গুডবাই ! MP3 আমরা তোমাকে মনে রাখব

Please log in or register to like posts.
News

কোনো গান শুনেনি | এইটা এতটাই বেশি জনপ্রিয় যে এর জন্য রীতিমত MP3 প্লেয়ার নামে একটা ডিজিটাল অডিও ডিভাইস পর্যন্ত কিনতে পাওয়া যায় ! কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্যি সেই MP3 হয়ত আমাদের মাঝে আর থাকবেনা | এই বছরের এপ্রিল ২৩, ২০১৭ তারিখে Fraunhofer IIS এর ঘোষণামতে তারা অফিসিয়ালি MP3 কে পুরোপুরি বন্ধ করে দিচ্ছে | অর্থাত, এখন থেকে MP3 সংক্রান্ত লাইসেন্স প্রোগ্রাম তারা পুরোপুরি স্থগিত ঘোষণা করলো |

 

MP3 এর ইতিহাস

MP3 প্রথম ডেভেলপ করা হয় ১৯৯৩ সালের দিকে যেইটা মূলত একটা জার্মান রিসার্চ ইনস্টিটিউট Fraunhofer IIS এর প্রজেক্ট এর অংশ হিসেবে ছিল | তাদের মূল উদ্দেশ্যই ছিল অডিও ফাইল গুলোকে যথেষ্ট পরিমান কম্প্রেস করা কারণ, তখনকার সময়ে বড় বড় ফাইল নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে ট্রান্সফার করার কাজটা খুব সহজ ছিল না | আর MP3 ফরম্যাট তাদের ঠিক সেই কাজটাই করার সুযোগ তৈরী করে দিয়েছিল | এর বিশাল পরিমান অডিও ফাইল কে খুব সহজেই কম্প্রেস করে নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে পাঠানো হয়ে থাকে | এই যেমন- একটা আনকম্প্রেসড ২ চ্যানেল এর অডিও ফাইল যার ডিউরেশন ৩ মিনিট এবং ফ্রিকোয়েন্সি 44.1 KHz; এর জন্য জায়গা লাগবে মোট ৩১ মেগাবাইট | এইটা হয়ত এখনকার জন্য খুব বেশি কিছু না কিন্তু, তখনকার সময়ে এইটা অনেক বেশি কঠিন ছিল | আর এই কম্প্রেশন টা হলো একরকম lossy compression” অর্থাত, এর ফলে ইনফরমেশন এর অনেক কাট-ছাট হয় |

 

MP3 কিভাবে কাজ করে ?

এখন প্রশ্ন হলো, MP3 কিভাবে তার এই কম্প্রেশন এর কাজ করে থাকে ? যার ফলে মুহুর্তেই সাইজও অনেখানি কমে যায় ? একটু আগেই বলেছি এইটা হলো একধরনের “lossy Compression” এর ফলে অনেখানি ইনফরমেশন ফাইল থেকে হারিয়ে যেতে পারে | কিন্তু, ইনফরমেশন যদিও হারিয়েই যায় তাহলে, কোয়ালিটি তো কমে যাওয়ার কথা ,সেইটা কেন কমছেনা ? আসলে এইখানেই রয়েছে সেই MP3 ফরম্যাট এর মাহাত্য !

এই MP3 ফরম্যাট যখন কোনো অরিজিনাল ফাইল কে MP3 তে কনভার্ট করে তখন তা অনেক কিছু অংশ কাটছাট করে | আর এই কাটছাট করার জন্য মূলত অপ্রয়োজনীয় কিছু ফ্রিকোয়েন্সি বাদ দিয়ে থাকে | এই যেমন- প্রথমে সেই অডিও ফাইল কে এনালাইজ করে তারপর সেখান থেকে ফ্রিকোয়েন্সি ব্যান্ড এর মধ্যে যে অংশগুলো মানুষের শ্রাব্যতাসীমার বাইরে থাকে তা বাদ দিয়ে দেয় | (যারা জানেনা তাদের জন্য মানুষের শ্রাব্যতাসীমা হলো 20 Hz – 20000 Hz এর বাইরে যদি কোনো শব্দ হয় মানুষ তা শুনতে পারেনা !) এইটা করার পিছনে লজিকটা হলো মানুষ যদি সেইসকল ফ্রিকোয়েন্সি শুনতেই না পারে তাহলে শুধু শুধু রাখার কি দরকার ! আর, এই অপ্রয়োজনীয় অংশ বাদ দিয়েই বাকি যা থাকে তাহলো কম সাইজের সেই MP3 ফাইল !

