মওকা মওকা ভিডিও এর ভালো জবাব দিল শ্রীলংকা

Now Reading
মওকা মওকা ভিডিও এর ভালো জবাব দিল শ্রীলংকা

কথায় আছে পিপীলিকার পাখা গজায় মরিবার তরে । আমি বা আপনি কখনো ব্যক্তিগত কারণে কোনও দলকে অপমান করতে পারেন না । এইবার সেটা যে কোনও খেলা হোক । আর দল যদি ইন্ডিয়া বা পাকিস্তানই হোক না কেন আপনি ইচ্ছা করলেই সেই দলকে পচিয়ে বা অসম্মান করে ভিডিও বানাতে পারেন না । আমি তখনি সম্মান পাবেন যখন আপনি আমাকে কে সম্মান করবেন ।

উপরের কথা গুলো বলার উদ্দেশ্য হলো , বাংলাদেশ তাদের প্রস্তুতি ম্যাচ খুব বাজে ভাবে হেরে যায় ইন্ডিয়ার সাথে । আর গ্রুপ ম্যাচ এ পাকিস্তান কে হারিয়ে খুব ভালো সূচনা করেন ইন্ডিয়া । অবশ্যই ইন্ডিয়া ভালো দল তাই তারা ভালো খেলছে । কিন্তু আপত্তি বাদে তখনি , যখন কতিপয় কিছু ইন্ডিয়ান ভক্ত একটা দেশ কে খুব ছোট করে অপমান জনক ভিডিও বানায় । বেশ কিছু দিন বন্ধ ছিল এই নিয়মটা । কিন্তু আবার তারা চালু করে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফি কে কেন্দ্র করে । কিছু দিন আগে দেখলাম একটা মদের বারে সব মদ ফ্রি দিয়েছে কারণ বাংলাদেশ কে খুব ভালো ভাবে হারিয়েছে এবং গ্রুপ ম্যাচ এ পাকিস্তানকে ও হারিয়েছে । একজন শ্রীলংকান ড্রেস পড়ে ভিতরে ঢুকলে বলে এইবার তোদের পালা । কিন্তু আমি বুঝলাম না কেন তারা এমন করবে । খেলা কে শুধু খেলা হিসেবে নিলেই হয় , কিন্তু কেন আমি একটা দেশ কে এই ভাবে অপমান করবো ?

আজ ইন্ডিয়ার সাথে শ্রীলংকার খেলা ছিল । সবাই ভেবে ছিল ইন্ডিয়া জিতবে । আর তাদের টার্গেট ও ছিল জিতার মতো । শ্রীলংকাকে ৩২২ রানের বিশাল পাহাড় সমান টার্গেট দিয়ে ব্যাটিং এ পাঠায় ইন্ডিয়া । ইন্ডিয়ার খুব শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন আপ , এর তুলনায় শ্রীলংকা একদম নতুন ও তরুণ নির্ভর একটি দল । কিছু দিন আগে বাংলাদেশের সাথে একই দলটি কিছু সিরিজ খেলেছে । সব গুলো সিরিজ ড্র করেছে । তাদের কাছে এতো রান তাও ইন্ডিয়ার বিপক্ষে করা প্রায় ছিল অসম্ভব । আসলে কথায় আছে গোল বলের খেলা কিছুই বলা যায় না ।শ্রীলংকা করেছেন তাই । ইন্ডিয়াকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে তারা ।

