চট্টগ্রামের হালিশহরে মহামারী আকারে জন্ডিস – জরুরী অবস্থা ঘোষণা করা হোক এই এলাকায়!

Now Reading
চট্টগ্রামের হালিশহরে মহামারী আকারে জন্ডিস – জরুরী অবস্থা ঘোষণা করা হোক এই এলাকায়!

চট্টগ্রামের হালিশহর এলাকায় মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়েছে জন্ডিস, টাইফয়েড এবং নানা রকমের পানিবাহিত রোগ। ইতিমিধ্যে বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে এবং অগণিত মানুষ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। সবচেয়ে উদ্বেগের ব্যাপার হলো প্রথম অবস্থায় কেউ বুঝতেই পারেনি রোগগুলো মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ছে। শুধু মাত্র ফেসবুকে ২/১ একজন এলাকাবাসীর পোস্ট ছাড়া কোন সংবাদপত্র বা টিভি চ্যানেলও এগুলো কাভার করেনি। সবার অজান্তেই ছড়িয়ে পড়েছে এই মহামারী। আমাদের অফিস একই এলাকায় হবার কারণে আমরাও দেখতে পাচ্ছি প্রতিটি ঘরে কেউ না কেউ অসুস্থ বা হাসপাতালে। 

এর মধ্যে যারা রোগে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের বেশীরভাগই হেপাটাইটিস ই তে আক্রান্ত – এভবং পরবর্তীতে লিভার ফেইলিউরে মৃত্যুবরণ করেছেন। এদের মধ্যে অনেকেই অল্প বয়সী আছেন

এত মানুষ মারা যাচ্ছে কিন্তু এই ব্যাপারে আদৌ কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে কিনা তার সঠিক কোন নির্দেশনা নেই। সমস্ত রোগই পানিবাহিত। এই এলাকার পানির লাইন নর্দমার সাথে মিশে গেছে আর সামান্য বৃষ্টিপাতে এলাকাটি প্লাবিত হয়ে। মানুষের খাবার পানির সাথে মিশে গেছে নোংরা বিষাক্ত পানি। এর কিছুদিন আগে কিছু পত্রিকায় এসেছিল হালিশশহর এলাকার ওয়াসার পানিতে এক ধরনের ব্যাক্টেরিয়া পাওয়া গেছে। কিন্তু পরবর্তীতে এ ব্যাপারে কোন ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি। 

হেপাটাইটিস ই রোগের লক্ষণ সমূহ ঃ 

Fever. ,Fatigue.Loss of appetite.Nausea.Vomiting.
Abdominal pain.Jaundice. Dark urine.

অত্র এলাকায় জরুরী বয়স্থা ঘোষণা করে বিশেষ কোন ব্যবস্থা নেয়া হোক। আর সবচেয়ে বেশী প্র্যয়োজন পানির সাপ্লাইয় ঠিক রাখ। বিশুদ্ধ পানি। মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করাটা এই মুহুর্তে বেশী জরুরী। অনেকেই হয়তো না জেনেই টেপের পানি পান করছেন আর অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।