খেলাধূলা
Now Reading
ধ্বংসস্তূপ থেকে বের হয়ে আসলো বাংলার বাঘ
1540 256 0

ধ্বংসস্তূপ থেকে বের হয়ে আসলো বাংলার বাঘ

by Rohit Khan fzsJune 10, 2017
What's your reaction?
লাইক ইট!
100%
FUNNY
0%
Sad
0%
Boring
0%

মিরাকল মনে হয় একেই বলে । তা না হলে কিভাবে একটা দল ৪৪ রানে ৪ উইকেট থেকে উঠে এসে ৫ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় ? আসলে কথায় আছে ক্রিকেট গোল বলের খেলা , যেকোনো সময় যেকোনো কিছু ঘটতে পারে ।
বাংলাদেশের জয়টি ছিল প্রায় অবিশ্বাস জয় । হেরে যাওয়া ম্যাচ বের করে এনেছে বাংলার দুই বাঘ মাহমুদউল্লাহ ও বিশ্বের এক নাম্বার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান । অসাধারণ খেলেছে তারা দুই জন । দুই জনই ১০০ রান করে নিয়েছে ।

টসে জিতে নিউজিল্যান্ড ব্যাটিং এ আসে । বাংলাদেশের সামনে তখন কঠিন সমীকরণ । হেরে গেলে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় । আর জিতলে টিকে থাকবে আর তাকিয়ে থাকতে হবে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচের দিকে । এমন সমীকরণ মাথায় নিতে খেলতে নাম বাংলাদেশ দল । শুরু আগে হানা দিলো বৃষ্টি । বাংলাদেশ দলের জন্য প্রথম ধাক্কা ছিল । সেই ধাক্কা পিছনে ফেলে খেলা শুরু হয় । যথারীতি বাংলাদেশ দলের স্ট্রাইক বোলার মাশরাফি বল করতে আসেন । তিনি খুব কম রান দিচ্ছিলেন । কিন্তু মাশরাফির বিপরীত কাজ করছিলো মুস্তাফিজ । তিনি কোনো মতেই তার রিদম খুঁজে পাচ্ছিলো না । যার ফলে রান দিচ্ছে প্রচুর । তার জায়গার প্রথম বারের মত ডাক পাওয়া তাসকিন বল করতে আসেন । প্রথম ওভার নিজের গতি দিয়ে ব্যাটসম্যানদের কে বেঁধে রাখেন , হামলা দেন তার ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ওভারে । তাসকিনের বল সামনে এসে ব্যাট উপরের দিকে করে খেলতে যান তিনি । কিন্তু টাইমিং ঠিক না থাকার কারণে মিড অনের দিকে চলে যায় বল । সেখানে প্রস্তুত ছিলেন ফিজ । সহজ ক্যাচ তালু বন্ধী করেন তিনি । লুক ব্যক্তিগত ৩০ রান আর দলীয় ৪৬ রানে ফিরে যায় । প্রথম ১০ ওভারে তারা অনেকটা রান দিয়েছে । যা দেখে অনেকে ভেবে নিউজিল্যান্ড ৩০০ প্লাস রান করবে । কিন্তু তাসকিন , মুস্তাফিজ , মাশরাফি ও সাকিবের নিয়ন্ত্রিত বোলিং এর কারণে তারা ২৬৫ এর বেশি করতে পারেনি । যখনি নিউজিল্যান্ড বড় পার্টনারশিপ করতে যাবে তখনি আঘাত হানে বোলাররা । ব্যতিক্রম ছিল না রুবেল । এমনিতে নিউজিল্যান্ড এর বিপক্ষের তার রেকর্ড ভালো । দ্বিতীয় উইকেট তুলে নেন রুবেল । মাঝ পিচে পড়ে বল যখন ভিতরে ঢুকবে , তখন ব্যাট চালায় গাপটিল , কিন্তু বল বাক খেয়ে ভেতরে ঢুকে পায়ে আঘাত আনে । এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে ফিরে যান তিনি । ভালো বল হবার কারণে তাদের রানের চাকা ছিল স্থির । রান তোলায় ব্যস্ত হয়ে পড়ে ব্যাটসম্যান । যার ফলাফল স্বরূপ রান আউট হতে হয়ে । মোসাদ্দেক এর থ্রো তে স্ট্যাম্পিং করেন সাকিব আল হাসান । সেই সাথে বিদায় নেন উইলিয়ামসন ।
উইলিয়ামসন ফিরে গেলেও অন্য প্রান্তে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছিল টেইলার । আবারো তাকে ফিরিয়ে দেন দলের প্রথম উইকেট নিয়ে তাসকিন ।শর্ট ফাইন এ ব্যাট ঘুরিয়ে খেলতে দিয়ে আউট হয়ে যান । সেই সাথে ধীর হয়ে পড়ে নিউজিল্যান্ড এর রান । শেষের দিকে তারা হুড়া করা খেলতে গিয়ে মোসাদ্দেক হাতে ধরে পড়ে মিডল অর্ডারের দুই ব্যাটসম্যান । শেষের দিকে বাংলাদেশ খুব ভালো বল করার কারণে নিউজিল্যান্ড জ্বলে উঠতে পারেনি । উইকেট শিকারের নাম থেকে মুস্তাফিজ ও বাদ যায়নি । শেষের দিকে খুব সুন্দর ইয়র্কার এর মাধ্যমে ফিরে দেন মিলনকে । ৫০ ওভার শেষে নিউজিল্যান্ড এর ২৬৫ রান ।

