পালন করতে পারবে | অর্থাত, ৪ সপ্তাহ পর্যন্ত সেই Artificial womb বা Biobag এর মধ্যে তারা ভেড়াটাকে বড় করবে ! অনেকেই হয়ত এর সাথে টেস্ট টিউব বেবি বা In Vitro Fertilisation বা IVF এর সাথে গুলিয়ে ফেলবেন কিন্তু, IVF এ কোনো Artificial womb নেই ওখানে জলজ্যান্ত মানুষের মধ্যেই উত্পন্ন হয় যাকে Surrogate mother বলা হয় |

এখন প্রশ্ন হলো পুরো প্রক্রিয়াটা কিভাবে কাজ করে ?

প্রথমে, বিজ্ঞানীরা ৩.৫ – ৪ মাসের একটা ভ্রুণ সংগ্রহ করে যেইটা তারা Ceaserian Section এর মাধ্যমে মা থেকে সংগ্রহ করে | এরপর তারা সেই ভ্রুনকে polyethylene এর তৈরী Biobag এর মধ্যে রাখে যেখানে ভ্রুনটি সর্বোচ্চ ৪ সপ্তাহ পর্যন্ত থাকে যা কিনা সুস্থভাবে জন্মগ্রহণ করার জন্য যথেষ্ট সময় ! এই ব্যাগের মধ্যে অনেকগুলো টিউব (Umbilical cord) যুক্ত থাকে যার মাধ্যমে সেই ব্যাগের মধ্যে বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান,অক্সিজেন দেয়া হয় আবার একইসাথে কার্বন-ডাই-অক্সাইড বের করে নেয়া হয় |

আর এভাবে জন্ম নেয়া বাচ্চা যে দুর্বল হয় তা কিন্তু নয় অন্য স্বাভাবিক বাচ্চার মতই বেড়ে উঠে | এর মধ্যে একটা বাচ্চা আছে যার বয়স ইতিমধ্যে ১ বছর পর্যন্ত হয়েছে !

তবে, প্রশ্ন হলো এইটা আমাদের মানুষের কিভাবে কাজে আসতে পারে ?

বিজ্ঞানীরা ধারণা করছেন , এর মাধ্যমে যেসব প্রিম্যাচিউর চাইল্ড জন্মগ্রহণ করে তাদের ক্ষেত্রে হয়ত ব্যবহার করা যেতে পারে | যেহেতু এইটা ৪ সপ্তাহ পর্যন্ত লাইফ সাপোর্ট দিতে পারে কাজেই, যেসব প্রিম্যাচিউর চাইল্ড ২৪ সপ্তাহের মধ্যে জন্মগ্রহণ করে তাদের ক্ষেত্রে হয়ত ২৮ সপ্তাহ পর্যন্ত সাপোর্ট দেওয়া সম্ভব ” যার ফলে একটা বাচ্চার সুস্থভাবে বাচার সম্ভাবনা অনেকগুণ বেড়ে যায় | তবে, সেইক্ষেত্রে এই যন্ত্রটার গঠন ও হয়ত পরিবর্তন হবে | এই বিষয়ে গবেষণারত বিজ্ঞানী Dr. Alan flake এর বক্তব্য হলো –

“I don’t want this to be visualized as fetuses hanging on the wall in bags,” He says the device will eventually look like an incubator – with a cover and a dark interior. He also plans to make the device “parent-friendly”, allowing parents to communicate sounds to the baby and to see it with a camera.

যদিও মানুষের ক্ষেত্রে এর প্রয়োগ নিয়ে বিজ্ঞানীদের মধ্যে যথেষ্ট বিতর্ক রয়েছে | এখন দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কি হয়!

 

References :

  1. https://www.newscientist.com/article/2128851-artificial-womb-helps-premature-lamb-fetuses-grow-for-4-weeks/
  2. http://www.latimes.com/science/sciencenow/la-sci-sn-artificial-womb-premature-babies-20170428-story.html
  3. https://curiosity.com/topics/scientists-successfully-grew-a-lamb-in-an-artificial-womb-curiosity/