ক্লাসিকাল ব্যাটিং করে জিতেছে শ্রীলংকা । ভারতের মতো তারা শুরু করতে না পারলেও দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে তারা খুব ভালো সূচনা করে দেয় দলকে । যার ফলে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান দের তেমন রান তুলতে বেগ পেতে হয়নি । ইন্ডিয়া ব্যাট করে তাদের প্রথম উইকেট জুটিতে করেন ১৩২ রান । আজ ইন্ডিয়ার ম্যাচ অনেক রেকর্ড হয়েছে । যেমন – প্রায় ৩ বছর পর বিরাট শূন্য রানে আউট হয়েছে । আর শ্রীলংকার বিপক্ষে এইটা ছিল ইন্ডিয়ার সর্বোচ্চ স্কোর । এমনি কি ইন্ডিয়ার জন্য আরেকটি লজ্জা জনক রেকর্ড হলো , এই প্রথম শ্রীলংকা ইন্ডিয়ার বিপক্ষে ৩২২ রান তারা করে জিতেছে । এতো শত রেকর্ডের পরের আজ নিজেদের মান বাঁচাতে পারেনি ইন্ডিয়া । তারা মূলত শ্রীলংকান ব্যাটসম্যান গুনাথিলাকা আর মেন্ডিসের পার্টনারশিপের কারণে হেরে যায় । প্রথম দিকে শ্রীলংকা তাদের প্রথম উইকেট হারিয়ে খুব চাপে পড়ে । দলের ১১ রানের মাথায় তারা হারায় অনেক দিন পর ডাক পাওয়া ডিকেলবার এর বিদায়ে । বিদায়ের আগে তিনি রান করেছে ৭ । এই চাপ থেকে দলকে বের করে আনে দুই ব্যাটসম্যান । তাদের হাত ধরে জয়ের পথে ফিরে আসে শ্রীলংকা । গুনাথিলাকা কে সঙ্গী করে এগিয়ে যায় মেন্ডিস । তাদের দুই জনের শুরুটা হয়েছে একটু ধীর গতিতে । তারা বল দেখে শুনে খেলছিল । কিন্তু তাদের মধ্যে কিছুটা বোঝাপড়ার অভাব দেখা গিয়েছে । অনেক বার তাদের মধ্যে ভুল বোঝা বুঝি হয়েছে । তারা নিজেদের পায়ে নিয়েরা কোরাল মারে । রান আউট এর শিকার হয়ে ফিরে যান গুনাথিলাকা । ব্যক্তিগত ৭৬ রানে ফিরে যান তিনি । দল তখন সুবিধা মতো জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে । মেন্ডিসকেও আর বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে হয়নি । তিনিও রান আউট এর শিক্ষার হয়ে ফিরে গিয়েছেন প্যাভিলিয়নে । ক্রিজে তখন দুই ব্যাটসম্যান । যে রকম চাপ প্রয়োগ করার কথা ছিল ভারতের , সেরকম চাপ প্রয়োগ তো করতে পারেনি উল্টো খারাপ বল করে না দিয়েছে অনেক । পরে আর তারা কোন উইকেট ফেলতে পারেনি শ্রীলংকার । মজার ব্যাপার ছিল একজন চোট পেয়ে মাঠ থেকে উঠে যান আর তার জায়গায় খেলতে আসেন আরেক চোট থেকে ফিরে আসা খেলোয়াড় । তিনি মূলত জয়ের ভিত্ত গড়ে দেয় ।

ভারতের বোলাররা তেমন সুবিধা করতে পারেনি এই তরুণ নির্ভর দলের সাথে । বোলার হিসেবে একটি মাত্র উইকেট পেয়েছে । আর বাকি দুইটি উইকেট আসে রান আউট এর সুবাদে । ভারতের অন্যতম স্পিনের জাদেজার আজ সুবিধা করতে পারেনি । খুব ভালো ফর্মে থেকেও তিনি আজ তার সেরাটা দিতে পারেনি । যার ফল স্বরূপ তিনি কোন উইকেট না নিয়ে দিয়েছেন ৫২ রান । ভারতের আজ হারের পিছনে ছিল খুব বাজে বোলিং । শ্রীলংকার বিপক্ষে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি তাদের বোলিং লাইন আপ ।

পরিশেষে একটা কথা বলতে চাই , খেলায় হার জিত আছে আর থাকবে । প্রত্যেক দেশের খেলা , সেই দেশের আবেগ ও ভালোবাসার জায়গা । কখনোই উচিত নয় তাদের ভালোবাসার জায়গায় খুব বাজে ভাবে আঘাত করা । ক্রিকেট জেন্টলম্যান দের খেলা । এই খেলার সাথে সাথে আমাদের জেন্টলম্যান হওয়া উচিত ।