আজও হলো না বাংলা টাইপের কোন ভালো সফটওয়্যার !!!

Now Reading
আজও হলো না বাংলা টাইপের কোন ভালো সফটওয়্যার !!!

আমাদের মাতৃভাষা বাংলাতাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোতে আমরা ইদানিং বাংলা ভাষাই বেশি ব্যবহার করে আসছিল্যপটপ বা পার্সোনাল কম্পিউটার কিংবা অ্যান্ড্রয়েড আমরা তাই অনেক রকমের বাংলা টাইপের সফটওয়্যার ব্যবহার করে থাকিপ্রথমেই আপনাদের কিছু জনপ্রিয় বাংলা টাইপের সফটওয়্যার নিয়ে ধারণা দিতে চাই

প্রথমেই থাকছে কম্পিউটার লে আউট বাংলা টাইপিং সফটওয়্যারঃ

বাংলা জাতীয়

কম্পিউটার এর এই সফটওয়্যারটি বাজারে রিলিজ করে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলবাংলা টাইপিং এর জন্য এই সফটওয়্যারটি অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছেবিশেষ করে আমাদের দেশের সরকারি অফিস গুলোতে এটি অনেক বেশি ব্যবহার হয়ে আসছে

বেঙ্গলি ইন্সক্রিপ্ট

এটি বাংলা টাইপের উন্নত সফটওয়্যার গুলোর মধ্যে একটিমাইক্রোসফট কর্পোরেশন এটি বাজারে পাবলিশ করেমূলত এটি ইউনিকোড ভিত্তিক বাংলা টাইপের সফটওয়্যারএটি ভারতে বর্তমানে বেশি প্রচলিত হয়ে আসছে

প্রভাত

বাংলা টাইপের জন্য একটি অন্যতম জনপ্রিয় সফটওয়্যার এর একটি হচ্ছে প্রভাতএটিও ইউনিকোড ভিত্তিক একটি সফটওয়্যার

বিজয়

আমাদের দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় যে বাংলা টাইপিং সফটওয়্যার এখন বাজারে আছে সেটি হচ্ছে বিজয় বায়ান্নআনন্দ কম্পিউটারের  মালিক মোস্তফা জব্বার এই সফটওয়্যার প্রথম বাজারে পাবলিশ করে১৯৮৮ সালে এটি বাজারে ছাড়া হয়আমাদের দেশের ল্যাপটপ বা কম্পিউটার ইউজাররা এটি সবচেশে বেশি ব্যবহার করেকম্পিউটার ব্যবহৃত বাংলা টাইপিং সফটওয়্যার গুলোর মধ্যে অনেক বেশি সহজলভ্য

ফোনেটিক কম্পিউটার লে আউটঃ

অক্ষর

এই সফটওয়্যারটি ডেভেলপড্ করেন খান মো. আনুয়ারুল সালামতিনি এটি বাজারে প্রকাশিত করেন পহেলা জানুয়ারি ২০০৩ সালে

অভ্র

জনপ্রিয়তার শীর্ষে যে বাংলা টাইপিং সফটওয়্যারটি আছে সেটি হচ্ছে অভ্রমেহেদি হাসান খান এই সফটওয়্যারটির প্রতিষ্ঠাতা২৬শে মার্চ ২০০৩ সালে এটি বাজারে আধিপত্য বিস্তার করেমাইক্রোসফট উইন্ডোজ,  ম্যাক ওএসএক্স, লিনাক্স সহ প্রায় সব কম্পিউটার অপারেটিং সিস্টেম এটি কাজ করেইউনিকোড সহ বাংলিশ লিখার সহজলভ্যতার কারণে অভ্র এতটা জনপ্রিয়তা পেয়েছে

অঙ্কুর

এস. এম. রায়হান কবির এই সফটওয়্যার টির প্রতিষ্ঠা করেন। এটি বাজারে ছাড়া হয় ৩০ মার্চ ২০১১ সালে

মোবাইল ফোন লে আউটঃ

রিদ্মিক

অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনের জন্য অন্যতম সেরা যে সফটওয়্যার সেটি হচ্ছে রিদ্মিক কীবোর্ডবাংলাদেশে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী দের মধ্যে এটি সবচেয়ে জনপ্রিয়সম্প্রতি এই অ্যাপস টিতে অনেক ধরণের নতুন নতুন সব ফিচার যুক্ত করা হয়েছেযা এই অ্যাপসটিকে আরো অনেক সমৃদ্ধ করেছে

মায়াবী

অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী দের জন্য অন্য একটি জনপ্রিয় বাংলা টাইপিং সফটওয়্যার মায়াবী কীবোর্ডএটির অফিসিয়াল রিলিজ হয় ২০১১ সালের মার্চেবাংলা ভাষাভাষীদের মধ্যে এই অ্যাপসটির জনপ্রিয়তা নেহাত কম না

এছাড়াও আরো অনেক বাংলা টাইপিং সফটওয়্যার আছেযেগুলো ব্যবহার করে আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোতে ভাব বিনিময় করে থাকিতবে এইসব বিভিন্ন বাংলা টাইপিং সফটওয়্যার গুলোতে অনেক সমস্যাদি বিদ্যমানএসব সমস্যা কে বাগ (bug) বলা হয়

বাগ (bug) কি?