বাংলাদেশ খেলতে নেমে শুরুতে ভুল করে বসেন তামিম ইকবাল । তিনি দলের একমাত্র ধারাবাহিক ব্যাটসম্যান । সাউদির বলে এলবিডব্লিউ এর ফাঁদে পড়ে যান তিনি । যার ফলে দলের ও নিজের শূন্য রানে ফিরে যান । ক্রিজে নেমে আসেন সাব্বির । কিন্তু তাকে নামিয়ে দলের লাভ হয়নি , বরং দলকে চাপে রেখে আউট হয়ে যান তিনি । খুব বাজে বলে ক্যাচ দিয়ে আউট হয়ে যান তিনি । সাব্বির এর সময় খুব খারাপ যাচ্ছে । নিজের নামের সাথে সুবিচার করতে পারছেন না তিনি । অন্য দিকে সৌম্য এর উপর ভরসা ছিল বাংলাদেশ দলের । কিন্তু না তিনি ও ব্যর্থ । বাংলাদেশ দলের দুঃসময় তিনিও ফিরে গেলেন খালি হাতে । মাত্র ৩ রান করে ফিরে যান তিনি । ক্রিজে তখন সাকিব আর অন্য প্রান্তে ভরসার নাম মুশফিক । কিন্তু তিনি ও আউট হয়ে গেলেন । আমি নিজেও তখন ভেবে ছিলাম বাংলাদেশ হেরে যাবে । কিন্তু না তা হতে দেননি সাকিব ও মাহমুদউল্লাহ । ৪৪ রান থেকে দল কে এই দুই জন নিয়ে যায় জয়ের বন্ধরে । খুব সাবধানের সাথে দেখে শুনে খেলেন তারা । তাদের খেলা দেখা আবার জয়ের আশা বুকে বাঁধতে থাকে । সেই সাথে তারা করে ফেলেন রেকর্ড । বাংলাদেশের ইতিহাসে তারা প্রথম তৃতীয় উইকেটে করেন ২০০ রানের জুটি । যা এর আগে কেউ করতে পারেনি বাংলাদেশের হয়ে । একদম জয়ের দ্বারপ্রান্তে এসে আউট হয়ে যান সাকিব আল হাসান । তখন সাকিবের ১১৪ রান । পর পর দুই বলে দুই চার মেরে তৃতীয় বলে আউট হয়ে যান তিনি । মাঠে শুধু দলের জয়ের পতাকা হাতে নিতে নেমে আসেন মোসাদ্দেক হোসেন । প্রথম বলে চার মেরে দ্বিতীয় বলে দুই রান নেন তিনি । তার পর এক রান নিয়ে মাহমুদউল্লাহ কে ব্যাট করতে পাঠান মোসাদ্দেক । শেষ বলে চার মেরে নিজের শতক পূরণ করেন তিনি । শেষের দিকে মোসাদ্দেক ৪ মেরে খেলা শেষ করে দেন ।

সেই সাথে বাংলাদেশে জিতে যায় । আর টিকে থাকে সেমি ফাইনালের দৌড়ে ।
সাবাস বাংলাদেশ ।

রেটিং
পাঠকের রেটিং
Rate Here
পোস্টের টাইটেলের সাথে মুল লেখার মিল
99%
পোস্টের ছবি কতটা সামঞ্জস্য পূর্ন
99%
লেখনীটা কেমন?
86%
পোস্টটি পড়ে আপনি কতটুকু স্যাটিসফায়েড?
75%
90%
পাঠকের রেটিং
3 ratings
You have rated this
About The Author
Rohit Khan fzs
Rohit Khan fzs

বি.এস.সি করছি ইলেকট্রনিক এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং। লিখতে ভালবাসি। নতুন নতুন মানুষদের সাথে পরিচিত হতে পছন্দ করি।

You must log in to post a comment