আরেকটা পদ্ধতিতে MP3 তার এই কম্প্রেশন এর কাজ করে থাকে তাহলো- “frequency masking”  এই পদ্ধতিটি হলো, আমরা যখন একইধরনের ২টা ফ্রিকোয়েন্সির শব্দ পাই যেইটা সিমিলার হলেও আইডেনটিক্যাল নয় এবং একটা শব্দ আরেকটার চেয়ে লাউডার তাহলে, আমরা কেবলমাত্র লাউডার শব্দটাই শুনতে পারব | কাজেই, MP3 কনভার্টার যা করে তাহলো এরকম সিমিলার ফ্রিকোয়েন্সির ক্ষেত্রে লোয়ার শব্দটা বাদ দিয়ে কম্প্রেশন করে থাকে | যেহেতু, আমরা শুনতেই পাইনা কাজেই, তা রাখার দরকার কি !

এছাড়াও, আরেকটা পদ্ধতি হলো –“temporal masking” এই পদ্ধতি কাজ করে এভাবে যে- একটা লাউডার এমন লোয়ার শব্দের ক্ষেত্রে আমরা লোয়ার শব্দটাকে লাউডার শব্দ থেকে আলাদা করতে পারিনা কাজেই, MP3 কনভার্টার যা করে তাহলো, এই লোয়ার শব্দগুলোকে কনভার্সন এর সময় বাদ দিয়ে দেয় |

অবস্য বর্তমানের যেই MP3 কনভার্টার যেই অবস্থানে রয়েছে তা আগে মোটেও এরকম কিছু ছিলনা | এর জন্য যেই এলগরিদম ব্যবহার করা হয় তা খুব ধিরে ধিরে একটা সময় পারফেক্ট হয়েছে | গবেষকেরা প্রথম দিকে Suzanne Vega’s song “Tom’s Diner” এই গানের ক্ষেত্রে কম্প্রেশন ফর্মুলাটা প্রয়োগ করেছিল | কিন্তু, সেইসময় সেই কনভার্সন টা মোটেও ভালো ছিলনা | অনেক প্রয়োজনীয় ডাটা হারিয়ে যাওয়ায় তা খুব বাজে আর কর্কশ ছিল | যদিও, এর ফলে গবেষকদের আরো নতুন এবং কার্যকরী একটা এলগরিদম তৈরী করতে উত্সাহ করে | আর একটা সময় তারা সফলতাও পায় |

 

তবে, আজকের দিনে MP3 অপেক্ষা অনেক কার্যকরী অডিও কম্প্রেশন করার এলগরিদম রয়েছে | যেইটা, সাইজ কমালেও মানের দিক থেকে অনেক ভালো থাকে | এরকম একটা হতে পারে AAC (Advance audio coding) যার এক্সটেনশন গুলো হলো- .m4a, .m4b, .m4p, .m4v, .m4r, .3gp, .mp4, .aac | বিভিন্ন ভাবে পরীক্ষা করে দেখা যাচ্ছে এই ফরম্যাট তার ডাটা সাইজও না কমিয়েও কোয়ালিটি MP3  এর চেয়ে বহুগুনে ভালো রাখতে পারে | যদিও, এইটা এখন সকল ডিভাইস এর জন্য এভেলেবল না |

তবে, MP3  ফরম্যাট বাদ হলেই যা আমরা আমাদের MP3 প্লেয়ার কিংবা কম্পিউটারে চালাতে পারবনা তা কিন্তু নয় | বরং অবস্থাটা অনেকটা আগের সেই ভিসি রেকর্ড কিংবা ক্যাসেট প্লেয়ার মত হয়ত হবে যেগুলো আমরা চাইলেই চালাতে পারি; কিন্তু, তার তো আর কোনো দরকার নেই তাইনা ?

কাজেই, সবশেষে গুডবাই MP3 আমরা তোমাকে নিশ্চয় মনে রাখব !

 

আজকে এই পর্যন্তই | আশা করি সবার ভালো লেগেছে | সবাইকে ধন্যবাদ |

 


 

References:

https://www.iis.fraunhofer.de/en/ff/amm/prod/audiocodec/audiocodecs/mp3.html

https://thenextweb.com/insider/2017/05/15/the-mp3-format-is-officially-dead/#.tnw_RNYAvIfG

http://gizmodo.com/developers-of-the-mp3-have-officially-killed-it-1795205540

 

Sources:

http://whatis.techtarget.com/fileformat/MP3-MPEG-Audio-Layer-3-AC3-file

http://electronics.howstuffworks.com/killing-mp3-thats-ok.htm

https://www.winxdvd.com/resource/aac-vs-mp3.htm

 

Reactions

0
0
0
0
0
0
Already reacted for this post.

Reactions

Nobody liked ?