বাগ (bug) হচ্ছে কোন সফটওয়্যার বা প্রোগ্রামে অনিচ্ছাকৃত ভাবে সৃষ্ট ত্রুটিআমাদের দেশীয় সৃষ্ট যে বাংলা টাইপিং সফটওয়্যার গুলো আছে সেগুলো ব্যবহার উপযোগী হওয়ার চেয়ে এর অভ্যন্তরীণ ত্রুটি পরিমাণ অনেক বেশিএইসব সফটওয়্যার ব্যবহার করতে গেলে এমন সব উদ্ভট সমস্যাদির সম্মুখীন হতে হয় যে যা খুবই অনিচ্ছাকৃতএমন সব সমস্যা যা কখনো কল্পনা করা হয় নাতবে এমন কোন প্রোগ্রাম কোম্পানি নেই যে যারা বলতে পারবে তাদের সফটওয়্যারে বাগ (bug) নেইপ্রোগ্রাম বলতে বাগ (bug) এর সম্মুখীন হতে হবে এটাই সত্যতবে প্রোগ্রাম ব্যবহারকারীগণ যেন এইসব সমস্যা থেকে সমাধান পায় তার জন্যে প্রোগ্রাম ডেভেলপারদের আরো বেশি করে কাজ করে যাওয়া উচিতবিশ্বের সবচেয়ে বড় সফটওয়্যার কোম্পানি মাইক্রোসফটঅথচ তাদের সৃষ্টযে বিভিন্ন উন্নতমানের সফটওয়্যার গুলো বাজারে আছে সেগুলো এই বাগ (bug) সমস্যার বাইরে নয়অসংখ্য অনাকাঙ্খিত নানা ধরণের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় এই সব উন্নত সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করতে গেলেআর সেই তুলনায় আমাদের দেশীয় সফটওয়্যার গুলো খুব ভালো পারফর্মেন্স দেখিয়ে আসছেযা আমাদের জন্য অনেকটা গর্ব করার মতো ব্যাপার

বাগ (bug) সমস্যা থেকে সমাধান পেতে কি করা যেতে পারে?

অবশ্যই প্রথমে ব্যবহৃত ডিভাইস খুব ভালো এন্টি ভাইরাস ব্যবহার করা উচিতএছাড়াও নানা ধরণের সমস্যা সৃষ্টির জন্যে সফটওয়্যার কোম্পানি গুলোতে গুরুতর রিপোর্ট করতে হবে যাতে করে তারা এইসব বাগ ( bug) দূরীকরণে সক্রিয় হয়তবে উন্নত কোম্পানি গুলো যা করে থাকে তা হল যখন তাদের সফটওয়্যার অনেক বেশি পরিমাণে বাগ (bug) দেখা দেয় তখন তারা তাদের ডেভেলপারদের মাধ্যমে সফটওয়্যার গুলো আরো ভালোভাবে ফিক্স করে এবং নানা ধরণের আপডেট করেএতে করে সমস্যাগুলো অনেকটাই কমে আসেআর আমাদের দেশীয় যে সফটওয়্যার বা বাংলা টাইপিং অ্যাপস বাজার ছাড়া হয় তা পরবর্তীতে কোন রকমের আপডেট বা বাগ (bug) ফিক্স করার জন্য কোন ডেভেলপমেন্ট করা হয় না বললেই চলেএতে করে সফটওয়্যার গুলোর বাজার মান অনেকটা কমে যায়অনেক সফটওয়্যার কোম্পানি তাদের সফটওয়্যার এর জনপ্রিয়তা হারায়আর তাই এদিক থেকে আমাদের দেশীয় সফটওয়্যার কোম্পানি বা সফটওয়্যার ডেভেলপারদের অনেক বেশি সচেতন হওয়া উচিত বলে আমি মনে করি

আমাদের দেশের পরিপ্রেক্ষিতে বলতে গেলে আমাদের দেশে এমন অনেক জিনিয়াস ইয়ং জেনারেশন আছে হয়ত তারা আরো অনেক ভালো বাংলা টাইপিং সফটওয়্যার ক্রিয়েট করতে সক্ষম হবেআমরা সেই দিন টির আশায় অপেক্ষারতএমন সব ভালো বাংলা টাইপিং সফটওয়্যার তারা সৃষ্টি করবে যা ব্যবহার করা অনেক সহজলভ্য হবেবাগ (bug) সমস্যাগুলো কখনো পুরোপুরিভাবে নির্মূল করা সম্ভব নয়তবে অবশ্যই তা খুব অল্প পরিমাণে সফটওয়্যার বা অ্যাপস গুলোতে থাকবে যাতে করে ব্যবহারকারী কোনরকম গুরুতর সমস্যার সম্মুখীন না হয়অনেক ভালো ভালো প্রোগ্রামার রয়েছে আমাদের দেশেহয়ত তারা তাদের সৃজনশীলতা কে কাজে লাগিয়ে অদূর ভবিষ্যতে অনেক উন্নত মানের বাংলা টাইপিং সফটওয়্যার ক্রিয়েট করবেবর্তমানে যে সব সফটওয়্যার বাজারে জনপ্রিয়তার শীর্ষে আছে নতুন সৃষ্ট সফটওয়্যার গুলো জনপ্রিয়তার দিক থেকে এগুলোকেও ছাড়িয়ে যাবেআর সেই দিন খুব বেশি দূরে নয়